‘আমাকে দেখে যদি অন্যরা উদ্বুদ্ব হয়’
প্রকাশ : ০২ এপ্রিল ২০১৮, ২২:৫৯
‘আমাকে দেখে যদি অন্যরা উদ্বুদ্ব হয়’
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

বন্ধু-বান্ধব বা ৫০ জনকে এক জায়গায় জড়ো করতে করতে দেখা যাবে বিষয়টিই চাপা পড়ে গেছে। তাই একাই দাঁড়িয়ে গেলাম। আমাকে দেখে যদি অন্যরা উদ্বুদ্ধ হয়।


ধর্ষণের প্রতিবাদে একাই রাস্তায় নেমে কথাগুলো বলছিলেন একটি বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তা আফসানা কিশোয়ার লোচন। সোমবার সকাল সোয়া ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত রাজধানীর পথে দাঁড়িয়ে ধর্ষণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন এই নারী।


তিনি উত্তরার রাজলক্ষ্মী ফুটওভার ব্রিজ ও আজমপুর ফুটওভার ব্রিজের ওপরে দাঁড়িয়ে এ প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করেন। আফসানার হাতে থাকা বড় প্ল্যাকার্ডে লেখা, ‘একজন পুরুষই পারে আগামীকালের একটি সম্ভাব্য ধর্ষণ বন্ধ করতে।’ তারপর হ্যাশট্যাগে লেখা ‘ধর্ষণ বন্ধ করুন’, ‘বি আ রিয়েল ম্যান’, ‘স্টপ রেইপ’।


সাংবাদিকদের তিনি বলেন, কয়েকজন বন্ধুর সঙ্গে কথা হচ্ছিল বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে। ধর্ষণের ঘটনা ঘটেই চলছে। কিছু একটা করা দরকার। তারপরই এভাবে প্রতিবাদ জানানোর চিন্তা মাথায় আসে। সাড়ে ছয় বছর বয়সী একমাত্র মেয়েকে স্কুলে দিয়ে পরিকল্পনা অনুযায়ী দাঁড়িয়ে যাই। অফিস থেকে আজ ছুটি নিয়েছিলাম। ছুটিটাকে কাজে লাগালাম। বাসায় আর কাউকে জানাইনি। শুধু ছোট ভাইকে সঙ্গে নিয়ে বের হই।


আফসানা জানান, প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন শেষে আফসানা নিজের ফেসবুকে তা পোস্ট করেন। কর্মসূচি পালনের সময় সবাই উৎসাহ দিয়েছে তা নয়।


আফসানার মা মারা গেছেন। বাবা ও স্বামী এ প্রতিবাদের কথা জানেন কি না, প্রশ্নে হেসে আফসানা বলেন, বাবা এখন পর্যন্ত জানেন না। স্বামী ফেসবুকে দেখেছেন। বাসার সবাই আমাকে চেনে। স্বামী আর আমি একসঙ্গে শাহবাগে গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলনসহ বিভিন্ন আন্দোলনে অংশ নিয়েছি। তাই স্বামী এ ব্যাপারে আমাকে কিছু বলবেন না।


আফসানা মনে করেন যে কোনো অনাচারের বিরুদ্ধে প্রত্যেকেই নিজ জায়গা থেকে দায়িত্ব পালন করলে অবশ্যই একটি ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।


বিবার্তা/কাফী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com