নাজিরপুরে ইঁদুর মারার ‘বৈদ্যুতিক ফাঁদে’ জড়িয়ে গৃহবধুর মৃত্যু
প্রকাশ : ২৭ জুলাই ২০২১, ২০:২৫
নাজিরপুরে ইঁদুর মারার ‘বৈদ্যুতিক ফাঁদে’ জড়িয়ে গৃহবধুর মৃত্যু
নাজিরপুর (পিরোজপুর) প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলায় ইঁদুরের হাত থেকে মাছের ঘেরের নেট রক্ষার জন্য অবৈধভাবে তৈরি বৈদ্যুতিক ফাঁদে পড়ে সোমবার (২৬ জুলাই) এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে।


জানা যায়, মৃত্যু মিনারা বেগম (৫০) ৩নং দেউলবাড়ী দোবরা ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের দেউলবাড়ী গ্রামের মোঃ নুরুল ইসলামের স্ত্রী।


স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, ২ নং দেউলবাড়ী গ্রামের কৃষক মোঃ নুরুল ইসলাম ইঁদুরের হাত থেকে তাহার মাছের ঘেরের নেট রক্ষার জন্য ঘেরের চার দিকে জিআই তার (গুনা) দিয়ে ঘিরে অবৈধভাবে বৈদ্যুতিক ফাঁদ তৈরি করে ইঁদুর নিধন করতেন। প্রতিদিন রাতে বৈদ্যুতিক ফাঁদে লাইন দিয়ে রাখতেন এবং সকালে খুলে ফেলতেন। কিন্তু সোমবার সকালে বৈদ্যুতিক ফাঁদের সংযোগটি বন্ধ না করেই কৃষক নূরুল ইসলাম তার সবজির চারা বিক্রি করতে বাজারে চলে যান। এবং প্রতিদিনের ন্যায় দুপুরের দিকে গৃহবধূ ঘেরে সবজি বীজতলা তৈরি করতে গিয়ে ঐ অবৈধ বিদ্যুৎ ফাঁদে নিজেই বিদ্যুৎপৃষ্ঠ হয়ে মারা যান বলে তারা ধারণা করেন।


মৃত গৃহবধূর শাশুড়ি হালিমা বেগম (৮০) জানান, বিকাল গড়িয়ে আসলেও পুত্রবধূ ঘরে না ফেরায় আমরা তাকে খুঁজতে থাকি। একপর্যায় সন্ধ্যার দিকে তার খোঁজে মাছের ঘেরে গেলে নৌকার উপরে মৃত অবস্থায় দেখে ডাক চিৎকার দিলে আমার ছোট ছেলে নূরুল হক (মৃতের দেবর) সহ স্থানীয় লোকজন এসে উদ্ধার করে।


এ ব্যাপারে মৃত গৃহবধূর স্বামী মোঃ নূরুল ইসলামের নিকট জানতে চাইলে তিনি ঘটনাস্থলে উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, আমার মাছের ঘেড়ের জাল ইঁদুরে কেটে ফেলে, যার কারনে ইঁদুর মারার জন্য আমার ছেলে কারেন্টের ফাঁদ তৈরি করে ইঁদুর মারে। যা প্রতিদিন এশার নামাজের পর সংযোগ দেই এবং সকালে খুলে ফেলি।


এ বিষয়ে নাজিরপুর থানার ওসি শেখ আশরাফুজ্জামান জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে নৌকায় করে বীজতলার ফেনা তুলতে গেলে মাথা ঘুরে নৌকায় পরে মাথায় আঁঘাত পায় এবং অতিরিক্ত রক্তক্ষরনের কারনে মারা যায়। মৃত্যুর কারণ উদঘটনের জন্য লাশ ময়না তদন্তে পাঠানো হয়েছে, ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। এবিষয়ে নাজিরপুর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।


এ বিষয়ে নাজিরপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির সহকারি জেনারেল ম্যানেজার ফুয়াদ আল-আরেফিন মুঠোফেনো জানান, আমি আপনার কাছে প্রথমে এ ঘটনা শুনলাম। তদন্ত করে বিষয়টি বলতে পারব। উন্মুক্ত স্থানে বিদ্যুৎ ফাঁদ তৈরির বৈধতার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি কোন মন্তব্য করেন নাই।


বিবার্তা/মশিউর/ইমরান

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com