বাংলাদেশে প্রস্তুত মাদক পাচার হচ্ছে স্পেনে
প্রকাশ : ২৪ অক্টোবর ২০১৭, ১৯:৩৫
বাংলাদেশে প্রস্তুত মাদক পাচার হচ্ছে স্পেনে
খলিলুর রহমান
প্রিন্ট অ-অ+

বাংলাদেশে মাদকদ্রব্য প্রস্তুত করে অভিনব কায়দায় তা স্পেনে পাচার করা হচ্ছে। এ অপকর্মে জড়িত অনেকেই তথাকথিত উচ্চ ডিগ্রিধারী এবং কেউ ব্যবসায়ী, কেউবা ব্যাংক-বীমায় কর্মরত। র‌্যাবের অনুসন্ধানে এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে।


র‌্যাব জানিয়েছে, পাচারকারীরা ‘জি-কেটাামিন’ নামের একটি নিষিদ্ধ মাদক বাংলাদেশে প্রস্তুত করে বিদেশে পাঠায়। ইতোমধ্যে এ ঘটনার সাথে জড়িত তিন জনকে আটকও করা হয়েছে। আটকরা হলো - মীর মঞ্জুর মোর্শেদ সানী, মাহমুদুল হাসান চয়ন ও হাবিবুল্লাহ খান। তাদের জিজ্ঞাসাবাদে মাদক পাচার সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে।


যেভাবে মাদক পাচারে জড়িত হয় তারা


আটক সানী পেশায় একজন খামার ব্যবসায়ী। সে লন্ডনে থেকে মাস্টার্স সম্পন্ন করেছে। অন্যদিকে মাহমুদুল হাসান চয়ন এলএলবি অনার্স ও হাবিবুল্লাহ খান এমবিএ সম্পন্ন করে উভয়ে একটি ব্যাংকের মার্কেটিং শাখায় কর্মরত।


তারা নিজ নিজ ব্যবসা ও চাকুরির পাশাপাশি মাদক চোরাচালানের সঙ্গে জড়িত হয়ে পড়ে এবং প্রায় ৫ মাস আগে স্পেনে কেটোমিন পাচারের লক্ষে সংঘবদ্ধ হয়।



তাদের মধ্যে মঞ্জুর মোর্শেদ সানী’র ভাই মাহাদী মঞ্জুর প্রায় ১৫ বছর যাবত স্পেনে অবস্থান করছে। সে স্পেনে ইন্টারনেট কলিং ব্যবসার সাথে যুক্ত। ব্যবসায়িক সূত্রে আরামডো গঞ্জালিও নামের স্পেনেরএক নাগরিকের সাথে তার ঘনিষ্ঠতা হয়। পরবর্তীতে দুজন একত্রে বাংলাদেশ থেকে কিটোমিন স্পেনে পাচার করার পরিকল্পনা করে। এ লক্ষে মাহাদী মঞ্জুর গত জুলাই মাসে বাংলাদেশ আসে। এক পর্যায়ে মাহাদী মঞ্জুরকে সাথে নিয়ে আরামডো গঞ্জালিও বাংলাদেশে আসে। এ সময় সানী, চয়ন ও হাবিবুল্লাহকে ‘জি কোটামিন’ কিভাবে প্রস্তুত করা হয় সেটা হাতেকলমে শিখিয়ে দেয় তারা। পরে সানী রাজধানীর পল্লবী এলাকায় একটি বাসা ভাড়া নেয়। সেই বাড়িতে সানী সপরিবার বসবাস এবং ‘জি কোটামিন’ প্রস্তুত করত।


এ ব্যাপারে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান বলেন, ইতোমধ্যে ‘জি কেটামিন’ নামক মাদকের চারটি চালান স্পেনে পাঠানো হয়েছে। ইউরোপে হেরোইন অথবা কোকেনের চেয়ে এর চাহিদা অনেক বেশি।


মঙ্গলবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে মুফতি মাহমুদ খান আরো জানান, রাজধানীর পল্লবী থেকে আটক হওয়া মাদক পাচারকারীদের অপর সহযোগীদেরও আটক করে আইনের আওতায় আনা হবে। এমনকি বিদেশে যারা আছে, তাদের ব্যাপারেও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


বিবার্তা/খলিল/হুমায়ুন/মৌসুমী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com