স্ত্রী-ছেলের পর এবার মেয়েও মারা গেছে ভ্যানচালক রফিকের
প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:৪৪
স্ত্রী-ছেলের পর এবার মেয়েও মারা গেছে ভ্যানচালক রফিকের
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ফলসি গ্রামে ভ্যানচালক রফিক কাজীর বাড়ি। মেয়ে জামিলার (৭) মামা বাড়ি যাওয়ার আবদার মেটাতে স্ত্রী, সন্তান আর ভাতিজিকে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে গিয়েছিলেন তিনি।


সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে গিয়ে সারা দিন থাকার পর বিকেলে রওনা হয়েছিলেন বাড়ির পথে। নিজের ব্যাটারিচালিত ভ্যানটির চালকের আসনে ছিলেন তিনি, যাত্রী স্ত্রী-সন্তানেরা। হঠাৎ পথে এক বাসের ধাক্কায় সব যেন ওলটপালট হয়ে গেল পরিবারটির।


সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের মিল্টন বাজার এলাকায় বাসের ধাক্কায় মায়ের কোল থেকে ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা গিয়েছিল রফিক কাজীর আট মাসের শিশু নুর মোহাম্মদ। হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যান স্ত্রী মীরা (৩৫)। মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মেয়ে জামিলাও চলে গেল না ফেরার দেশে।


এই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো তিনজন। তারা হলেন রফিক কাজী, তার মেয়ে নীলা (৯) ও ভাতিজি শুভা (১১)। সবাইকে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তারা এখন সুস্থ আছেন।


কাশিয়ানী থানার রামদিয়া পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) প্রকাশ বোস জানান, নিহত গৃহবধূ তার শিশু সন্তানসহ একটি অটোভ্যান করে বাবার বাড়ি উপজেলার ফুকরা থেকে স্বামীর বাড়ি ফলসি গ্রামে যাচ্ছিলেন।


মিল্টন বাজার এলাকায় পৌঁছালে কাশিয়ানীর ব্যাসপুর থেকে ছেড়ে আসা গোপালগঞ্জগামী একটি যাত্রীবাহী লোকাল বাস ভ্যানটিকে পিছন থেকে চাপা দেয়। এতে ভ্যান থেকে ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই শিশু আলী নিহত হয় এবং মিরা বেগম গুরুতর আহত হন।আহত অবস্থায় স্থানীয়রা মীরা বেগমকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


বিবার্তা/আবদাল

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com