‘বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিল জাতিকে থামিয়ে দেয়ার জন্য’
প্রকাশ : ১৪ আগস্ট ২০১৮, ২১:৫৬
‘বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিল জাতিকে থামিয়ে দেয়ার জন্য’
জবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিলো বাঙালি জাতিকে থামিয়ে দেয়ার জন্য। আর এই হত্যাকাণ্ডের পর কথিত রাষ্ট্রপ্রতি জিয়া জনগণের সব স্বপ্ন ধূলিসাৎ করে স্বৈরাচারী শাসন প্রতিষ্ঠা করেন। ফলে দেশের উন্নয়ন ব্যাহত হতে থাকে।


মঙ্গলবার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়ামে জবি ছাত্রলীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু এসব কথা বলেন।


তিনি আরো বলেন, ছাত্রলীগকে হতে হবে আদর্শ। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশকে এগিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে ছাত্রলীগকে অগ্রণী ভুমিকা পালন করতে হবে। আজ যখন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে তখন এক শ্রেণীর ষড়যন্ত্রকারী ঐক্যবদ্ধভাবে নেমেছে দেশের উন্নয়নকে ব্যাহত করতে। আর এই ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে ছাত্রলীগের প্রত্যেকটি কর্মীকে সজাগ থাকতে হবে।


আলোচনার সভায় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকরা বঙবন্ধুকে হত্যা করে বাঙালির হৃদয় থেকে কখনো মুছতে পারেনি। বঙ্গবন্ধু আজ সকল বাঙালির হৃদয়ে বিরাজমান। ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে এদেশের উন্নয়ন থামিয়ে দিয়েছিলো। কিন্তু তার সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে সোনার বাংলা গড়তে সারা ছাত্রসমাজ একত্রিত হয়ে কাজ করবো।



বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, শেখ হাসিনার কর্মীরা কখনো অন্যায় করতে পারে না। ছাত্রলীগের কেউ কোনো অন্যায় করলে সেই অন্যায়কে কখনো প্রশয় দেয়া হবে না। যুগে যুগে ছাত্রলীগ সাধারণ মানুষের পাশে থেকেছে। অতীতে ছাত্রলীগের হাত ধরেই এদেশের সব আন্দোলনের সূচনা হয়েছে। ছাত্রলীগ স্বাধীনতা আন্দোলন ও ভাষা আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। দেশের প্রথম জাতীয় প্রতাকা উত্তোলন করেছে ছাত্রলীগ প্রথম জাতীয় সংগীত গেয়েছে ছাত্রলীগ। মাঝখানে এইসব সোনালী অতীত ভূলে ছাত্রলীগ পথভ্রষ্ট হয়েছিলো। এই ভুলগুলো শুধরে আমরা আবার ছাত্রলীগের সোনালী অতীত ফিরিয়ে আনবো। প্রত্যাশার থেকে বেশি পাবেন এই ছাত্রলীগ থেকে।


জবি ছাত্রলীগ সভাপতি তরিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শেখ জয়নুল আবেদীন রাসেলের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাবু ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান।


বিবার্তা/আদনান/কাফী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com