‘সমাজকে গড়তে শিক্ষার সঙ্গে সংস্কৃতির চর্চার সমন্বয় গুরুত্বপূর্ণ’
প্রকাশ : ২৫ জুলাই ২০১৮, ০১:০৭
‘সমাজকে গড়তে শিক্ষার সঙ্গে সংস্কৃতির চর্চার সমন্বয় গুরুত্বপূর্ণ’
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

সংস্কৃতিবিষয়কমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, ‘আজকে আমরা সবাই একবাক্যে স্বীকার করি, আজকে সমাজে যেসব দুর্নীতি, অনাচার, জঙ্গিবাদ- এসব অন্যায়ের বিরুদ্ধে যদি সমাজটাতে তৈরি করতে হয়, তাহলে মানুষ তৈরি করতে হবে। শিক্ষার সঙ্গে সংস্কৃতির চর্চার সমন্বয় না ঘটালে ওই সমাজটা তো গড়ে ওঠবে না।’ আর সেক্ষেত্রে সারাদেশে শিক্ষক ও অভিভাবকদের মধ্যে সংস্কৃতি চর্চায় উৎসাহ বাড়াতে জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) সহায়তা চাইলেন সংস্কৃতি মন্ত্রী।


গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে জেলা প্রশাসক সম্মেলনের প্রথম দিনের পঞ্চম কার্য অধিবেশনে মন্ত্রী এ সহায়তা চান। অধিবেশন শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান মন্ত্রী।


তথ্য মন্ত্রণালয়, সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে জেলা প্রশাসকদের এ কার্য অধিবেশন হয়। মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম এতে সভাপতিত্ব করেন।


আসাদুজ্জামান নূর বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের সাংস্কৃতিক চর্চাকে তৃণমূল পর্যায়ে নিযে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। সেই লক্ষ্যে আমরা এ পর্যন্ত যে ব্যবস্থাগুলো গ্রহণ করছি সেগুলোর একটা বর্ণনা দিয়েছি ডিসিদের।’


‘আর দ্বিতীয়ত তাদের (ডিসি) বলেছি, জেলা পর্যায়ে জেলা প্রশাসকদের যথেষ্ট আগ্রহ আছে কিন্তু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো ও অভিভাবকদের মধ্যে অনেকটাই আগ্রহের অভাব লক্ষ্য করি। সেই জায়গাটিতে চেতনা সৃষ্টি করার একটা বিষয় আছে। অভিভাবক ও শিক্ষকরা যদি সংস্কৃতি চর্চায় অংশগ্রহণ না করেন, ছেলেমেয়েদের উৎসাহিত না করেন তবে তো তাদের জোর করে করানো যাবে না।’


সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, ‘তবে বাচ্চারা কিন্তু দারুণ আগ্রহী। আমরা যখনই যেভাবে যে ধরনের আয়োজন করেছি, দেখেছি ছেলে-মেয়েরা অনেক উৎসাহ নিয়ে অংশগ্রহণ করে। এই উৎসাহটা আমাদের ধরে রাখাটা খুব প্রয়োজন।’


নূর বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী দেশটাকে উন্নয়নের দিকে নিয়ে যাচ্ছেন। উন্নয়নটাকে সম্পূর্ণ করতে হলে সমাজটাকে সবদিক থেকে উন্নত করতে হবে। শুধু অর্থনৈতিক উন্নয়ন হলে তো অসম্পূর্ণ থেকে যাবে। তাই এই কাজটা আমাদের সবার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ।’


ডিসিরা কোন ধরনের সমস্যার কথা বলেছেন- জানতে চাইলে সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, ‘উনারা মূলত অবকাঠামোগত সুযোগ-সুবিধার কথা বলেছেন। আমরা তো সেগুলো নিয়ে কাজ করছি। রাতারাতি তো সবকিছু হবে না। জেলা পর্যায়ে আমাদের যেসব অডিটোরিয়াম, গণগ্রন্থাগার ইত্যাদির কাজ প্রায় শেষ। এখন আমরা উপজেলা পর্যায়ে হাত দিয়েছি। জেলা পর্যায়ে শিল্পকলার অডিটোরিয়ামগুলো আমরা পর্যায়ক্রমে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত করে দিচ্ছি।’


অধিবেশনে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন সিকদার, যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয় উপস্থিত ছিলেন।


বিবার্তা/শারমিন/শাহনাজ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com