‌‌‘খাবারের লাইনে ছিল আততায়ী’
প্রকাশ : ২২ এপ্রিল ২০১৯, ১৩:০৭
‌‌‘খাবারের লাইনে ছিল আততায়ী’
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

বোমা বিস্ফোরণ করার ঠিক আগে কলম্বোর গ্র্যান্ড হোটেলের খাবারের লাইনে দাঁড়িয়ে ছিল আততায়ী বলে জানিয়েছেন তদন্ত কমিটি।


সোমবার তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, ঠিক যে সময় তার পাতে খাবার তুলে দেয়ার কথা তখনই বিস্ফোরণ ঘটিয়ে দেয় মহম্মদ আজম। হোটেলে সে সময় প্রচুর মানুষ উপস্থিত ছিলেন বলে মুহূর্তেই আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনাস্থলেই অনেকের প্রাণ যায়। দৌড়তে গিয়ে আহতও হন অনেকে।


হোটেলের ম্যানেজার জানিয়েছেন, লাইনে দাঁড়িয়ে খাবারের কাউন্টারের সামনে পর্যন্ত যায় আজম। তারপরই সে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে দেয়। খাবার পরিবেশনের দায়িত্বে থাকা কর্মী সঙ্গে সঙ্গে মৃত্যু হয়।
প্রায় একই সময় শহরের আরও দু-তিনটি আমি হোটেলে বিস্ফোরণ হয়। পাশাপাশি বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে তিনটি গির্জাও। প্রার্থনার জন্য সে সময় প্রচুর মানুষ সেখানে উপস্থিত ছিলেন। ফলে মুহূর্তের মধ্যেই মৃতের সংখ্যা বাড়তে শুরু করে। কলম্বোর অন্যতম পুরনো গির্জা সেন্ট অ্যান্থনি। সেখানে বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে গির্জার বেশিরভাগ অংশই ভেঙে গেছে। হামলার পরে এখনো কোনো সংগঠন স্বীকার করেনি। শ্রীলংকা প্রশাসন ও জানায়নি এই ঘটনার নেপথ্যে কারা আছে।


এদিকে এই ঘটনার মধ্যেই রাজধানীর প্রধান বিমান বন্দরের খুব কাছে উদ্ধার হল পাইপ বোমা। তবে নতুন করে ভয়াবহ কিছু ঘটার আগে সেটি নিষ্ক্রিয় করে দিয়েছে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে তদন্তকারীদের অনুমান স্থানীয়ভাবেই বোমটি তৈরি করা হয়েছিল।


জানা গেছে, বিমানবন্দরের টার্মিনালে সেটি পড়েছিল। অঘটন ঘটার আগেই সেটিকে নিষ্ক্রিয় করে দেয়া সম্ভব হয়। শ্রীলঙ্কার বায়ু সেনার এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, আইডি বোমাটি শ্রীলঙ্কাতে তৈরি বলে মনে হচ্ছে।


শ্রীলঙ্কার গির্জায় যে হামলা হতে পারে দশ দিন আগেই তার ইঙ্গিত পেয়েছিল পুলিশ। সতর্কবার্তা জারি করেছিলেন শ্রীলঙ্কার পুলিশ প্রধান। তার বক্তব্য উদ্ধৃত করে এ তথ্য জানায় সংবাদ সংস্থা এএফপি। পুলিশ প্রধান পি জয়াসুন্দরা ১১ এপ্রিল এই মর্মে পুলিশ কর্মকর্তাদের সতর্ক বার্তা পাঠান। ওই সতর্কবার্তায় লেখা হয়েছিল, এনটিজে নামে একটি সংগঠন দেশের বিশিষ্ট গির্জায় হামলার চেষ্টা করছে। ভারতীয় হাই কমিশনও তাদের নজরে আছে। সূত্র: এনডিটিভি


বিবার্তা/আকবর

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com