জীবিত ভেবে মায়ের লাশের সঙ্গে ৩০ বছর বসবাস
প্রকাশ : ০২ মার্চ ২০১৮, ১৫:৪৯
জীবিত ভেবে মায়ের লাশের সঙ্গে ৩০ বছর বসবাস
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ঘরটি আবর্জনা পরিপূর্ণ। এরই মাঝখানে একটি জরাজীর্ণ খাট। খাটে শুইয়ে রাখা হয়েছে সাদা পোশাকে মোড়ানো একটি কঙ্কালকে। কঙ্কালের মাথার সামনে বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতীক সাজানো। কঙ্কালটির পায়ে আছে নীল রঙের জুতা আর সবুজ জুতা। বর্ণনা শুনে ভাবছেন কোন হরর সিনেমার শুটিংস্পটে চলে আসলেন? না এটা বাস্তব।


ঠিক এরকম একটি ঘটনাই ঘটেছে ইউক্রেনের মেকোলাইভ শহরে। জীবিত ভেবে নিজের মায়ের লাশকে নিজের সাথে রেখে একই বাসায় বসবাস করছিলেন ৭৭ বছর বয়স্ক এক ইউক্রেনিয়ান নারী।


৭৭ বছর বয়স্ক ওই নারী পেনশনের টাকায় জীবনযাপন করতেন। প্রতিবেশীদের সাথে আলাপকালে জানা যায়, বয়স্ক ওই নারী একাই থাকতেন। কারও সঙ্গে মিশতেন না। নিজের ঘরের সামনের দরজাও পুরোপুরি খুলতেন না কখনও। যা পেনশন পেতেন তা দিয়েই চলতেন।


প্রতিবেশীরা কখনও কখনও দয়া করে তার দরজার সামনে খাবার রেখে যেত। কয়েক বছর আগে ওই বৃদ্ধার পা দুটি প্যারালাইজড হয়ে যায়। এরপর থেকে হুইল চেয়ারেই চলাফেরা করতেন তিনি।


কিন্তু কয়েক দিন আগে সে শক্তিটুকুও হারান। দরজা খুলতে না দেখে প্রতিবেশীরা আশঙ্কা করেন খারাপ কিছু ঘটেছে কিনা। এরকম আশঙ্কা থেকে ইউক্রেনের মেকোলাইভ শহরের পুলিশের কাছ ফোন করেছিলেন প্রতিবেশীরা। পুলিশ গিয়ে ফ্ল্যাটের দরজা খোলার পর দেখতে পান মেঝেতে পড়ে আছেন ৭৭ বছর বয়সী একজন বৃদ্ধা।


আর পাশের ঘরে শায়িত অবস্থায় আছে একটি কঙ্কাল। এটির চারপাশে ধর্মীয় মূর্তি রাখা ছিল। পুরো বাড়ি ছিল আবর্জনায় ভর্তি। সঙ্গে অনেক খবরের কাগজও রাখা ছিল।


পুলিশ যখন ওই বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে তখন তিনি অনেক অসুস্থ ছিলেন। পরে তাকে দ্রুত হাসপাতালে পাঠানো হয়।


বৃদ্ধা পরে পুলিশকে জানান, কঙ্কালটি তার মায়ের। ৩০ বছর আগে যার মৃত্যু হয়েছে। মায়ের ৩০ বছর আগে মৃত্যু হলেও তিনি বিশ্বাস করেন এখনও বেঁচে আছেন তার মা। সূত্র: ডেইলিমেইল ইউকে


বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com