পর্যটকদের জন্য প্রস্তুত কুয়াকাটা
প্রকাশ : ২৬ জুন ২০১৭, ০৯:৩২
পর্যটকদের জন্য প্রস্তুত কুয়াকাটা
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটাকে সাজিয়ে তোলা হয়েছে নতুন সাজে। হোটেল ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, পর্যটকরা ঈদের ছুটি উপভোগ করতে হোটেলগুলোতে আগাম বুকিং দিয়েছেন। অগ্রিম বুকিংয়ের জন্য পর্যটকরা অনলাইন ও ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করছেন। ভালো সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার কারণে এ বছর বেশি পর্যটক সমাগম ঘটবে।


পর্যটকদের নিরাপত্তা ও সুযোগসুবিধা বাড়াতে পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসনও প্রস্তুত রয়েছে। ঈদ আনন্দে কেনাকাটার জন্য স্থানীয় মার্কেটের রাখাইন তরুণীরা বিভিন্ন সামগ্রির পসরা নিয়ে বসে গেছেন। সৈকতে বসার বেঞ্চ ও ছাতায় এখন রং-বাহারে নতুনত্বের ছোঁয়া।


কুয়াকাটার দর্শনীয় স্থান নারিকেল কুঞ্জ, ইকোপার্ক, জাতীয় উদ্যান, শ্রীমঙ্গল বৌদ্ধবিহার, সীমা বৌদ্ধবিহার, ফাতরার বনাঞ্চল, গঙ্গামতি, কাউয়ারচর, লেম্বুরচর, শুঁটকি পল্লীসহ সৈকতের জিরোপয়েন্ট থেকে পূর্ব ও পশ্চিমে মনোমুগ্ধকর সমুদ্রের বেলাভূমি, একাধিক নয়নাভিরাম লেক, সংরক্ষিত বনায়ন ও ইলিশ পার্ক যেন পর্যটকদের এখন হাতছানি দিয়ে ডাকছে।


স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, ঈদ উপলক্ষে দীর্ঘ ছুটিতে কর্মজীবী মানুষ একটু বিনোদনের জন্য ছুটে আসবেন পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার সৈকতে। এজন্য আমরা সকল ধরনের সেবা দিতে প্রস্তুত রয়েছি। ট্যুরিস্ট বোর্ড মালিক সমিতির পরিচালক হোসাইন আমির জানান, পর্যটকদের নৌপথে ভ্রমণের জন্য নৌ-তরীগুলো প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এছাড়া পর্যটকদের বিভিন্ন প্লটে ঘুরে বেড়ানো ও তথ্য জানানোর জন্য সৈকতের আশপাশে একাধিক ট্যুরিজম তথ্য সেবা কেন্দ্র রয়েছে।


কুয়াকাটার বিলাসবহুল হোটেল সিকদার রিসোর্ট অ্যান্ড ভিলার ভারপ্রাপ্ত অপারেশন ম্যানেজান গোলাম মোর্শেদ খান জানান, ঈদ উপলক্ষে আমাদের হোটেলের রুমের মূল্যছাড় দেয়া হয়েছে। হোটেলের পক্ষ থেকে ঈদের এক, দুই, তিন দিন লাইভ বারবিকিউ ও ডিনার পার্টিও রয়েছে। কুয়াকাটা হোটেল মোটেল ওনার্স এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোতালেব শরীফ জানান, রমজান মাসে কুয়াকাটা ছিল পর্যটকশূন্য। সড়কপথে পটুয়াখালী থেকে কুয়াকাটা ফেরিমুক্ত হওয়াতে ঈদের ছুটিতে পর্যটকদের উপচেপড়া ভিড় থাকবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেছেন।


কুয়াকাটার পৌর মেয়র আবদুল বারেক মোল্লা জানান, পৌরসভার পক্ষ থেকে সৈকতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন কাজ চলছে। কুয়াকাটা ট্যুরিস্ট পুলিশ জোনের এএসপি আব্দুল করিম জানান, পর্যটকদের নিরাপত্তার জন্য জিরো পয়েন্টসহ সৈকতের তিনটি পয়েন্টে ২৪ ঘন্টা পুলিশ নিয়োজিত থাকবে।


বিবার্তা/জিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com