কেবল উপকারই নয়, পেঁপের পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়াও অবশ্যই জানা জরুরি!
প্রকাশ : ১৯ মার্চ ২০২১, ১৭:৩৪
কেবল উপকারই নয়, পেঁপের পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়াও অবশ্যই জানা জরুরি!
অনামিকা রায়
প্রিন্ট অ-অ+

অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট আর নানা উপকারী উপাদানে ভরপুর পেঁপে খেলে একদিকে স্বাস্থ্য যেমন ভালো থাকে, তেমনি চুল আর ত্বকের জন্যও উপকারী। তবে, অতিরিক্ত পেঁপে খেলে আপনার ক্ষতি করতে পারে। যদিও এই ফলের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলি পুরোপুরি প্রমাণিত এখনও হয়নি। তবে, আপনি সেগুলি সম্পর্কে জানা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।


সবজি ও সালাদ হিসেবে কাঁচা পেঁপের বেশ কদর রয়েছে। সুমিষ্ট পাকা পেঁপে রং, সুবাস আর স্বাদে অতুলনীয়। পেঁপে খেলে ওজন কমে, ত্বক পরিষ্কার হয়। অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট আর নানা উপকারী উপাদানে ভরপুর পেঁপে খেলে একদিকে স্বাস্থ্য যেমন ভালো থাকে, তেমনি চুল আর ত্বকের জন্যও উপকারী। পেঁপেতে প্যাপিন এনজাইম থাকায় তা খাদ্যের বিপাক প্রক্রিয়ায় সাহায্য করে। তাই মাংস সিদ্ধ করার সময় একটু কাঁচা পেঁপে দেওয়া হয়। এতে তন্তু ও জলের পরিমাণ বেশি থাকায় কোষ্ঠকাঠিন্যও দূর করে। হৃদয় সুরক্ষায় এবং উচ্চরক্তচাপ এড়াতে পেঁপে খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন বিশেষজ্ঞরা।


এই ফলের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলি সেভাবে প্রমাণিত এখনও পর্যন্ত হয়নি। এই প্রতিবেদনে আমরা পেঁপের ৬টি পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে বলা হবে।


বাচ্চাদের জন্য নিরাপদ নয়


চিকিৎসকরা প্রায়শই বলে থাকেন যে, এক বছরের কম বয়সের শিশুদের পেঁপে দেওয়া উচিত নয়। আসলে, ছোট বাচ্চারা খুব কম জল পান করে। এমন পরিস্থিতিতে পর্যাপ্ত পরিমাণ জল খাওয়া ছাড়াই উচ্চ ফাইবারযুক্ত এই ফলটি খেলে মল শক্ত করে তোলে, যার কারণে শিশুরা কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় ভুগতে পারে। অতএব, কাঁচা বা রান্না করা কোনও অবস্থাতেই বাচ্চাদের এই ফলটি দেবেন না।


গর্ভবতী মহিলার পক্ষে ক্ষতিকারক


পেঁপে খুব পুষ্টিকর ফল তবে এটি গর্ভবতী মহিলাদের পক্ষে খুব ক্ষতিকর। চিকিৎসকরা গর্ভাবস্থায় মহিলাদের পেঁপে খাওয়া এড়াতে পরামর্শ দেন। আসলে, পেঁপের বীজ, শিকড় এবং পাতা ভ্রূণের ক্ষতি করে। কাঁচা পেঁপেতে ক্ষীরের ভারী উপস্থিতি উল্লেখযোগ্য জরায়ুর সংকোচনের কারণ হতে পারে। এছাড়াও, পেঁপে উপস্থিত পেপাইন দেহের ঝিল্লি ক্ষতিগ্রস্থ করে, যা ভ্রূণের বিকাশের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। পেঁপে আপনার দেহের তাপমাত্রা বাড়িয়ে তুলতে পারে, আপনি যখন গর্ভবতী হন তখন তা ভালো না। এগুলি ছাড়াও ফলটি ল্যাটেক্স সমৃদ্ধ যা জরায়ুর সংকোচন, রক্তপাত এবং এমনকি গর্ভপাত ঘটাতে পারে। এটি ভ্রূণের বিকাশকেও বাধাগ্রস্ত করতে পারে তাই আপনি আপনার গর্ভাবস্থার সময়কালে পাকা ছাড়াও কাঁচা পেঁপে খাওয়া এড়ান।


শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা সৃষ্টি করে


পেঁপেতে উপস্থিত একটি এনজাইমকে অ্যালার্জেন বলে। এর অতিরিক্ত গ্রহণের ফলে শ্বাসকষ্টজনিত অসুস্থতা যেমন হাঁপানির মতো সমস্যা হতে পারে। যাদের এই ধরণের সমস্যা রয়েছে তাঁদের অতিরিক্ত পরিমাণে পেঁপে খাওয়া এড়ানো উচিত। আপনার যদি কোনও রোগ হয় তবে চিকিৎসকের পরামর্শের পরে এই ফলটি খান। কী পরিমাণ ফল আপনার জন্য ভালো তা চিকিৎসক আপনাকে জানাবে।


হজমের সমস্যা বৃদ্ধি করে


কোষ্ঠকাঠিন্যে আক্রান্ত ব্যক্তিদের সাধারণত পেঁপে খেতে বলা হয়। তবে এতে উপস্থিত অতিরিক্ত ফাইবার সেবন করলে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা হতে পারে। আসলে, ফলের মধ্যে উপস্থিতি পেটের জ্বালা এবং ব্যথা হতে পারে। এতে উপস্থিত প্রচুর পরিমাণে ফাইবার হজম সিস্টেমে ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। গবেষনায় জানা গিয়েছে, পেঁপের অত্যধিক গ্রহণের ফলে পেটের ফোলাভাব, পেট ফাঁপা এবং বমিভাব হতে পারে। পেঁপের কালো বীজগুলি শরীরের জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। এগুলোতে টক্সিক এনজাইম কারপাইন থাকে, যা মস্তিষ্কে অসাড়তা তৈরি করে কার্ডিয়াক ডিপ্রেশন বা প্যারালাইসিস তৈরি করতে পারে।


ডায়াবিটিস রোগীদের জন্য বিপজ্জনক


পেঁপেতে থাকা নানা পুষ্টি উপাদান টাইপ ওয়ান এবং টাইপ টু ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করে। তবে, বেশি পরিমাণে পেঁপে খাওয়া রক্তে রক্তে শর্করার পরিমাণও হ্রাস করতে পারে, যা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য বিপজ্জনক। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের পেঁপে খাওয়ার আগে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।


বিবার্তা/এসএ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com