শিরোনাম
বছরটা রাঙিয়ে রাখতে আজ জয় ছাড়া কিছু ভাবছে না টাইগাররা
প্রকাশ : ২২ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৯:১০
বছরটা রাঙিয়ে রাখতে আজ জয় ছাড়া কিছু ভাবছে না টাইগাররা
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

পিছিয়ে পড়েও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-২০ দাপটের সাথে জিতে তিন ম্যাচের সিরিজে সমতা এনেছে বাংলাদেশ। তাই তৃতীয় ও শেষ টি-২০ ম্যাচটি এখন সিরিজ নির্ধারনী ম্যাচে রূপ নিয়েছে। পারফরমেন্সের ধারাবাহিকতা বজায়ে রেখে সিরিজ নির্ধারনী এ ম্যাচেও জয় ছাড়া অন্য কিছুই ভাবছে না টাইগাররা।


টেস্ট-ওয়ানডের পর টি-২০ সিরিজ জয়ই এখন প্রধান লক্ষ্য বাংলাদেশের। সিরিজ জয়ের লক্ষ্য রয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজেরও। সিরিজ জয়ের লক্ষ্য নিয়েই আজ শনিবার সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-২০তে মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিকেল ৫টায় শুরু হবে ম্যাচটি।


ব্যাট-বল-ফিল্ডিং তিন বিভাগে নিষ্প্রভ থাকলে সে ম্যাচ থেকে কিছুই পাওয়ার থাকে না। সিলেটের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ দলের কাছ থেকে সেটাই দেখা গেছে। সিলেটে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন বিভাগেই বাংলাদেশের পারফরমেন্স ছিলো অনুজ্জল, তাই ফলাফলও ছিলো ‘শূন্য’।


ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিধ্বংসী পারফরমেন্সের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি বাংলাদেশ। ৮ উইকেটে ম্যাচ হারে টাইগাররা। টেস্ট-ওয়ানডেতে জয় দিয়ে সিরিজ শুরু করতে পারলেও টি-২০তে সেটি আর করা সম্ভব হয়নি।


ব্যাপারটা বেশ ভালোই টের পেয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব। টের পেলেও দ্বিতীয় টি-২০ নিয়ে দলের সতীর্থদের সাথে কোনো কথাই বলেননি। কথা বলেননি, তা ঠিক নয়। কথা বলেছেন, তবে ম্যাচ নিয়ে নয়। হয়তো যার যার দায়িত্ব নিজ থেকেই সতীর্থরা বুঝে নিক এটাই চেয়েছিলেন সাকিব। আর নিজের কাজ কি, তা তো সাকিব নিজেই বোঝেন। প্রতি ম্যাচেই বাংলাদেশের জার্সি গায়ে সেই প্রমাণও দেন টাইগার নেতা।



হ্যাঁ, সতীর্থরা নিজেদের দায়িত্ব ঠিক-ঠিকই বুঝে নিয়েছেন। যা দ্বিতীয় টি-২০ ম্যাচে স্পষ্ট। টস হারলেও আগ্রাসী মনোভাবেই ব্যাট হাতে ক্রিজে ছিলেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন দাস। তাই মাত্র ২৫ বলে উদ্বোধনী জুটিতে ৪২ রান যোগ করেন তারা। শুরুর আগ্রাসনটা তিন নম্বরে নামা সৌম্য সরকারকে নিয়ে ধরে রেখেছেন লিটন। দ্বিতীয় উইকেটে ৪৩ বলে ৬৮ রান যোগ করেন লিটন-সৌম্য।


লিটন হাফ-সেঞ্চুরি তুলে ৩৪ বলে ৬০ ও সৌম্য ২২ বলে ৩২ রান করে ফিরেন। এই দু’জনসহ মুশফিকুর রহিমের দ্রুত বিদায়ে ১০ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে খেই হারিয়ে ফেরার উপক্রম হয় বাংলাদেশের। কিন্তু বাংলাদেশকে সেই পথে হাঁটতে দেননি সাকিব-মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ইনিংসের শেষ ৪২ বলে অবিচ্ছিন্ন ৯১ রান যোগ করেন তারা। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ২১১ রানের পাহাড় দাঁড় করায় টাইগাররা।


মিরপুরের এই ভেন্যুতে কোনো আন্তর্জাতিক দলের এটিই সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এটি বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দলীয় রান হয়। পাঁচটি চার ও এক ছক্কায় ২৬ বলে সাকিব ৪২ ও সাতটি চারে ও ২১ বলে মাহমুদুল্লাহ অপরাজিত ৪৩ রান করেন।


জবাবে সাকিবের ঘুর্ণিতে দিশেহারা ছিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তার ক্যারিয়ার সেরা টি-২০ বোলিং-এ ক্যারিবীয়দের লক্ষ্যের ধারেকাছে পৌঁছতে দেননি সাকিব। ৪ ওভারে ২০ রানে ৫ উইকেট নিয়ে সফরকারীদের ১৭৫ রানেই বেঁধে ফেলেন সাকিব। ফলে ৩৬ রানে ম্যাচ জিতে সাকিবের হাত ধরেই সিরিজে সমতা আনতে পারে বাংলাদেশ।


প্রথম টি-২০তেও পারফরমেন্সে একমাত্র উজ্জল ছিলেন সাকিব। তাই দেশের জার্সিতে নিজের দায়িত্বটা যথাযথ পালন করতে মুখিয়ে থাকেন সাকিব। দ্বিতীয় ম্যাচে তো জ্বর-ঠান্ডা, পেটের পীড়া নিয়ে মাঠে নামেন সাকিব।


এখন তৃতীয় ম্যাচ জিতে সিরিজ নিজেদের করে নেয়ার কাজটা পুরোপুরিভাবে সম্পন্ন করতে চান সাকিব। দ্বিতীয় টি-২০ শেষে শেষ ম্যাচ নিয়ে তার ভাবনা জানতে চাওয়া হলে সাকিব বলেন, টার্গেট থাকবে অবশ্যই জেতা।



জয় দিয়ে সিরিজ শুরুর পরও দ্বিতীয় ম্যাচে নিজেদের সেরাটা ধরে রাখতে পারেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের তকমাটা ক্যারিবীয়দের গায়ে লেগে আছে, তাই শেষ ম্যাচে বাংলাদেশকে মরণ কামড় দেয়ার জন্য অস্থির থাকবে হোপ-হেটমায়াররা। তবে কাজটি সহজ হবে না তাদের জন্য। কারণ মিরপুরের কন্ডিশনে বাংলাদেশ যে কতটা ভয়ংকর সেটি দ্বিতীয় টি-২০তে দেখিয়েছে সাকিব বাহিনী।


বাংলাদেশ দল : সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ (সহ-অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), রুবেল হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাজমুল ইসলাম অপু, মোহাম্মদ মিঠুন, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, আবু হায়দার রনি ও আরিফুল হক।


ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল : কার্লোস ব্র্যাথওয়েট (অধিনায়ক), ড্যারেন ব্রাভো, শিমরোন হেটমায়ার, ফ্যাবিয়ান এ্যালেন, কেসরিক উইলয়ামস, কিমো পল, খারি পিয়েওে, এভিন লুইস, নিকোলাস পুরান, রোভম্যান পাওয়েল, দিনেশ রামদিন, শাই হোপ, শেরফান রাদারফোর্ড, শেলডন কট্রেল ও ওশানে টমাস।


বিবার্তা/জাকিয়া

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com