সাতক্ষীরায় শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলা
সাবেক এমপি হাবিবসহ ৩৪ আসামি কারাগারে
প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:৫৫
সাবেক এমপি হাবিবসহ ৩৪ আসামি কারাগারে
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় তৎকালিন বিরোধী দলীয় নেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রি শেখ হাসিনার গাড়ি বহরে হামলা মামলায় আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি আদেশের জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে।


বুধবার বিকেল সাড়ে চারটায় আসামিপক্ষ ও রাষ্ট্রপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে সাতক্ষীরার মুখ্য বিচারিক হাকিম মোঃ হুমায়ুন কবীর এ দিন ধার্য করেন।


এদিকে কাঠগোড়ায় থাকা মামলার ৩৪ জন আসামির জামিন আবেদন বাতিল করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে।


রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে অংশ নেন বাংলাদেশের অতিরিক্ত এটর্নি জেনারেল এসএম মুনীর, সহকারি এটর্নি জেনারেল শাহীন মৃধা, সাতক্ষীরা জজ কোর্টের পিপি অ্যাডভোকেট আব্দুল লতিফ, অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট ফাহিমুল হক কিসলু, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ফয়জুর রহমান চৌধুরী ফরিদ, ঢাকা জজ কোর্টের অ্যাডভোকেট আব্দুল গফফার ও সাবেক পিপি অ্যাডভোকেট ওসমান গণি।


আসামিপক্ষে শুনানিতে অংশ নেন হাইকোর্টের অ্যাডভোকেট শাহানারা আক্তার বকুল, অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ (২), অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান পিন্টু, অ্যাডভোকেট রবিউল ইসলাম খান, অ্যাডভোকেট এবিএম সেলিম, অ্যাডভোকেট অসীম কুমার মন্ডল ও অ্যাডভোকেট সিহাব মাসুদ সাচ্চু।


বুধবার বেলা সোয়া ১১টায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপনকালে আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ মামলার প্রধান আাসামি বিএনপি নেতা হাবিবুল ইসলাম হাবিবসহ সকল আসামিদের খালাস পাওয়ার স্বপক্ষে বিভিন্ন আইনি ব্যাখা দেন।


পরবর্তীতে রাষ্ট্রপক্ষের বাংলাদেশের অতিরিক্ত এটর্নি জেনারেল এসএম মুনীর ও সহকারি এটর্নি জেনারেল সকল আসামির ১১টি ধারায় সর্বোচ্চ ২৬ বছর সাজার পক্ষ্যে আইনি ব্যাখা দেন। সবশেষে অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ কাঠগোড়ায় থাকা ৩৪ জন আসামিকে রায়ের দিন পর্যন্ত জামিন আবেদন করলে বিচারক তা না’মঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।


প্রসঙ্গত, ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট সকাল ১০টার দিকে তৎকালিন বিরোধী দলীয় নেত্রী শেখ হাসিনা সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার চন্দনপুর ইউনিয়নের হিজলদি গ্রামের এক মুক্তিযোদ্ধার ধর্ষিতা স্ত্রীকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে দেখে যশোরে ফেরার পথে কলারোয়া উপজেলা বিএনপি অফিসের সামনে রাস্তার উপর জেলা বিএনপি’র সভাপতি ও তৎকালিন সংসদ সদস্য হাবিবুল ইসলামের হাবিবের নির্দেশে বিএনপি ও যুবদলের নেতাকর্মীরা দলীয় অফিসের সামনে একটি যাত্রীবাহী বাস রাস্তার উপরে আড় করে দিয়ে তার গাড়ি বহরে হামলা চালায়। হামলায় তৎকালিন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রকৌশলী শেখ মুজিবুর রহমান ও সাংবাদিকসহ কমপক্ষে এক ডজন দলীয় নেতা কর্মী আহত হয়।


এ ঘটনায় ওই বছরের ২ সেপ্টেম্বর কলারোয়া মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোসলেমউদ্দিন বাদি হয়ে যুবদল নেতা আশরাফ হোসেন, আব্দুল কাদের বাচ্চুসহ ২৭ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ৭০/৭৫ জনকে আসামি করে আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলাটি বিভিন্ন আদালত ঘুরে মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশে ২০১৪ সালের ১৫ অক্টোবর মামলাটি এজাহার হিসেবে গণ্য করা হয়। পরবর্তীতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক শফিকুর রহমান ৫০ জনের নাম উল্লেখ করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলাটি তিনটি ভাগে ভাগ হয়ে এসটিসি ২০৭/১৫, এসটিসি ২০৮/১৫ দু’টি অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ-২য় আদালতে বিচারাধীন। পেনালকোর্ডের মামলাটি (টিআর-১৫১/১৫) সাতক্ষীরার মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে বিচারাধীন। মামলার শুরু থেকেই ১২ জন আসামি পলাতক ছিল। সাক্ষী চলাকালিন তিনজন পালিয়ে যান। অপর এক আসামি টাইগার খোকন অন্য একটি মামলায় কারাগারে আছেন।


বিবার্তা/সেলিম/জাই


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com