এই দেশে মানুষজন পড়াশুনা করবে কেন?
প্রকাশ : ১৯ আগস্ট ২০১৭, ১৮:২৬
এই দেশে মানুষজন পড়াশুনা করবে কেন?
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

শুনলাম কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষককে নাকি বাধ্যতামুলক ছুটিতে পাঠানো হচ্ছে এবং তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে!


তো, তাঁর অপরাধটা কি?


তাঁর অপরাধ হচ্ছে- তিনি ১৫ আগস্ট শোক দিবসের কর্মসূচি শেষে পরীক্ষারত ছাত্রদের অনুরোধে তাদের পড়া বোঝানোর জন্য কিছুটা সময় দিয়েছেন।


আমি ঠিক বুঝতে পারছি না, এটা কি করে অপরাধ হয়?


শোক দিবসে এই শিক্ষক কি জোর করে ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাসে নিয়ে এসেছে?


না, নিয়ে আসেনি। ছাত্র-ছাত্রীরা স্বপ্রণোদিত হয়েই তাঁর কাছ থেকে পড়া বুঝতে চেয়েছিলো। অথচ তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কে জানে হয়তো একদিন শুনবো এই শিক্ষকের চাকরি খানাও গেছে!


বিশ্বাস করবেন কিনা জানি না, আমি যখন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তাম, আমাদের এক শিক্ষক কেবল একটা টপিক পড়িয়ে পুরো কোর্স শেষ করে দিয়েছেন। তিনি ক্লাসে এসে কেবল ওই একটা টপিকই পড়াতেন এবং ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে রাজনীতি নিয়ে আলোচনা করতেন!


এই হচ্ছে আমাদের দেশ! এখানকার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষকরা একটা কোর্সে, মাত্র তিনটা ক্লাস নিয়ে পরীক্ষা নিয়ে ফেলে! এতে কোনো সমস্যা হয় না, কেউ তাদের বিরুদ্ধে কথা বলে না। পুরো কোর্সে আদৌ কিছু পড়ানো হয়েছে কিনা, সেটা দেখারও কেউ নেই!


এই দেশে শিক্ষকরা নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস না নিয়ে, দিনভর প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাস নেয়, মধ্য রাতে টেলিভিশনে টক'শো করে বেড়ায়; তাদের বিরুদ্ধে কখনো কেউ কোনো ব্যবস্থা নেয় না।


অথচ একজন শিক্ষক, কেবল ছাত্র-ছাত্রীদের অনুরোধে কিছু একটা বুঝিয়ে দিলে, তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়, তাঁকে বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠানো হয়!


তো, এই দেশে মানুষজন পড়াশুনা করবে কেন?


একটা দেশের পুরো শিক্ষা ব্যবস্থা এভাবেই ধ্বংস করে দেয়া হচ্ছে!


আমিনুল ইসলামের ফেসবুক থেকে


বিবার্তা/মৌসুমী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com