শেখ হাসিনা এক ‘ফিনিক্স পাখি’
প্রকাশ : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:৪১
শেখ হাসিনা এক ‘ফিনিক্স পাখি’
কোহেলী কুদ্দুস মুক্তি
প্রিন্ট অ-অ+

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন মঙ্গলবার। ১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ঘর আলো করে আসে এক শিশু কন্যা। কে জানতো, সেই ছোট্ট শিশুর হাত ধরেই বাংলাদেশ উন্নতির শিখরে পৌঁছাবে।


নিজের রাজনৈতিক প্রজ্ঞা ও ব্যক্তিত্ব দিয়ে নিজেকে তিনি এমন পর্যায়ে নিয়ে গেছেন, যেখানে নিজ দেশে তার দল আওয়ামী লীগ কিংবা অন্য কোনো দলের মধ্যেও তার সমকক্ষ কোনো রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব কল্পনা করা যায় না। তার বিরোধীরাও একথা স্বীকার করেন।


রাজনৈতিক পরিবারে জন্ম নিয়ে শিক্ষা জীবনেই সক্রিয় রাজনীতিতে জড়ালেও বাংলাদেশের রাজনীতিতে তিনি কোনো স্বাভাবিক উপায়ে আসেননি। ১৫ আগস্টের নির্মম বাস্তবতাকে মেনে নিয়ে প্রবাসে নির্বাসিত অবস্থায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দায়িত্ব তুলে নিতে হয়েছিলো কাঁধে। সে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অনেক ষড়যন্ত্রকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন তিনি। এখন পর্যন্ত ১৯ বার তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। তাকে হত্যা করতে পারলে যে চেতনায় এদেশের স্বাধীনতা এসেছিলো, ১৫ আগস্টের মতো আরেকবার সেটাকে ভূলণ্ঠিত করা যাবে। দেশের শাসনভার আবার চলে যাবে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তির হাতে।


তিনি এখন ৪র্থ মেয়াদে ও টানা ৩য় বার দেশের সেবা করছেন। তার নামের পাশে যুক্ত হয়েছে ‘মাদার অব হিউম্যানিটি’ উপাধি। এছাড়া তিনি বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় রোহিঙ্গা ইস্যুতে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। দূরদর্শী ও বিচক্ষণ নেতৃত্ব প্রদানের জন্য ‘ইন্টারন্যাশনাল এচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড স্পেশাল রিকগনিশন ফর আউটস্ট্যান্ডিং লিডারশিপ’ সম্মাননা লাভ এবং ‘চ্যাম্পিয়ন অব স্কিল ডেভেলপমেন্ট ফর ইউথ অ্যাওয়ার্ড’ সম্মাননা পেয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


যুক্তরাষ্ট্র থেকে প্রকাশিত সবচেয়ে প্রচলিত ম্যাগাজিন ফোর্বসের মতে ২০২০ সালে তিনি বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর নারীদের মধ্যে ৩৯তম। শুধু তাই নয়, এখন পর্যন্ত তিনি ৩০টি গ্রন্থ রচনা ও সম্পাদনা করেছেন। এছাড়া তিনি ইউএন উইমেন থেকে ‘প্ল্যানেট ৫০-৫০ চ্যাম্পিয়ন’ পুরস্কার ও গ্লোবাল পার্টনারশিপ ফোরাম থেকে এজেন্ট অব চেঞ্জ পুরস্কার লাভ করেন। দারিদ্র্য দূরীকরণ, বিশ্বের সুরক্ষা এবং সবার জন্য শান্তি ও সমৃদ্ধি নিশ্চিত করতে পদক্ষেপ গ্রহণের সর্বজনীন আহ্বানে সাড়া দিয়ে বাংলাদেশকে সঠিক পথে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘এসডিজি অগ্রগতি পুরস্কার’ লাভ করেছেন।


বাংলাদেশের রাজনীতিতে তিনি অনন্য। জরিপে দেখা যায়, আওয়ামী লীগের প্রতি দেশের মানুষের সমর্থন ৬৪ শতাংশ, সেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি সমর্থন ৬৬ শতাংশ (আইআরআই জরিপ)। জনপ্রিয়তায় তিনি তার দলকেও পেছনে ফেলেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তার কারণেই জনপ্রিয় তার দল। দলের চেয়েও দলের নেতা বেশি জনপ্রিয় এমন উদাহরণ পৃথিবীতে আর নেই। এখানেই শেখ হাসিনা অতুলনীয়। তিনি নিজেকে এমন উচ্চতায় নিয়ে গেছেন যে, তাকে বিশ্বনেতৃত্বের সাথে তুলনা করা হয়। এসবই সম্ভব হয়েছে তার দৃঢ় রাজনৈতিক প্রজ্ঞা ও ব্যক্তিত্বের কারণে। গবেষকরা মনে করেন, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে তার জিরো টলারেন্স, অর্থনীতিতে বাংলাদেশের অগ্রগতি, রাজাকারদের শাস্তি নিশ্চিতকরণ, বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের বিচার করা এবং উপমহাদেশের রাজনীতিতে যে পররাষ্ট্রনীতি নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন এসব কিছুই তার জনপ্রিয়তাকে করেছে আকাশচুম্বী। যেখানে আওয়ামীলীগেরই অনেক নেতা তাদের বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের কারণে অস্তিত্ব সংকটে ভুগছে এবং দলকে সমালোচিত করছে সেখানে এক শেখ হাসিনার কাঁধেই ভরসা রাখছে এদেশের মানুষ।


শেখ হাসিনাকে বাংলাদেশের মাহাথির মুহম্মদ বললেও ভুল হবে না। দরিদ্র মালয়েশিয়াকে উন্নতির বন্দরে নিয়ে গিয়েছেন মাহাথির মুহম্মদ। ঠিক তেমনি জঙ্গিবাদের কালো থাবায় এক ব্যর্থ রাষ্ট্রকে আজ সমৃদ্ধির দিকে নিয়ে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা। পশ্চিমা বিশ্বের চোখ রাঙানিকে উপেক্ষা করে, তাদের অসহযোগিতাকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে বাংলাদেশ আজ যে ঈর্ষণীয় উন্নতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, তার সবই সম্ভব হয়েছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বগুণে। তিনি এক হাতে দেশ সামলাচ্ছেন, অন্য হাতে দল। ’৭৫ পরবর্তী আওয়ামী লীগের সবচেয়ে সফল সভাপতি তিনি এবং সবচেয়ে সফল রাষ্ট্রনায়কও তিনি। তার যেন কোনো বিরাম নেই।


নেত্রীর জন্মদিনে কামনা করি তিনি বেঁচে থাকুন বহু বছর। তার হাত ধরেই আসবে জঙ্গিবাদমুক্ত, সাম্প্রদায়িকতামুক্ত, অর্থনীতিতে সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ। বেঁচে থাকুন দেশের জন্য, দেশের গরিব-দুঃখী মানুষের জন্য। বেঁচে থাকুন আমাদের আপা হয়ে, বেঁচে থাকুন আমাদের হাসিনা বু হয়ে।


জয় বাংলা
জয় বঙ্গবন্ধু
জয় শেখ হাসিনা


লেখক: সহ-সভাপতি, বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগ


বিবার্তা/আরকে

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com