শিরোনাম
জনগণ সাম্প্রদায়িক শক্তির বিষদাঁত চিরতরে ভেঙ্গে দিয়েছে: আ.লীগ
প্রকাশ : ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৫:২২
জনগণ সাম্প্রদায়িক শক্তির বিষদাঁত চিরতরে ভেঙ্গে দিয়েছে: আ.লীগ
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান বলেছেন, জনগণের গণরায়ের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে বিএনপি-ঐক্যফ্রন্ট। নির্বাচনে নৌকায় আস্থা রাখার মধ্যে দিয়ে জনগণ সাম্প্রদায়িক শক্তির বিষদাঁত চিরতরে ভেঙ্গে দিয়েছে।


তিনি বলেন, এই বিজয়ে কোনো আনন্দ-উল্লাস বা বিজয় মিছিল নয়। মসজিদ, মন্দির, গির্জা, প্যাগোডায় প্রার্থনা করব। সৃষ্টিকর্তার কাছে আমরা শুকরিয়া আদায় করব। কারণ এই বিজয় বাংলাদেশের মানুষের জন্য স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে।


সোমবার দুপুরে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। নির্বাচন উপলক্ষে বাংলাদেশে আসা বিদেশি পর্যবেক্ষক এবং সাংবাদিকদের প্রধানমন্ত্রী বিকাল ৪টায় ব্রিফ করবেন বলে জানান আওয়ামী লীগের এই নেতা। সেখানে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারাও থাকবেন। তবে সংবাদ সম্মেলনটি কোথায় হবে, সে বিষয়ে কিছু জানাননি তিনি।


আব্দুর রহমান বলেন, ঐক্যফ্রন্ট নেতারা নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করে পুনর্নির্বাচনের যে দাবি জানিয়েছে তা আমরা সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাখ্যান করছি। তাদের দাবি অযৌক্তিক। তাদের এই দাবি গণবিরোধী। এই বক্তব্য প্রকাশ করার মধ্য দিয়ে গণরায়ের বিরুদ্ধে তারা অবস্থান নিয়েছে। কাজেই বাংলাদেশের জনগণ তাদের আবারো সমুচিত জবাব দেবে। তাদের এই বক্তব্য প্রত্যাহারের জন্য আমি সবিনয়ে অনুরোধ করছি।


তিনি বলেন, এই নির্বাচনে বাংলাদেশের মানুষ একটি সাম্প্রদায়িক শক্তির বিষদাঁত চিরতরে ভেঙে দিলো এবং জামায়াত-যুদ্ধাপরাধী অপশক্তির হাত গুঁড়িয়ে দিলো এই ভোটের মাধ্যমে।


তিনি আরো বলেন, আজকে আমরা অভিভূত যে, বাংলাদেশের মানুষ ন্যায়ের পথে আছে, সত্যের পথে আছে, স্বাধীনতার পক্ষে আছে, অসাম্প্রদায়িক রাজনীতির পক্ষে আছে, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ আছে।


আওয়ামী লীগের এ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, আজকে তাই এ বিজয়ের দিনে আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দিয়েছেন বিজয় মিছিল না করতে। তাই কোনো ধরনের বিজয় উল্লাস বা কোনো ধরনের বিজয় মিছিল আমরা করবো না। আমরা বাংলাদেশের মসজিদে, মন্দিরে, গির্জায় প্রার্থনা করবো।


তিনি বলেন, আজকে এই দেশের সকল মানুষের উৎকণ্ঠা ম্লান করে দিয়ে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন শেষ হয়েছে এবং এ নির্বাচনে দেশের মানুষ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে। সুতরাং আমরা কোনো ধরনের বিজয় উল্লাস করবো না।


নির্বাচনের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে আব্দুর রহমান বলেন, সারা দেশবাসী আনন্দের জোয়ারে ভাসছে। আমরা যদি এক কথায় বলি তাহলে বলবো যে, শেখ হাসিনার আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তাই আমাদের আজকের এই বিজয়ের ফসল।


তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বিগত ১০ বছর বাংলাদেশের মানুষকে যে অভাবনীয় উন্নয়ন দিয়েছেন এবং আগামী দিনে বাংলাদেশকে উন্নয়নের মহাসড়কে পথচলার যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, তারই ফলশ্রুতিতে আমরা একটি অভূতপূর্ব বিজয় অর্জন করেছি। এজন্য বাংলাদেশের সর্বস্তরের মানুষ এবং ভোটারদের প্রাণঢালা অভিনন্দন জানাই।


তিনি আরো বলেন, নির্বাচনে বিদেশি সাংবাদিক এসেছিলেন। পর্যবেক্ষকরাও এসেছিলেন। তারা নির্বাচনে গুরুত্বপূণ ভূমিকা রেখেছেন। তারাও আমাদেরর এই বিজয়কে স্বাগত জানিয়েছে। সেইসাথে ইতোমধ্যেই ওআইসি আওয়ামী লীগের এ বিজয়কে অভিনন্দন জানিয়েছে।


সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, বি এম মোজাম্মেল হক, পরিবেশ ও বন বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, উপ-দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।


বিবার্তা/জাকিয়া

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com