সাংবাদিক রোজিনাকে হেনস্থার বিচার ও মুক্তির দাবি বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতির’
প্রকাশ : ১৮ মে ২০২১, ১২:৪৯
সাংবাদিক রোজিনাকে হেনস্থার বিচার ও মুক্তির দাবি বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতির’
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

দৈনিক প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের নির্বাহী সদস্য, আন্তর্জাতিক পুরস্কার প্রাপ্ত রোজিনা ইসলাম সোমবার দুপুরে পেশাগত কারণে সচিবালয়ে যান। সেখানে স্বাস্থ্য সচিবের অফিসের কিছু কর্মকর্তা তাকে আটকে রেখে হেনস্তা করেন, এতে তিনি অসুস্থ হয়ে গেলেও তাকে হাসপাতালে না নিয়ে শাহবাগ থানায় নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতি।


মঙ্গলবার (১৮ মে) বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতির চেয়ারম্যান মোঃ মঞ্জুর হোসেন ঈসা, মহাসচিব এডভোকেট সাইফুল ইসলাম সেকুল এবং সাংগঠনিক সম্পাদক লায়ন আল আমিন এক যৌথ বিবৃতিতে এ ক্ষোভ প্রকাশ করেন।


অবিলম্বে সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবি করে অবরুদ্ধ, হেনস্থা ও শ্লীলতাহানী ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান নেতৃবৃন্দ।


কি কারণে তাকে আটকে রাখা হয়েছে সে ব্যাপারে জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিনের ভেরিফাইড ফেসবুক আইডিতে রাত ৮টার দিকে দেয়া একটি স্ট্যাটাস হুবহু তুলে ধরা হলো, ”প্রথম আলোর রিপোর্টার রোজিনা ইসলামকে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগে আটকে রেখে হেনস্থা করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে আমি স্বাস্থ্যমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও তথ্যমন্ত্রীর এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিবের সংগে কথা বলেছি। তারা বিষয়টি সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন। যতটুকু জেনেছি রোজিনা অসুস্থ হয়ে পড়েছে কিন্তু এখনও আটকে রাখা হয়েছে, হাসপাতালে নিতে দিচ্ছে না। আমি তাকে দ্রুত হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করার দাবি জানাচ্ছি। নতুবা উদ্ভুত পরিস্থিতির জন্য দায় দায়িত্ব সংশ্লিষ্টদের নিতে হবে”।


নেতৃবৃন্দ বলেন “জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম বেশ কিছুদিন ধরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনিয়ম, দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা নিয়ে বেশ কিছু আলোচিত রিপোর্ট করেছেন, নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে রিপোর্ট করেছেন। এই সমস্ত রিপোর্টের কারণে, আমাদের ব্যক্তিগত ধারণা, তিনি আক্রোশের শিকার হয়েছেন, অন্যরা আক্রোশের বশবর্তী হয়ে এ কাজটি করেছে। নিরপেক্ষ বিচার বিভাগীয় তদন্ত করলে, সঠিক তথ্য বের হয়ে আসবে বলে নেতৃবৃন্দ অভিমত প্রকাশ করেন।"


নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, অনুসন্ধানী সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম ইতিপূর্বে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে বিশেষ অবদান যারা রেখেছেন তাদেরকে সরকারের দেয়া সোনার ক্রেস্ট তৈরী করতে গিয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের বড় ধরনের দূর্ণীতি- অনিয়ম ফাঁস করে বিপুল আলোচনার সূত্রপাত ঘটান। ঐ প্রতিবেদনটিতে রোজিনা আন্তর্জাতিকভাবেও পুরুস্কৃত হয়েছিলেন। এছাড়াও গুম, খুনের স্বীকার পরিবারদের নিয়েও তিনি বেশ কিছু আলোচিত রিপোর্ট করেছিলেন। বাংলাদেশের একজন আলোকিত নারী সাংবাদিক যদি এভাবে হেনস্তার স্বীকার হয়, তাহলে সত্য প্রকাশে নির্ভীক সাংবাদিকরা পিছু হাঁটতে বাধ্য হবে। এই ব্যাপারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি হস্তক্ষেপ কামনা করেন নেতৃবৃন্দ।


বিবার্তা/মারুফ/এনকে

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com