আ.লীগের অন্তঃদ্বন্দ্ব সরকারের জন্য অশনিসংকেত : বাবলু
প্রকাশ : ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ২০:২১
আ.লীগের অন্তঃদ্বন্দ্ব সরকারের জন্য অশনিসংকেত : বাবলু
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

জাতীয় পার্টি মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেছেন, ক্ষমতাসীনদের অন্তর্কলহ প্রকাশ্যে চলে এসেছে। এগুলো সরকারের জন্য অশনিসংকেত। সরকারি দলের এক সংসদ সদস্য তাদের এক শীর্ষ নেতাকে রাজাকার পরিবারের সদস্য বলেছেন। এক শীর্ষ নেতার পৌর নির্বাচনকে ঘিরে প্রকাশ্যে এসেছে এই বিরোধ। তারা নিজেদের স্বার্থ নিয়ে এতটাই ব্যস্ত যে, জনগণের স্বার্থ নিয়ে ভাবনার সময় নেই তাদের। অবস্থা এমন হয়েছে যে বিরোধী দলের আর কিছুই বলতে হচ্ছে না, নিজেরাই নিজেদের অপকর্ম প্রকাশ্যে তুলে ধরছেন।


শনিবার জাপার বনানী কার্যালয়ে জাতীয় তরুণ পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তরের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।


বাবলু বলেন, নির্বাচনে সন্ত্রাস হচ্ছে, প্রার্থী খুন হচ্ছে। এমন নির্বাচন আমরা চাইনা। আমরা চাই মানুষ যেন অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে ভোট দিতে পারে। বর্তমান নির্বাচন কমিশন গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে ব্যর্থ হয়েছে। মানুষের ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে পারছে না নির্বাচন কমিশন। দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থা ভেঙ্গে চুরমার করে দেয়া হয়েছে। সরকারি দলের এক শীর্ষ নেতার ভাই বলেছেন, সরকার ভাতের অধিকার নিশ্চিত করতে পারলেও ভোটের অধিকার নিশ্চিত করতে পারেনি।


জাপা মহাসচিব বলেন, দেশে ভ্যাকসিন এসেছে-এটা আনন্দের খবর। কিন্তু ভ্যাকসিন নিয়ে সরকারের কোনো রোডম্যাপ নেই, কোনো নীতিমালা নেই সরকারের। দেশের মানুষ জানতে চায় কারা প্রথম ভ্যাকসিন পাবে, কীভাবে দেশের মানুষকে ভ্যাকসিন দেয়া হবে। দেশের প্রতিটি মানুষকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দিতে হবে। কারণ, ভ্যাকসিন পাওয়া আমাদের জন্মগত এবং সাংবিধানিক অধিকার। তাই প্রত্যেকে ভ্যাকসিন দিতে সরকার বাধ্য।


সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষ যতটা উন্নয়ন চায়, তার চেয়ে বেশি সুশাসন চায়। পদ্মা ব্রিজ আর ফ্লাইওভার-এর আগে সুশাসন চায় মানুষ। সুশাসন নিশ্চিত না হলে ঐ ব্রিজ দিয়ে ১০টি হোন্ডায় ২০টি গুন্ডা দ্রুত সময়ে মানুষের জীবন অতিষ্ঠ করে তুলবে। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, ৯০ সালের পর দুটি দল পরিকল্পিতভাবে তরুণ সমাজের মূল্যবোধ ধ্বংস করে দিয়েছে। সরকারি দলের ছত্রছায়ায় তরুণদের ক্যাসিনো, জুয়া ও মদের ব্যবসায় অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। প্রশাসনের নাকের ডগায় অনৈতিক কাজে জড়িত ছিল তরুণরা। কিন্তু তাদের কথা কেউ ভাবেনা। অপরাধীদের অনেককেই আটক করা হয়েছে কিন্তু বছর ঘুরলেও তাদের বিচার হচ্ছেনা।


দ্রুততার সাথে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দিতে সরকারের প্রতি আহবান জানান জাতীয় পার্টি মহাসচিব বাবলু। তিনি বলেন, বৈশ্বিক মহামারির কারণে সারা বিশ্বেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছিলো, কিন্তু এখন সবাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দিচ্ছে। তাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো চালু করতে সরকারের প্রতি আহবান জানান তিনি। দীর্ঘ সময় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলে দেশের ভবিষ্যত হুমকির মুখে পড়বে। অটোপাশের কারণে শিশুরা প্রকৃত শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।


সম্মেলনে উদ্বোধনী বক্তৃতা করেন জাতীয় তরুণ পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির আহবায়ক ও জাতীয় পার্টির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ জাকির হোসেন মৃধা।


জাতীয় তরুন পার্টির মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক কে.এম. সুজনের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব কে.এম. কামাল উদ্দিন স্মরণের সঞ্চালনায় সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভরায়, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, অ্যাডভোকেট মোঃ রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, জহিরুল ইসলাম জহির, ভাইস চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান খান, যুগ্ম মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, ফকরুল আহসান শাহজাদা, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন মঞ্জু, আনোয়ার হোসেন তোতা, তরুন পার্টির আহবায়ক জাকির হোসেন মৃধা ও সদস্য সচিব মোড়ল জিয়াউর রহমান।


বিবার্তা/বিপ্লব/জাই

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com