রোমাঞ্চ ছড়ানো জয়ে শীর্ষে নিউজিল্যান্ড
প্রকাশ : ২০ জুন ২০১৯, ০১:৩৪
রোমাঞ্চ ছড়ানো জয়ে শীর্ষে নিউজিল্যান্ড
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

বিশ্বকাপে তাদের নামের সঙ্গে চোকার্স কথাটি যে একেবারেই ভুল না তা আরো একবার প্রমাণ করলো দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রতিটি আসরের ন্যায় এবারের আসরেও বিশ্বকাপের দাবিদারদের তালিকার একজন ছিল প্রোটিয়ারা। কিন্তু ছয় ম্যাচ শেষে এক জয় ও চার পরাজয়ে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয়ার পথে তারা।


বুধবার বার্মিংহামের এজবাস্টনে বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে কেন উইলিয়ামসনের ক্যাপ্টেন্স নকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৫ উইকেটের জয় পেয়েছে কিউইরা। যদিও বৃষ্টির কারণে ৪৯ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে প্রোটিয়াদের করা ২৪১ রানের সংগ্রহ টপকে যেতে কঠিন পরীক্ষাই দিতে হয়েছে নিউজিল্যান্ডকে।


টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামার আগে বৃষ্টির বাগড়ায় পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। বৃষ্টি ভেজা ম্যাচে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৯ রানে ট্রেন্ট বোল্টের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন কুইন্টন ডি কক। এরপর দ্বিতীয় উইকেটে অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসের সঙ্গে ৫০ রানের জুটি গড়েন আমলা। ৩৫ বলে ২৩ রান করে লকি ফার্গুনসনের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস।


ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়ার মধ্যে দায়িত্বশীল ব্যাটিং করেন আমলা। তবে ফিফটির পর নিজের ইনিংসটা লম্বা করতে পারেননি। মিচেল স্ট্যান্টনারের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন আমলা। তার আগে ৮৩ বলে চারটি চারের সাহায্যে ৫৫ রান করেন তিনি। এই রান করার পথে ওয়ানডে ক্রিকেটে দ্বিতীয় দ্রুততম (১৭৬ ম্যাচ) ৮ হাজার রান সংগ্রহ করেন আমলা। দক্ষিণ আফ্রিকান চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে ৮ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন তিনি।


আমলার বিদায়ের পর দ্রুত আউট হন অ্যাডাম মার্কওরাম। তিনি ৫৫ বলে ৩৮ রান করে ফেরেন। তবে রিশি ভ্যান দার ডুসেনের অপরাজিত ৬৪ বলে তিনটি ছক্বা ও দুটি চারে গড়া ৬৭ রানের ইনিংসে ভর করে ২৪১ রান তুলতে সক্ষম হয় দক্ষিণ আফ্রিকা। এছাড়া ৩৭ বরে ৩৬ রান করেন ডেভিড মিলার। নিউজিল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট শিকার করেন লকি ফার্গুনসন।


জবাবে রান তাড়া করতে নেমে ৪৭ ওভার পর্যন্ত সহজ জয়ের পথেই ছিলো নিউজিল্যান্ড। শেষ দুই ওভারে ৫ উইকেট হাতে নিয়ে জয়ের জন্য ১৪ রান দরকার ছিলো তাদের। কিন্তু ৪৮তম ওভারে বল হাতে নিয়েই ম্যাচের দৃশ্যপট বদলে দেয়ার প্রয়াস চালান লুঙ্গি। সে ওভারে মারমুখী অলরাউন্ডার কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের উইকেটসহ মাত্র ৬ রান খরচ করেন লুঙ্গি। আউট হওয়ার আগে মারমুখী ব্যাটে ৪৭ বলে ৬০ রানের ইনিংস খেলেন গ্র্যান্ডহোম।


সে ওভারের শেষ বলে ৪ মেরে সমীকরণটা হাতের নাগালেই রাখেন কিউই অধিনায়ক উইলিয়ামসন। শেষ ওভারে বাকি থাকা ৮ রান আটকানোর দায়িত্ব বর্তায় আন্দিল ফেলুকায়োর কাঁধে। কিন্তু শেষ কাজটি করতে পারেনি ফেলুকায়ো। তার করা ওভারের প্রথম বলে এক রান নিয়ে অধিনায়ককে স্ট্রাইকে ফেরান অধিনায়ককে।


স্ট্রাইক পেয়ে ওভারের দ্বিতীয় বলেই মিড উইকেট দিয়ে দারুণ এক ছক্কা হাঁকিয়ে সমীকরণ ৪ বলে ১ রানে নামিয়ে আনেন উইলিয়ামসন। তৃতীয় বলে ১ রান নিয়ে নিশ্চিত করেন দলের জয়। শেষপর্যন্ত ১৩৮ বলে ১০৩ রানে অপরাজি থাকেন কিউই অধিনায়ক।


এছাড়া ওপরের সারির অন্য ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ওপেনার মার্টিন গাপটিল ৫৯ বলে ৩৫ ও পেস বোলিং অলরাউন্ডার জিমি নিশাম ৩৪ বলে ২৩ রান করেন। চূড়ান্ত ব্যর্থ হন কলিন মুনরো (৫ বলে ৯), রস টেলর (২ বলে ১), টম লাথাম (৪ বলে ১)।


সংক্ষিপ্ত স্কোরবোর্ড
টস: টসে হেরে ব্যাটিংয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা।


দক্ষিণ আফ্রিকা: ৪৯ ওভার ৬ উইকেট হারিয়ে ২৪১ রান (হাশিম আমলা ৫৫, মার্করাম ৩৮, ভ্যান ডার ডুসন ৬৭*; লকি ফারগুসন ৩/৫৯ রান)


নিউজিল্যান্ড: ৪৮.৩ ওভার ৬ উইকেট হারিয়ে ২৪৫ রান (কেন উইলিয়ামসন ১০৬*, কলিন গ্র্যান্ডহোম ৬০ রান; ক্রিস মরিস ৪৯/৩ রান)


ফলাফল: নিউজিল্যান্ড ৪ উইকেটে জয়ী
প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ: কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড)


বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

বি-৮, ইউরেকা হোমস, ২/এফ/১, 

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com