# মি-টু : প্রতিবাদী নারীদের পাশে থাকার আহবান
প্রকাশ : ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ১৯:৪৯
# মি-টু : প্রতিবাদী নারীদের পাশে থাকার আহবান
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

# মি-টু প্রকাশকারীদের পাশে দাঁড়াতে সবার প্রতি আহবান জানিয়েছেন # মি-টু আন্দোলনের সাথে সংহতি প্রকাশকারীরা। একই সাথে যৌন নিপীড়কের বিরুদ্ধে আন্দোলনে অংশ নেয়ারও আহবান জানান তারা।


শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে # মি-টু মুভমেন্ট বাংলাদেশ এর সাথে সংহতি মাননবন্ধনে তারা বলেন, হাজার বছরের ট্যাবু ভেঙে বেরিয়ে আসা সাহসী মেয়েদের প্রতি সমবেদনা, শ্রদ্ধা এবং পূর্ণ সমর্থন জানাচ্ছি।


এ সময় সর্বোচ্চ আদালতের দেয়া রায় বাস্তবায়নের জন্য সব প্রতিষ্ঠানের প্রতি আহবান জানান নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সভাপতি নাসিমুন আরা হক মিনু। তিনি বলেন, এই আইন বাস্তবায়িত হলে যৌন হয়রানি অনেকটাই কমে আসবে।



# মি-টু আমলে নেয়ায় ডেইলি স্টারের প্রতি সাধুবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ উইমেন জানালিষ্ট ফোরামের সভাপতি মমতাজ বিলকিস বানু বলেন আমরা আশা করি ডেইলি স্টার অন্য প্রতিষ্ঠান গুলোর জন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে।


উইমেন জার্নালিস্ট নিউজ নেটওয়ার্কের সভাপতি আঙ্গুর নাহার মন্টি বলেন, সামাজিক আন্দোলনের অংশ হিসেবে # মি-টু তে নিজেদের জীবনে ঘটে যাওয়া বিভীষিকাময় ঘটনা প্রকাশকে নৈতিকভাবে সমর্থন জানিয়ে মানববন্ধন করেছেন শতাধিক সাংবাদিক ও বিভিন্ন পেশাজীবীরা।


বাংলাদেশ উইমেন জার্নালিস্ট ফোরামের সাধারণ সম্পাদক শারমিন রিনভী বলেন, এমন অনৈতিক আচরণের বহিঃপ্রকাশে দেশের স্বনামখ্যাতদের মুখোশ উন্মোচিত হচ্ছে। তাদের আসল চেহারা স্যোশাল মিডিয়ার মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় আমরা বিব্রতবোধ করছি। বিষয়টি এখন কমিউনিটির গন্ডি পেরিয়ে পারিবারিক অঙ্গনেও প্রবেশ করায় যার পরনাই বিব্রত, চিন্তিত আমরা।


মানবন্ধনে বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক সমিতির সভাপতি নাসিমা সোমা বলেন, যৌন নিপীড়ন বন্ধে পরিবার থেকে থেকে সচেতনতা বাড়ানোর বিকল্প নেই। এজন্য সবাইকে একতাবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।


গণমাধ্যমকর্মী রোকসানা ইয়াছমিন তিথি বলেন, অভিযুক্তদের এমন ঘৃণ্য আচরণে আমরা বিস্মিত। সেই সাথে তাদের এ ঘৃণ্য আচরণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। কারণ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনগুলোর সদস্য হিসেবে সামাজিক বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আমরা এবং অভিযুক্তরাও আমন্ত্রিত থাকেন। সেসব অনুষ্ঠানে বেশিরভাগ সময় আমি বা আমাদের পরিবারের সদস্য অংশ নেন। এতে শঙ্কিত বোধ করছি।


সাংবাদিক উদিসা ইসলাম বলেন, এটি একটি সামাজিক আন্দোলন, এই আন্দোলনকে থামিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে প্রতিহত করা হবে। যদিও শিশু ও নারী যৌন নিপীড়ন নতুন কোনো সমস্যা নয়। যুগের পর যুগ এই অভিজ্ঞতার ভেতর দিয়েই বেড়ে ওঠে নারী ও শিশুরা। কিন্ত একজন সচেতন অভিভাবক হিসেবে আমরা জেনেশুনে আমাদের সন্তানদের যৌন নিপীড়নকারীর সংসর্গে রাখতে পারি না।



পরে অভিযুক্তদের প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়া, সব গণমাধ্যমে বয়কট এবং সামাজিক সংগঠনগুলো থেকে তাদের সদস্য পদ বাতিলের দাবি জানানো হয়।


মানববন্ধনে # মি-টু মুশফিকা লাইজু, নাদিরা দিল রুবা উপস্থিত ছিলেন। আন্দোলনের সাথে সংহতি প্রকাশ করে ঢাকা রির্পোটাস ইউনিটির সভাপতি সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শুক্কুর আলী শুভ, গৌরব’৭১ এর সাধারণ সম্পাদক এম শাহিনসহ বিভিন্ন পেশাজীবিরা মানববন্ধনে অংশ নেন।


বিবার্তা/রোকন/কাফী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com