ডাকাতের হাতে জিম্মি মোরেলগঞ্জের ২০ হাজার মানুষ
প্রকাশ : ১০ এপ্রিল ২০২১, ২০:৩৩
ডাকাতের হাতে জিম্মি মোরেলগঞ্জের ২০ হাজার মানুষ
মোরেলগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে কবির বয়াতী নামের এক ডাকাতের হাতে জিম্মি হয়ে পড়েছে উপজেলার ৩ ইউনিয়নের প্রায় ২০ হাজারের বেশী অধিবাসী।


ডাকাতি, ধর্ষণ, কর্তব্যরত পুলিশের ওপর হামলাসহ ১৫ মামলার আসামি কবির বাহিনীর প্রধান কবির বয়াতী অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে একর পর এক জায়গা দখল, অন্যের মৎস্য ঘের দখল ও চাঁদাবাজির মতো হাজারো অপরাধ করে যাচ্ছেন বেশ দাপটের সঙ্গেই।


তার হাত থেকে রেহাই পাচ্ছে না সরকারি রাস্তাঘাট, স্থানীয়দের বাড়ি-ঘর। কেউ প্রতিবাদ করলেই দেয়া হয় ‘হত্যার হুমকি’। এতে আতঙ্কে রয়েছে উপজেলার বারইখালী, নিশাণবড়ীয়া ও জিউধরা ইউনিয়নের বাসিন্দারা।


শনিবার (১০ এপ্রিল) দুপুরে বারইখালী ইউনিয়নের ভাষান্ডা গ্রামে কবির বাহিনী কর্তৃক সম্প্রতি কেটেফেলা সরকারি রাস্তায় দাঁড়িয়ে কবিরের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী।


বিক্ষোভকারীরা জানান, ওই গ্রামের পাশ দিয়ে প্রবাহিত খালের দু’পাড়ে ৩ ইউনিয়নের অর্ধশতাধিক পরিবার বসবাস করে। এ রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন তিন ইউনিয়নের নারী-পুরুষ, স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসাগামী শিক্ষার্থী, চাকরিজীবিসহ হাজার হাজার লোক যাতায়াত করেন। শত শত যাত্রীবাহী মোটরসাইকেল, ভ্যান এ পথে যাতায়াত করে। কমিউনিটি ক্লিনিক, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মসজিদ, তেতুলবাড়িয়া বাজার, আলীর বাজারসহ মোরেলগঞ্জ শহরে আসতে সহজ পথ হিসেবে এ রাস্তাটি দীর্ঘ কয়েক যুগ ধরে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।


কিন্তু এ গ্রামের আব্দুল ছত্তার বয়াতির ছেলে কবির বয়াতি ও তার বোন মর্জিনা বেগমসহ চিহিৃত এ পরিবারটি অবৈধ ক্ষমতার প্রভাব দেখিয়ে এ সরকারি রাস্তাটি কেটে চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে। তাদের ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পায়না। কেউ প্রতিবাদ করতে গেলে তাদের রামদা নিয়ে খুন করতে ছুটে আসে। নয়ত তাদের হয়রানি কিংবা মিথ্যা মামলার স্বীকার হতে হয়।


তারা জানান, কবির বয়াতী ও তার বোন মর্জিনা সরকারি রাস্তা কেটে চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। ৩ ইউনিয়নের মানুষ কবির ডাকাতের হাতে জিম্মি হয়ে পড়েছে।


বারইখালী ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান লাল বলেন, সরকারি রাস্তা কেটে চলাচলে বিঘ্ন ঘটানোর অধিকার কারো নেই। রাস্তা ভরাট করার জন্য তাদের বলা হয়েছে।


উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন বলেছেন, রাস্তা কেটে জনভোগান্তির অভিযোগের বিষয়ে কবির বয়াতিকে একাধিকবার তার দফতরে ডাকা হয়েছে তিনি আসেনি। ইতোমধ্যে তার বিরুদ্ধে মামলা দেয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।


বিবার্তা/রাজু/জাই


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com