জাককানইবিতে হাসিমুখে শোকর‍্যালি!
প্রকাশ : ১৫ আগস্ট ২০১৮, ১৯:১৮
জাককানইবিতে হাসিমুখে শোকর‍্যালি!
জাককানইবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাককানইবি) জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। বুধবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে জাতীয় পতাকা ও শোক দিবসের স্মারক পতাকা অর্ধনমিত করে উত্তোলন করা হয়। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমান।


এরপর র‍্যালি বের করা হয়। কিন্তু এই র‍্যালিতে শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের হাস্যোজ্জল দেখা যায়। হাসিমুখের শোকর‍্যালি ক্যাম্পাসে বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি করেছে। এমন ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও।


বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ছাত্রলীগ নেতা বলেন, ''শিক্ষক কর্মকর্তাসহ প্রধান প্রধান কর্তাব্যক্তিদের এরকম হাসি দৃষ্টিকটু দেখায় বলে আমি এক শিক্ষককে বিষয়টি অবহিত করি। বিষয়টি সল্প আওয়াজে আশেপাশে অবস্থানরত শিক্ষক কর্মকর্তাদের জানাবার পরেও সেটির ব্যাপারে তাদের কোনো ভ্রুক্ষেপ ছিলো না।''


সাংবাদিক সমিতির সভাপতি মেহেদী জামান লিজন বলেন, ‘গোটা বাঙ্গালি কাঁদে, এরা হাসিমুখে মিছিল করে! এটা শোক দিবস নাকি জন্মদিনের উৎসব?


তিনি আরও বলেন, ‘শিক্ষকরাই যখন জাতির জনকের শোক র‍্যালিতে হাসিঠাট্টায় মেতে থাকেন, তখন জাতির জনকের প্রতি শিক্ষকদের কতটুকু শ্রদ্ধা আছে, তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দেয়।’



অন্যদিকে, শিক্ষদের জুতা পায়ে পতাকা মঞ্চে উঠে পতাকা উত্তোলন করাটাও বিতর্কের জন্ম দিয়েছে। ছবিতে দেখা যায়, অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতত্ব বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ড. গাজী সালেহ উদ্দিন, বিশ্ববিদ্যালয় ট্রেজারার প্রফেসর ড. জালাল উদ্দীনের পায়ে জুতো পরা।



এ ব্যাপারে জাককানইবি শাখা ছাত্রলীগের আরেক নেতা বলেন, "এগুলো মূল্যবোধ, চিন্তাধারা ও নৈতিকতার বিষয়। সকলেরই এই বিষয়গুলোতে সচেতন হওয়াটা জরুরি। এগুলো লজ্জার বিষয়।"


বিবার্তা/পাভেল/কামরুল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com