ফানুস ও আতশবাজিতে মুগ্ধ রাজধানীবাসী
প্রকাশ : ১৭ মার্চ ২০২০, ২২:০৭
ফানুস ও আতশবাজিতে মুগ্ধ রাজধানীবাসী
খলিলুর রহমান
প্রিন্ট অ-অ+

রাত ৮টা। ঢাকার আকাশে হাজার হাজার আগুন ভেসে বেড়াচ্ছে। তবে এটা কোনো অগ্নিকাণ্ডের আগুন নয়। এটা ফানুসের আগুন। ঠিক একই সময় পটকা আর আতশবাজির শব্দে ঢাকার আকাশ কেঁপে উঠে। এছাড়াও হাই ভলিউম সাউণ্ড বক্সে ভেসে আসছে দেশ ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর গান। শুধু তাই নয়, রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ও বহুতল ভবনগুলোতে করা হয়েছে আলোকসজ্জাও।তবে বিষয়টি রাজধানীবাসী প্রাণ ভরে উপভোগ করেছেন। মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) রাত আটটার পর রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এমন দৃশ্য দেখা গেছে।



আজ ১৭ মার্চ দেশের ইতিহাসে গৌরবোজ্জ্বল এক দিন। এই দিন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ পূর্ণ হয়েছে। মহান এই ব্যক্তির জন্মশতবর্ষ পূর্ণ উপলক্ষে রাষ্ট্রীয়ভাবে বিভিন্ন কর্মসূচির পালন করা হচ্ছে। তবে করোনাভাইরাসের কারণে অনুষ্ঠানসূচিতে আনা হয় পরিবর্তন।



মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত রাজধানীর কারওয়ান বাজার, মৎস ভবন, শাহবাগ, মতিঝিল, পল্টন, কাকরাইল, ফার্মগেট, ধানমন্ডি, গুলিস্তান, উত্তরা, মহাখালীসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, বিভিন্ন স্থাপনা ও গুরুত্বপূর্ণ ভবনে লাল, সবুজ, নীল, হলুদ, সাদা, সোনালী আলোকসজ্জা, বিভিন্ন সড়কের মাঝখান ও দুপাশে ব্যানার ও ফেস্টুন। মন মাতানো বাহারি এ সাজসজ্জা নজর কাড়ছে রাজধানীবাসীর। অনেকে দাঁড়িয়ে দেখছেন, কেউ ছবি, সেলফিতে ব্যস্ত হয়ে পড়ছেন। অনেকেই আবার এগুলো বন্ধুদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে শেয়ার করছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।



সন্ধ্যায় মতিঝিল এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, শাপলা চত্বর মোড় সাজানো হয়েছে। এছাড়াও চত্বরে আয়োজন করা হয়েছে সংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। ছোট আকারের অনুষ্ঠান হলেও রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে সাধারণ মানুষে এসে ভিড় করছেন।মন ভড়ে অনুষ্ঠানটি উপভোগ করছেন।



ময়নুল নামের এক ব্যক্তি বিবার্তাকে জানান, তিনি রাজধানীর যাত্রাবাড়ি এলাকায় থাকেন। কিন্তু জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী হওয়াতে আজ বিকেলে তিনি ঘুরতে বের হয়েছেন। রাজধানী বিভিন্ন এলাকা যেভাবে সাজানো হয়েছে বিষয়টি দেখে তিনি খুবই মুগ্ধ। এছাড়াও সন্ধ্যায় মতিঝিল শাপলা চত্বরে গানের অনুষ্ঠানটিও তিনি প্রাণভরে উপভোগ করেছেন।



শুধু ময়নুল নয়, তার মত শত শত লোক রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে অনুষ্ঠান উপভোগ করতে দেখা গেছে। এছাড়া আরো কিছুক্ষণ ঢাকার আকাশে ফানুসের আগুন উড়তে দেখা গেছে। এছাড়াও পটকা আর আতশবাজির শব্দে প্রকম্পিত হয়েছে ঢাকার আকাশ।



এদিকে রাত আটটায় রাজধানীর ইন্দিরা রোড টিঅ্যান্ডটি মাঠে যুবলীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষের কর্মসূচি পালন করা হয়। ঠিক আটটায় আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে কেক কাটেন। পরে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে আকাশে ফানুস উড়ান। একই সময় আতশবাজিতে মনোমুগ্ধকর পরিবেশ সৃষ্টি হয়। এছাড়াও আতশবাজি ও ফানুস প্রদর্শনের সময় দলীয় নেতাকর্মী ও উপস্থিত জনতা একসঙ্গে ‘শুভ শুভ দিন বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন’, ‘জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু’বলে স্লোগান দিতে থাকেন।



আতশবাজির সময় বিকট শব্দ করে মাথার ওপর লেজার আলো ছড়িয়ে পড়ে। উপস্থিত দর্শনার্থীরা কানে হাত দিয়ে সে আলোকছটা উপভোগ করতে দেখা গেছে।


এ সময় মোশাররফ নামের এক দর্শনার্থী বিবার্তাকে বলেন, এ ধরনের আয়োজন আরো দেখেছি। তবে আজকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীতে এ আয়োজন খুবই ভালো লাগলো। আমি মুগ্ধ।



তবে অনুষ্ঠান শুরুতে আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ বক্তব্য রাখেন। এ সময় তিনি বলেন, আমাদের সৌভাগ্য আজ আমরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালন করতে পেরেছি। তবে আজকের দিনে অনেক কর্মসূচি দেয়া হয়েছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের জন্য কর্মসূচি ছোট করা হয়েছে। তবে এই রোগ কমার পর কর্মসূচি বড় আকাড়ে পালন করা হবে।



বঙ্গবন্ধুর হত্যা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শুধু ইতিহাসই নন, তিনি আমাদের জাতির পিতা। তিনি আজ বেঁচে থাকলে ১০০ বছর হত। কিন্তু ৫৫ বছর বয়সে উনাকে হত্যা করা হয়। এটা আমাদের জন্য দুভাগ্য। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে যেভাবে হত্যা করা হয়েছে; সেটা সবার জানা।


বিবার্তা/খলিল/জাহিদ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com