বিশ্ব যুব দক্ষতা দিবস পালন করলো বিডিওএসএন
প্রকাশ : ১৬ জুলাই ২০২০, ১৮:৩৬
বিশ্ব যুব দক্ষতা দিবস পালন করলো  বিডিওএসএন
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

১৫ জুলাই বিশ্ব যুব দক্ষতা দিবস (ডাব্লিউওয়াইএসডি)। তরুণদের দক্ষতা বিকাশের মূলমন্ত্র নিয়ে সারা বিশ্বের সাথে বিভিন্ন আয়োজনের মধ্য দিয়ে দিনটি পালন করেছে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক (বিডিওএসএন)।


“মহামারী ও পরবর্তীকালে নিজেদের ফিরে পাওয়ার জন্য তারুণ্যের দক্ষতা” শীর্ষক প্রতিপাদ্যে আয়োজিত বিভিন্ন আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য ছিল দেশের তরুণদের বৈশ্বিক দক্ষতায় দক্ষ হয়ে ওঠার জন্য আহ্বান জানানো এবং ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় কারিগরিভাবে দক্ষ যুবকদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা তুলে ধরা।


কারিগরি ভাবে দক্ষ যুবশক্তি পারে এই বৈশ্বিক ক্রান্তিলগ্নে বাংলাদেশের অর্থনীতিকে টিকিয়ে রাখতে। এই মূলনীতি থেকে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক (বিডিওএসএন) এবং এনাবিলিং সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোলস অফ বাংলাদেশ ফর ২০৩০ (ইএসডিজি ফর বিডি) প্রকল্প যৌথভাবে বিশ্ব যুব দক্ষতা দিবস উপলক্ষে আয়োজন করেছে আন্তঃ পলিটেকনিক প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা, স্কিল টক, কারিগরি শিক্ষার্থীদের জন্য বুটক্যাম্প সহ বিভিন্ন অনলাইন কার্যক্রম।


গত ৭ জুলাই দুইজন সফল টিভিইটি গ্র্যাজুয়েটের গল্প দিয়ে শুরু হয় উদযাপনের মূল আয়োজন। নিজেদের সাফল্যের গল্প বলতে এই অনলাইন টকে উপস্থিত ছিলেন সিঙ্গাপুরের নিসা ইঞ্জিনিয়ারিং এর জেনারেল ম্যানেজার মোঃ শরিফুল আলম এবং পি এম কন্ট্রোল এর অ্যাসিস্ট্যান্ট সার্ভিস ইঞ্জিনিয়ার এএন রাহাদ।


এই দুই টিভেট গ্যাজুয়েট কিভাবে তাদের কারিগরি জ্ঞান নিয়ে জয় করেছে সিঙ্গাপুর কারিগরি জগত তারই গল্প উঠে আসে এই আলোচনায়।


এছাড়াও আইসটিতে আমরা কীভাবে মেযেদের সংখ্যা বাড়াতে পারি এবং কেনই বা আমাদের বাড়তি নজর দেওয়া দরকার এ সম্পর্কিত একটি স্কিল টকে অংশ নেন হবিগঞ্জ ইন্সটিটিউট থেকে পড়াশুনা করে ইয়ুথ হাবের কান্ট্রি ডিরেক্টর হিসেবে কর্মরত শারাবান তাহুরা তুরিন।


তিনি বর্তমানে দুইটি আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানকে বাংলাদেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করছেন। নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বিজ্ঞান, প্রযুক্তি এবং উদ্ভাবনী জগতে মেয়েদের তুলনামূলক কম উপস্থিতি নিয়ে কথা বলেন তিনি। এর থেকে উত্তরণে কারিগরি শিক্ষা কিভাবে মেয়েদের আত্মনির্ভশীল হতে সাহায্য করতে পারে সে সম্পর্কেও আলোচনা করেন তিনি।


বাংলাদেশে কারিগরি ও ভোকেশনাল শিক্ষা এবং কারিগরি শিক্ষার্থীদের কর্মসংস্থানের ওপর আরো বেশী জোর দিতে অন্য একটি অনলাইন আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের ডিরেক্টর অব প্ল্যানিং মো. জাহাঙ্গীর আলম এবং বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিসের সিনিয়র অফিসার (অপারেশনস) মোখলেসুর রহমান। কারিগরি শিক্ষার্থীদের কর্মসংসস্থানের সুযোগ সৃষ্টিতে সঠিক প্রশিক্ষণের প্রতি জোর দিয়ে ব্যবহারিক শিক্ষায় শিক্ষিত হবার জন্য তরুণদের আহ্বান জানান তারা।


স্কিল টকের পাশাপাশি টিভিইটি নারী শিক্ষার্থীদের নিয়ে ৩দিনের একটি বুটক্যাম্পের আয়োজন চলবে আগামী ১৭ জুলাই পর্যন্ত। এছাড়া গত ১৪ তারিখ সারা দেশের কারিগরী স্কুল ও কলেজ, কারিগরি কলেজ এবং পলিটেকনিক ইনস্টটিউটের শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজিত হয়েছে একটি আন্তঃ পলিটেকনিক প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা যেখানে অংশ নেয় প্রায় ২০০ জন শিক্ষার্থী।


আগে আসলে আগে পাবে-র ভিত্তিতে ২০০ জন শিক্ষার্থীকে ১১ জুলাই একটি মক টেস্ট এবং ১৪ জুলাই চূড়ান্ত প্রতিযোগিতার জন্য সুযোগ দেয়া হয়। বিজয়ী ১০ জনের তালিকা আজ প্রকাশ করে আয়োজক কমিটি।


জাতীয় প্রতিযোগিতায় সেরা তিনজন প্রতিযোগীকে মোট ১৫,০০০ টাকা পুরষ্কার দেয়া হবে। প্রথম বিজয়ী পাবেন ৭,০০০ টাকা, দ্বিতীয় বিজয়ী ৫,০০০ টাকা এবং তৃতীয় পুরস্কার বিজয়ী পাবেন ৩,০০০ টাকা।


বিবার্তা/গমেজ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com