অনলাইন বিক্রেতাদের জন্য
পেপারফ্লাইয়ের ‘স্মার্ট লজিস্টিক’ সেবা
প্রকাশ : ২১ জানুয়ারি ২০২০, ১৮:০৩
পেপারফ্লাইয়ের ‘স্মার্ট লজিস্টিক’ সেবা
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকভিত্তিক উদ্যোক্তাদের জন্য ‘স্মার্ট লজিস্টিক’ সেবার বিশেষ সংস্করণ নিয়ে এলো ই-কমার্স ব্যবসায় পণ্য বিলিকরণ প্রতিষ্ঠান পেপারফ্লাই।


এফ কমার্স নামে পরিচিত হয়ে ওঠা ফেসবুকভিত্তিক উদ্যোক্তাদের পণ্য সরবরাহ এবং পরিবেশনে সহায়তার মাধ্যমে ব্যবসা এগিয়ে নিতে ‘স্মার্ট লজিস্টিক’ সেবা নতুন মাত্রা যোগ করবে বলে জানিয়েছেন পেপারফ্লাই কর্মকর্তারা।


সোমবার রাজধানীর গুলশানে একটি রেস্তোরাঁয় আয়োজিত এই সংবাদ সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ই-ক্যাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াহেদ তমাল। গণমাধ্যমের প্রতিনিধিদের কাছে নতুন সেবা তুলে ধরেন পেপার ফ্লাইয়ের প্রধান বিপণন কর্মকর্তা রাহাত আহমেদ।


বাংলাদেশের ব্যাবসা ক্ষেত্রে প্রযুক্তিগত পরিবর্তনের সাথে সাথে পণ্য বিলিকরণে ‘স্মার্ট সেবা’ নিয়ে ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করছে পেপারফ্লাই।


কর্মকর্তারা জানান, প্রযুক্তির সম্প্রসারণের সাথে সাথে ব্যবসা সম্প্রসারণের অন্যতম উপকরন হয়ে উঠেছে ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। দেশজুড়ে প্রায় একলক্ষ উদ্যোক্তা ফেসবুকের মাধ্যমে ব্যবসা পরিচালনা করছে বলে তথ্য দেয়া হয়।


পেপারফ্লাই কর্মকর্তারা জানান, মঙ্গলবার থেকে শুরু হওয়া নতুন ‘স্মার্ট লজিস্টিক’ সেবায় আটটি অনন্য পরিসেবা যুক্ত থাকবে। এগুলো হলো, উদ্যোক্তাদের জন্য ৫ কার্যদিবসে আর্থিক লেনদেনের সুবিধা, একদিনে ঢাকার মধ্যে পণ্য বিলি, এক সপ্তাহের মধ্যে পণ্য ফেরত, বিনামূল্যে স্মার্ট রিটার্ন এবং স্মার্ট চেক সেবা, এবং বিনামূল্যে ওয়্যার হাউস ব্যবহারের সুযোগ। এই সকল সুবিধা পাওয়া যাবে ঢাকার ভেতরে মাত্র ৪০ টাকায়।


পেপারফ্লাইয়ের প্রধান বিপণন কর্মকর্তা রাহাত আহমেদ বলেন, প্রায় ১ লক্ষ উদ্যোক্তাদের নিয়ে দেশের প্রযুক্তি ভিত্তিক ব্যবসায়ী উদ্যোগে সম্ভাবনাময় ক্ষেত্রে হিসেবে ভিন্নমাত্রা যোগ করেছে ফেসবুক মাধ্যম।


রাহাত আহমেদ জানান, দ্রুত সময়ের মধ্যে যে কোন ঠিকানায় ই-কমার্সের পণ্য পৌঁছে দিতে দেশের ৮০ টি এলাকায় অফিস চালু করেছে পেপারফ্লাই। এবছরের মধ্যে সেবা পয়েন্টের সংখ্যা ২০০ করার পরিকল্পনা রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির।


ই-ক্যাবের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহেদ তমাল বলেন, বিলিকরণ সেবার আধুনিকরণ ছাড়া কোন দেশের ই-কমার্স সেক্টর সম্প্রসারণ হতে পারে না।


অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ইকমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো প্রতিদিন ৫৫ হাজার পণ্য বেচাকেনা করে বছরে ২ বিলিয়ন টাকার লেনদেন সম্পন্ন হয় যা দেশের মোট রিটেইল বাণিজ্যের ১ শতাংশ।


বিবার্তা/উজ্জ্বল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com