কোরবানির হাটে সুস্থ গরু চিনবেন কিভাবে
প্রকাশ : ১৯ আগস্ট ২০১৮, ২১:০১
কোরবানির হাটে সুস্থ গরু চিনবেন কিভাবে
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

কোরবানির হাট এখন গরুতে সয়লাব। মোটাতাজা চকচকে শরীরের সব গরু দেখে যে কারোই লোভ লাগতে পারে। কিন্তু জানেন কি, নানারকম ক্ষতিকর রাসায়নিক খাইয়ে মোটাতাজা করা এসব গরুর গোস্ত মানবদেহের জন্য কী ভীষণ ক্ষতিকর! অতএব কেনার আগে জেনে নিন, কোরবানির হাটে সুস্থ গরু চিনবেন কিভাবে -


১. রাসায়নিক বা ওষুধ দেয়া গরুর মাংসপেশি থেকে শুরু করে শরীরের অন্য অঙ্গগুলো অস্বাভাবিকভাবে ফুলে থাকে। শরীরে পানি জমায় বিভিন্ন অংশে চাপ দিলে সেখানে গর্ত হয়ে দেবে যাবে, যা স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে সময় নেবে।


২. গরুটির শিং ভাঙ্গা, লেজ কাটা কিংবা মুখ, জিহ্বা, শরীর, পা, ক্ষুর, গোড়ালিতে কোনো ক্ষত আছে কিনা দেখে নিন।


৩. অতিরিক্ত ওজনের কারণে এ সব গরু চলাফেরা বা স্বাভাবিক নাড়াচাড়া করতে পারে না। শান্ত থাকে।


৪. রাসায়নিকযুক্ত গরু ভীষণ ক্লান্ত থাকবে এবং ঝিমাবে। সুস্থ গরু হবে চটপটে। পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতি বুঝে প্রতিক্রিয়া দেখায়। কান ও লেজ দিয়ে মশা মাছি তাড়ায়।


৫. রাসায়নিক বা ওষুধ খাওয়ানো গরুর শরীরের অঙ্গগুলো নষ্ট হতে শুরু করায় এগুলোর শ্বাসপ্রশ্বাস দ্রুত হয়। মনে হবে যেন হাঁপাচ্ছে।


৬. অতিরিক্ত স্টেরয়েড দেয়া গরুর মুখ থেকে প্রতিনিয়ত লালা ঝরবে। কিছু খেতে চাইবে না। সুস্থ গরুর মুখের সামনে খাবার ধরলে সেটা টেনে খাবে। না হলে জাবর কাটবে।


৭. সুস্থ গরুর নাকের উপরের অংশটা ভেজা বা বিন্দু বিন্দু ঘাম জমা থাকবে। অন্যদিকে অসুস্থ গরুর নাক থাকবে শুকনা।


৮. সুস্থ গরুর শরীরের রঙ উজ্জ্বল থাকবে। গরুর পিঠের কুজ মোটা, টানটান ও দাগমুক্ত হবে।


৯. সুস্থ গরুর রানের মাংস শক্ত থাকবে। রাসায়নিক দেয়া গরুর পা হবে নরম থলথলে।


১০. গরুর শরীরে হাত দিয়ে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি মনে হলে বুঝতে হবে গরুটি অসুস্থ।


১১. সুস্থ গরুর চামড়ার ওপর দিয়ে কয়েকটা পাঁজরের হাড় বোঝা যাবে।


কোরবানির উপযুক্ত পশু
কোরবানির জন্য কোন পশুটি উপযুক্ত তা জেনে নেয়া খুবই জরুরি।


১. গরুর বয়স কমপক্ষে দুই বছর হলেই এটা কোরবানির জন্য উপযুক্ত হবে। এক্ষেত্রে গরুর দাঁত দেখে বয়স যাচাই করে নিতে হবে। গরুর নিচের পাটিতে যদি দুধ দাঁতের পাশাপাশি সামনে অন্তত দুটি কোদালের মতো স্থায়ী দাঁত থাকে তাহলে বুঝতে হবে গরুটি কোরবানির উপযুক্ত হয়েছে।


২. গাভী কোরবানির দেয়া গেলেও তার আগে অবশ্যই নিশ্চিত হবে যে গাভীটি গর্ভবতী কিনা। গর্ভবতী গাভী কোনো অবস্থাতেই কোরবানি দেয়া যাবে না। সাধারণত গর্ভবতী গাভীর পেট ও ওলান স্ফীত থাকে।


অভিজ্ঞ পশুক্রেতার পরামর্শ
দক্ষ ও অভিজ্ঞ পশুক্রেতারা দিনের আলো থাকতে থাকতেই গরু কেনার পরামর্শ দিয়েছেন। তাদের মতে রাতের বেলা গরুর এতোগুলো বিষয় ঠিকঠাক যাচাই করা সম্ভব নাও হতে পারে।


বিবার্তা/হুমায়ুন/কাফী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com