নাক বন্ধ থাকলে করণীয়
প্রকাশ : ১৩ আগস্ট ২০১৮, ১৬:০৩
নাক বন্ধ থাকলে করণীয়
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

নাক বন্ধ হওয়ার বিভিন্ন কারণ রয়েছে। কখনো কখনো কেবল সর্দির জন্য নাক বন্ধ হয় আবার কখনো কখনো সাইনোসাইটিসের কারণে এছাড়াও কখেনো বেশি গরমে নাক বন্ধ হয়ে যায়। নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া একটি অস্বস্তিকর সমস্যা।


নাক বন্ধ হওয়ার সাধারণ থেকে জটিল কারণগুলো


নাক বন্ধের বিষয়টির ক্ষেত্রে প্রথমেই একটি ধারণা দেওয়া দরকার। আমাদের নাকের যে দুটো ছিদ্র থাকে, দুটো ছিদ্র দিয়ে বাতাস যায়, স্বাভাবিক শারীরিক নিয়মে এটির একটি তারতম্য হতে পারে। এই বিষয়ে অনেকেই একটি ভুল ধারণা পোষণ করে যে আমার নাক বন্ধ থাকে। তবে বাস্তবিকই নাক দীর্ঘ সময়ে বন্ধ থাকার জন্য কিছু কারণ থাকতে পারে। যেমন নাকের ভেতর যেই মধ্যভাগ, যাকে আমরা বলি নেজাল সেপটাম, সেটা বাঁকা থাকতে পারে, এই বাঁকাটা যদি থাকে এবং বেশি মাত্রায় থাকে, তাহলে তার উপসর্গ সাধারণ চিকিৎসায় নাও যেতে পারে।


নাকের হাড় বাঁকা থাকা


নাকের হাড় প্রায় বেশির ভাগ লোকের বাঁকা থাকে। এদের প্রায় সবারই কোনো উপসর্গ থাকে না। যাদের উপসর্গ তৈরি হয়, তাদেরই এটা নিয়ে বিশেষ চিকিৎসার প্রয়োজন হয়। যদি উপসর্গ সাধারণ চিকিৎসায় না যায় তাহলে তাদের সার্জারির প্রয়োজন পড়ে। নাকের হাড় বাঁকা থাকলে ছোট একটি অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে নাকের হাড় সোজা করে দিলে তার উপসর্গগুলো নিরাময় হয়। তার এই সংক্রান্ত যে জটিলতা, সাইনোসাইটিস তৈরি হওয়া- এগুলো থেকে তারা মুক্ত হতে পারে।


এছাড়া নাকের মধ্যে দীর্ঘমেয়াদি সর্দি থাকার জন্য নাকের ভেতর পলিপ তৈরি হতে পারে। এই সমস্যা থেকে সাইনোসাইটিসের কারণেও নাক বন্ধটা দীর্ঘমেয়াদি হতে পারে।


নাক বন্ধ হয়ে যাওয়ার বেশ কিছু ঘরোয়া প্রতিকার আছে যেগুলোতে বেশ সহজেই নাক ছেড়ে যায়। আসুন জেনে নেয়া যাক নাক বন্ধ হয়ে যাওয়ার ঘরোয়া প্রতিকারগুলো।


তুলসী


নাক বন্ধের সমস্যায় তুলসী পাতা বেশ উপকারী। প্রতিদিন সকালের নাস্তার আগে এবং রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ৩/৪ টি করে তুলসী পাতা চিবিয়ে খান প্রতিদিন। এছাড়াও প্রতিদিন তুলসী পাতার চা খেতে পারেন। তাহলে নাক বন্ধ হয়ে থাকার সমস্যা কমে যাবে।


গরম স্যুপ


প্রতিদিন খাবার তালিকায় গরম স্যুপ রাখুন। তাহলে নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া কমবে কিছুটা। প্রতিদিনের সকালের কিংবা বিকেলের নাস্তায় রাখতে পারেন সবজির স্যুপ, পালং শাকের স্যুপ কিংবা মুরগীর স্যুপ।


হারবাল চা


পুদিনা চা, তুলসী চা কিংবা আদা চা নাক বন্ধের উপসমের জন্য খুবই উপকারী। নাক বন্ধ হলে এ ধরণের চা বানিয়ে দিনে বেশ কয়েকবার খান। তাহলে নাক ছেড়ে যাবে কিছুক্ষণের মধ্যেই। এছাড়াও রঙ চা ও সবুজ চা নাক বন্ধ কমাতে সহায়ক।


মধু


প্রতিদিন দুই চামচ করে মধু নাক বন্ধের সমস্যা দূর করতে সহায়তা করে। রোজ সকালে হালকা গরম পানি তে মধু মিশিয়েও খেতে পারেন। এছাড়াও হালকা গরম দুধে মধু মিশিয়ে খেলেও উপকার পাওয়া যায়।


সরিষার তেল


নাক বন্ধ হয়ে গেলে আঙুলের ডগায় সামান্য সরিষার তেল লাগিয়ে নিন। এরপর আগুল দিয়ে নাকের ফুটোয় তেল মেখে দিন। খুব বেশি ভিতর পর্যন্ত না দিয়ে সামনের দিকে দিলেই হবে। কিছুক্ষণের মধ্যেই নাক বন্ধ ভাব চলে যাবে। নাক বন্ধ থাকলে সরিষা ভর্তা খেলেও উপকার পাওয়া যায়।


আদা


নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া কমাতে আদার তুলনা নেই। নাক বন্ধ হয়ে গেলে কিছু আদা কুঁচি করে নিন। এবার হালকা গরম পানিতে আদা কুঁচি মিশিয়ে জ্বাল দিয়ে নিন। এবার দিনে কয়েকবার পানিটি খান। অথবা আদা চা করে খেলেও উপকার পাবেন।


লেবু


২ টেবিল চামচ লেবুর রসের সাথে ১/৪ চা চামচ গোল মরিচের গুড়া ও লবণ এক সঙ্গে মিশিয়ে নিন। এবার এটা প্রতিদিন দুই বেলা করে খেলে নাক বন্ধের সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে সহজেই।


বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com