মাগুরায় এক সপ্তাহে তিন খুন, সাধারণ মানুষ আতঙ্কে
প্রকাশ : ০৭ জুলাই ২০১৯, ২৩:০০
মাগুরায় এক সপ্তাহে তিন খুন, সাধারণ মানুষ আতঙ্কে
মাগুরা প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

এক সপ্তাহে মাগুরায় তিনটি খুন এবং ঘুমন্ত এক কিশোরকে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় সাধারণ মানুষের মাঝে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। তবে পুলিশের কর্তা ব্যক্তিরা পরিস্থিতি একেবারেই অস্বাভাবিক নয় বলে জানিয়েছে।


মাগুরা সদর উপজেলার শিবরামপুর গ্রামের মর্ডান মোড়ে রবিবার দুপুরে লিসান ফকির (১৮) নামে এক কলেজ ছাত্রকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে এক দুর্বৃত্ত। এ সময় লিসানকে বাঁচাতে গিয়ে আহত হয়েছে দিপু (১৮) নামে তার বন্ধু । আহত দিপুকে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দিপুর অবস্থা আশংক্ষামুক্ত। নিহত লিসান সদর উপজেলার আঠারোখাদা মঠবাড়ি গ্রামের রফিকুল ইসলাম ফকিরের ছেলে। লিসান মাগুরা সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের মানবিক বিভাগের ১ম বর্ষের ছাত্র।


এদিকে গত মঙ্গলবার সকালে মহম্মদপুর উপজেলা বাবুখালীর পারুয়ারকুল গ্রামের সিতা পাগলের আশ্রম সংলগ্ন রাস্তা থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের মস্তক বিহীন লাশ উদ্ধার করা হয়।


প্রাথমিকভাবে নিহত যুবকের পরিচয় সনাক্ত না হওয়াই অজ্ঞাত হিসেবে দাফন করা হয়। পরবর্তীতে লাশের পাশে পড়ে থাকা সেন্ডেল দেখে সনাক্ত করা হয় অজ্ঞাত হিসেবে দাফন করা যুবকের নাম ইমন মোল্লা। তার বাড়ি মাগুরার সদর উপজেলার চাঁদপুর গ্রামে। তার বাবার নাম ইসলাম মোল্লা।


নিহত ইমন হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ইমনের বন্ধু অনিক ও হুমায়নকে আসামি করে হত্যা মামলা করে ইমনের বাবা ইসলাম মোল্লা। তবে মামলা হলেও ঘটনার ৬দিন পরও আটক হয়নি কেউই। এমন কি নিহত ইমনের শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করা মাথা এখন পর্যন্ত উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।


এদিকে ইমন হত্যাকাণ্ডের পরদিন (৩ জুলাই) বুধবার সকালে সদর উপজেলার কুকিলা গ্রাম থেকে আল আমিন (১৫) নামে এক কিশোরের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। স্থানীরা ওই গ্রামের পাট ক্ষেতে মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে খবর দেয় পুলিশকে। নিহত আল আমীনের বাড়ি মাগুরা সদর উপজেলার বেঙ্গাবেরইল গ্রামে। কিন্তু বাবা হাসান আলির মৃত্যুর কারণে সে সদর উপজেলার মহিষাডাঙ্গা গ্রামে নানার বাড়িতে থাকতো। সে ঘটনার দিন ভাড়ায় চালিত ইজিবাইক নিয়ে বাড়ি থেকে বের হওয়ার আর ফিরে যায়নি। কিন্তু নিহত আলি আমিনের মৃতদেহের পাশে তার ব্যবহৃত ইজি বাইকটি পাওয়া যায়নি। পুলিশ এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে।


এ বিষয়ে মাগুরা পুলিশ সুপার খান মোহাম্মদ রেজোয়ান গত এক সপ্তাহে মাগুরায় তিনটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটলেও তুলনামূলক বিচারে জেলায় অপরাধের সংখ্যা খুব বেশি নয় বলে জানিয়েছেন।


তিনি বলেন, অন্য যেকোনো বছরের তুলনায় এ বছর সংঘটিত অপরাধ এবং মামলার সংখ্যা কম। তারপরও জেলার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের সব কয়টি ইউনিট তৎপর রয়েছে।


বিবার্তা/শ্রাবণ/জাই


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com