পুলিশ কর্মকর্তার উদারতা
প্রকাশ : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৪:২৯
পুলিশ কর্মকর্তার উদারতা
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক উত্তর বিভাগের এক পুলিশ কর্মকর্তা মানবিকতার এক অনন্য নজির গড়েছেন।


জানা গেছে, গত সোমবার বিমানবন্দর চত্বরের পাশে এক মানসিক ভারসাম্যহীন তরুণীকে উলঙ্গ অবস্থায় দেখেন উপপুলিশ কমিশনার প্রবীর কুমার রায়। পথচারীরা বিষয়টি দেখেও না দেখার ভান করে এড়িয়ে যেতে থাকেন। কিন্তু ওই তরুণীকে এমন অবস্থায় দেখে সঙ্গে সঙ্গে গাড়ি থেকে নেমে নিজের ট্রাউজার এবং জার্সি পরিয়ে দেন প্রবীর কুমার।


আর এক পথচারী সেই মুহূর্তের ছবি তুলে ফেসবুকে প্রকাশ করে দেয়। দ্রুতই তা ভাইরাল হয়ে যায়।


পুলিশ কর্তকর্তার সেই কাজের প্রশংসা করে আনিসুল হক নামের একজন ফেসবুকে লিখেছেন, পুলিশের নেতিবাচক দিকগুলোই আমরা দেখি। কিন্তু এটাও ঠিক যে তাদের অনেকেই মানবিক কাজ করে থাকেন সেসব ভাল কাজের প্রশংসা করি না আমরা।


আতিক আহমেদ নামের একজন লেখেন, এই শহরে তো আমরাও থাকি। নিশ্চয়ই ঐ নারীকে আগেও ওখানে দেখা গেছে। অন্যরা যারা আগে দেখলেন তারা কেন এগিয়ে আসলেন না? সব কিছুতে কি পুলিশেরই এগিয়ে আসতে হবে!


বিষয়টি নিয়ে উপপুলিশ কমিশনার প্রবীর কুমার বলেন, হ্যা, ঘটনাটি নাকি ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। অন্য কোনো উদ্দেশ্য নয়; আমি শুধু আমার মানবিক দায়বদ্ধতা থেকে কাজটি করেছি।


তিনি বলেন, প্রথম টার্গেটই ছিল ওই নারীকে পোশাকে আবৃত করা। তাই সে সময় হাতের কাছে যা ছিল তা দিয়েই ঐ নারীর লজ্জা নিবারণের চেষ্টা করেছি। মানিব্যাগে সে সময় যে পরিমাণ টাকা ছিল সেটাও দিয়েছি ওই ভারসাম্যহীন তরুণীকে।


তিনি আরো বলেন, এখানে আলাদাভাবে আমার প্রশংসা করার কিছু নেই। আমার মনে হয়, আমার জায়গায় অন্য কোন পুলিশ সদস্য থাকলেও এমনটি করতেন।


বিবার্তা/আবদাল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com