খেলার মাঠ থেকে রাজনীতিতে: ইমরানের আগে যারা
প্রকাশ : ২৭ জুলাই ২০১৮, ১৭:৫৪
খেলার মাঠ থেকে রাজনীতিতে: ইমরানের আগে যারা
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসতে চলেছেন বিশ্বজয়ী প্রাক্তন ক্রিকেট-অধিনায়ক ইমরান খান। মাত্র দুই দশকের রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে তাঁর এই উত্তরণ বেশ চমকপ্রদ। কিন্তু ইমরান খানই প্রথম নন, তাঁর মতো একাধিক সফল রাজনীতিবিদ রয়েছেন, যাঁরা এককালে কেউ বক্সার, কেউ ফুটবলার, কেউ বা অন্য কোনো খেলার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।


জর্জ উইয়া


বর্তমানে তিনি পশ্চিম আফ্রিকার দেশ লাইবেরিয়ার প্রেসিডেন্ট। ছিলেন ফুটবলার। ২০০৩ সালে খেলা থেকে অবসর নেন। তার পর থেকেই সক্রিয় রাজনীতিতে পদার্পণ এবং সফলতার শিখর স্পর্শ করে এখন নিজ দেশের প্রেসিডেন্ট।


রাজ্যবর্ধন সিংহ রাঠৌর


ইনি ভারতের বর্তমানে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী। ছিলেন প্রফেশনাল শুটার। ২০০৪ সালে অলিম্পিক শুটিংয়ে রুপা জেতেন। কমনওয়েলথ ও এশিয়ান গেমস-এও পদক জিতেছেন। ২০১৩ সালে ক্রীড়াজগৎ থেকে অবসর নেন আর ২০১৪ সালে বিজেপির সাংসদ নির্বাচিত হন। সফলতার চূড়ায় উঠে এখন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।


আর্নল্ড শোয়ার্ৎজেনেগার


হলিউডের একাধিক হিট ছবির এ অভিনেতাকে কে না চেনেন! কিন্তু জানেন কি আর্নল্ড একজন ক্রীড়াবিদও? অভিনয় জগতে আসার আগে একজন বডিবিল্ডার ছিলেন আর্নল্ড। ২০০৩ সালে আর্নল্ড মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের গভর্নর নির্বাচিত হন। ২০০৭ সালে আবারও নির্বাচিত হন এবং ২০১১ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন।


রোমারিও


ক্রীড়াপ্রেমীদের জানা থাকারই কথা, ১৯৯৪ সালে ব্রাজিলের বিশ্বকাপ জেতার অন্যতম কারিগর ছিলেন রোমারিও। ব্রাজিল ফুটবলে পেলে ও রোনাল্ডোর পরই রোমারিও-র নাম নেওয়া হতো এতদিন। সেই দুর্দান্ত মানুষটি এখন ব্রাজিলের সেনেট সদস্য। শুধু কি তাই, রিও ডি জেনেইরোর গভর্নর নির্বাচনেও লড়তে চলেছেন ফুটবলমাঠের সাবেক এ লড়াকু সৈনিক।


নভজ্যোৎ সিংহ সিধু


রাজনীতি ও টেলিভিশনের দৌলতে নভজ্যোৎ সিংহ সিধুর ক্রিকেটিং কেরিয়ার এখন অনেকটাই ধামাচাপা পড়ে গিয়েছে। ভারতীয় জাতীয় দলের অন্যতম ওপেনার ছিলেন সিধু। ২০০৪ সালে বিজেপিতে যোগ দেন তিনি। ২০১৭ সালে দলবদল করে কংগ্রেসে যোগ দেন। বর্তমানে পাঞ্জাব রাজ্য মন্ত্রিসভার সদস্য।


অর্জুনা রণতুঙ্গা


শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রিকেট-অধিনায়ক রণতুঙ্গা খেলা থেকে অবসর নিয়েই রাজনীতিতে ঢুকে পড়েন। তা সেখানেও সফল তিনি। বর্তমানে তিনি শ্রীলঙ্কার পর্যটনমন্ত্রী।


সনত্ জয়সূর্য


তাঁর আসল ও পুরো নাম দেশবন্ধু সনত্ তেরান জয়সূর্য। ক্রিকেটবিশ্ব অবশ্য তাঁকে চেনে সনত্ জয়সূর্য নামেই। রাজনীতিতেও তিনি নিজের অধিনায়ককেই (অরজুনা) অনুসরণ করতে শুরু করেন। ২০১০ সালে শ্রীলঙ্কার মাতারা এলাকার সাংসদ নির্বাচিত হন। পরে অবশ্য ফের ক্রীড়া জগতে ফেরেন।


ম্যানি প্যাকিয়াও


দোর্দণ্ডপ্রতাপ বক্সার ছিলেন। রিংয়ে ধরাশায়ী করতেন প্রতিপক্ষকে। জন্মস্থান ফিলিপিন্সের প্রতি ভালবাসা থেকেই রাজনীতিতে আসা। ২০১০ সালে হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভের সদস্য হন। ২০১৩ সালে পুনর্নির্বাচিত হন।


জিম রায়ান


ট্র্যাকে চিতাবাঘের মতো দৌড়তেন তিনি। ৮৮০ মিটার হার্ডলসে বিশ্বরেকর্ড রয়েছে তাঁর। ১৯৬৮ সালে অলিম্পিকে ১৫০০ মিটার দৌড়ে রুপা জেতেন। খেলার মতো রাজনৈতিক জীবনের রেসেও তিনি হারতে শেখেননি। ১৯৯৬ সালে রিপাপলিকান প্রার্থী হিসাবে আমেরিকার হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভের সদস্য হন।


বিবার্তা/হুমায়ুন/কামরুল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com