আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে ইজতেমামুখী মানুষের ঢল
প্রকাশ : ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ০৯:১২
আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে ইজতেমামুখী মানুষের ঢল
ফাইল ফটো
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

৫৫তম বিশ্ব ইজতেমারদ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে শনিবার (১৮ জানুয়ারি) রাত থেকেই ঢাকা ও আশপাশের এলাকা থেকে মুসল্লিগণ ইজতেমা ময়দানের দিকে আসতে শুরু করেছেন। সকালে মুসল্লিদের এই স্রোত আরো বাড়তে থাকে। ইজতেমা ময়দানের আশপাশে এবং ঢাকা-ময়মনসিংহ ও আব্দুল্লাহপুর- আশুলিয়া সড়কে মুসল্লিদের ঢল লক্ষ্য করা গেছে।


আখেরি মোনাজাতের দিন ইজতেমায় অংশগ্রহণকারীদের সুবিধার্থে ১৬টি বিশেষ ট্রেন চলাচল করবে। এছাড়া সব আন্তঃনগর ট্রেন টঙ্গীতে যাত্রা বিরতি করবে। এছাড়া বিআরটিসি’র শতাধিক বিশেষ বাস সার্ভিস চালু থাকবে। মোনাজাত উপলক্ষে টঙ্গী ও আশপাশ এলাকায় বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।


হেদায়েতি বয়ান : সকাল থেকে ইজতেমায় বয়ান করছেন ভারতের মাওলানা ইকবাল হাফিজ। তিনি বলেন, আমাদের দাওয়াতের কাজে দিনে ৮ ঘণ্টা সময় দিতে হবে। জবরদস্তি করে নয়, তাজিমের সঙ্গে বুঝিয়ে কাউকে মসজিদে নিয়ে আসতে হবে। আমাদের প্রত্যেকটি কাজ আল্লাহকে রাজি ও খুশি করার জন্যই করতে হবে।


হেঁটেই ইজতেমাস্থলে : বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে ঢাকা, গাজীপুরসহ আশে-পাশের বিভিন্ন জেলার মুসল্লিরা ভোর থেকেই টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানের দিকে ছুঁটছেন। ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুরের ভোগড়া বাইপাস থেকে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর পর্যন্ত সাধারণ যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় শনিবার (১৮ জানুয়ারি) ভোররাত থেকেই মুসল্লিরা হেঁটে ইজতেমার উদ্দেশ্যে রওনা হন। আখেরি মোনাজাতের আগ পর্যন্ত মুসল্লিদের আগমন অব্যাহত থাকবে। অনেকেই যানবাহনের বিড়ম্বনা এড়াতে দুই-একদিন আগেই টঙ্গীতে আত্মীয়-স্বজনদের বাড়ি কিংবা হোটেলে অবস্থান নিয়েছেন।


টঙ্গীতে মুসল্লিদের ভিড় : আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে টঙ্গীতে একদিন আগে থেকেই মুসল্লিদের ভিড় লক্ষ্য করা গেছ। টঙ্গী যেন এখন পুণ্যনগরীতে পরিণত হয়েছে। সেখানে এখন টুপি-পাঞ্জাবি পরা মানুষের ঢল নেমেছে। আখেরি মোনাজাতের আগ পর্যন্ত এ ঢল অব্যহত থাকবে। এছাড়া দুই-তিনদিন আগে থেকেই চিল্লাবদ্ধ ৬৪ জেলার কয়েক লাখ মুসল্লি ইজতেমাস্থলের নির্ধারিত খিত্তায় অবস্থান করছেন।


নিরাপত্তা জোরদার : আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে নেয়া হয় ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা। পাঁচ স্তরে নিরাপত্তার ব্যবস্থার পাশাপাশি অতিরিক্ত আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য মোতায়েন রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে জেলা ও মহানগর পুলিশ।


মোনাজাতে অতিরিক্ত মাইক : আখেরি মোনাজাত প্রচারের জন্য গণযোগাযোগ অধিদফতর ও গাজীপুর জেলা তথ্য অফিস বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে। জেলা তথ্য অফিস জানিয়েছে, গণযোগাযোগ অধিদফতর ইজতেমা ময়দান থেকে আবদুল্লাহপুর ও বিমানবন্দর রোড পর্যন্ত এবং গাজীপুর জেলা তথ্য অফিস ইজতেমা ময়দান থেকে চেরাগাআলী, টঙ্গী রেলস্টেশন, স্টেশন রোড ও আশপাশের অলিগলিতে পর্যাপ্ত মাইক সংযোগের ব্যবস্থা করেছে।


মোনাজাতে বিশেষ ট্রেন ও বাস : বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাতে অংশ নেয়ার জন্য রবিবার (১৯ জানুয়ারি) সকাল থেকে ১৬টি বিশেষ ট্রেন যাতায়াত করবে। সকল ট্রেন টঙ্গী রেল স্টেশনে যাত্রা বিরতি করবে। ইজতেমাস্থল থেকে চৌরাস্তামুখী ৩০টি এবং মহাখালীমুখী ৩০টি বাস চলাচল করবে।


বিদেশি মুসল্লি : বিশ্ব ইজতেমা সূত্র জানায়- ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে ৩৫টি রাষ্ট্রের প্রায় আড়াই হাজার মুসল্লি যোগ দিয়েছেন।


এ বছর বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরু হয় ১০ জানুয়ারি। আর ১২ জানুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে মাওলানা জুবায়ের অনুসারিদের প্রথম পর্ব শেষ হয়। প্রথম পর্বে ৬৪টি জেলার মুসল্লিরা অংশ নেন। দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমাতেও দিল্লির মাওলানা সা’দ অনুসারী ৬৪ জেলার মুসল্লিরা অংশ নিয়েছেন।


বিবার্তা/এনকে

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com