চালের দাম কমানোর ঘোষণা ব্যবসায়ীদের
প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৭:৫০
চালের দাম কমানোর ঘোষণা ব্যবসায়ীদের
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

সরকারের কাছ থেকে বেশ কয়েকটি সমস্যার সমাধানের আশ্বাস পেয়ে চালের দাম কমানোর ঘোষণা দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।


মঙ্গলবার সচিবালয়ে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে চালকল মালিক, ব্যবসায়ী ও আমদানিকারকদের সঙ্গে বৈঠকে চাল ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন দাবি পূরণের আশ্বাস দেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। মন্ত্রীর আশ্বাসের পর চাল ব্যবসায়ীরা দাম কমানোর কথা জানান।


বৈঠকে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম এবং সাবেক খাদ্যমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক উপস্থিত ছিলেন।


বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আপনারা বিভিন্ন সমস্যার কথা বলেছেন। আমাদের খাদ্যের কোনো সঙ্কট নেই। প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে যেটুকু ঘাটতি হয়েছে তা বিভিন্নভাবে জিটুজি ও সরকারিভাবে টেন্ডারের মাধ্যমে আনব। আপনারা (চালকল মালিক ও ব্যবসায়ী) যেসব বাধার কথা বলেছেন সেগুলো দূর করার জন্য কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করব।


সভায় ব্যবসায়ীরা চাল সংরক্ষণ ও পরিবহনে পাটের বস্তার পরিবর্তে প্লাস্টিকের বস্তা ব্যবহারের অনুমতি চান। প্লাস্টিকের বস্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে দেয়ার দাবি জানান। চাঁপাইনবাবগঞ্জের রহনপুর দিয়ে ট্রেনে চাল পরিবহনের অনুমতি ও ব্যবসায়ীদের হয়রানি না করারও দাবি জানান।


বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, যে যে ব্যাগে আনতে পারেন সেভাবে আনবেন। টেন্ডারে (পাটের বস্তায় চাল আমদানির বিষয়টি) সংশোধন করা হবে।


তিনি আরও বলেন, ট্রেনে যাতে চাল আনা যায় সে পদক্ষেপ নেয়া হবে। বন্ধু হিসেবে, আপন হিসেবে, সরকারও আপনাদের আপনারাও আমাদের- বলেন বর্ষীয়ান এ রাজনীতিবিদ।


প্লাস্টিকের বস্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার কারণে চালের দাম প্রতি কেজিতে ২ টাকা কমবে বলে জানান মন্ত্রী।


এসব পদক্ষেপের কারণে চালের দাম কমে যাবে বলে উপস্থিত চালকল মালিক ও কয়েকজন ব্যবসায়ী আশ্বাস দেন।


বৈঠকে বাংলাদেশ অটো মেজর ও হাসকিং মিল মালিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুল রশীদ ও সাধারণ সম্পাদক কে এম লায়েক আলীসহ চালকল মালিক, চাল আমদানিকারক ও চাল ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।


বৈঠকের পর বাংলাদেশ অটো মেজর অ্যান্ড হাসকিং মিল ওনার্স অ্যাসোসিশেনের সভাপতি আব্দুর রশিদ সাংবাদিকদের বলেন, “ভালো একটি বৈঠক হয়েছে। দু’এক দিনের মধ্যেই চালের দাম কমতে শুরু করবে।”


প্রসঙ্গত, সরকারি-বেসরকারি পর্যায় মিলিয়ে গত আড়াই মাসে রেকর্ড পরিমাণ চাল আমদানি হলেও বাজারে চালের দাম বাড়ছে, যার পেছনে মিল মালিকদের কারসাজিকে দায়ী করে আসছে সরকার।


সরকারি হিসেবেই মোটা চালের দাম গত এক মাসে বেড়েছে ১৮ শতাংশ, এক বছরে বেড়েছে ৫০ শতাংশ। এখন বাজারে ৫০ টাকার নিচে কোনো মোটা চাল নেই।


বিবার্তা/রাহাত/নাজিম

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com