আওয়ামী লীগে ঐক্যের বিকল্প নেই
প্রকাশ : ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ১৬:৪৯
আওয়ামী লীগে ঐক্যের বিকল্প নেই
আরিফুর রহমান দোলন
আরিফুর রহমান দোলন
প্রিন্ট অ-অ+

আওয়ামী লীগের সভাপতি, বঙ্গবন্ধুকন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সিদ্ধান্তের প্রতি আমাদের সবার আস্থা, বিশ্বাস রাখতে হবে। কোনোভাবেই দলীয় ঐক্য-সংহতি বিনষ্ট হয় এমন কর্মকাণ্ড বা আচরণ করা কোনো প্রার্থী বা তার সমর্থকগোষ্ঠীর জন্য সমীচীন হবে না।


প্রাণপ্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনা সর্বশেষ গত ১৪ নভেম্বর গণভবনে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের উদ্দেশে বারবার একটি কথা বলেছেন, দলের ঐক্য সুদৃঢ় করতে হবে। যেকোনো মূল্যে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সরকার গঠন করে দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে আরও এগিয়ে নিতে হবে। এর অন্যথা করার কোনো সুযোগ নেই।


বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা আরও সুদৃঢ় করতে আগামী দিনে নেত্রী শেখ হাসিনাকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করাটাই আমাদের এক এবং একমাত্র লক্ষ্য হওয়া উচিত।


আমি ফরিদপুর-১ (আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারী ও মধুখালী) আসনে গত কয়েক বছর ধরে দলীয় নেতাকর্মী, সমর্থক ও সাধারণ জনগণের সঙ্গে রাজনৈতিক, সামাজিক এবং সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড প্রচার করা নিয়ে নানামুখি কাজ করেছি।


সমাজকল্যাণের উদ্দেশ্য নিয়েই রাজনীতি করেছি, করছি এবং করব। জনপ্রতিনিধি হলে আরও বেশি করে সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করা যায় - এই চিন্তা থেকেই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছি।


আমার মতো আরও কয়েকজন ফরিদপুর-১ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চান। নেতৃত্ব সৃষ্টিকর্তা কার ভাগ্যে রেখেছেন তিনিই জানেন। তবে আমি বিশ্বাস করি, বাংলাদেশে উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি একমাত্র আওয়ামী লীগের মাধ্যমেই শতভাগ নিশ্চিত করা সম্ভব। সে জন্য বঙ্গবন্ধুকন্যার হাতকে যত বেশি শক্তিশালী করা যাবে, ততই আমাদের মঙ্গল। ব্যক্তিগত চাওয়া-পাওয়ার চেয়ে দেশের জন্য যেটি মঙ্গল সেটি নিশ্চিত করতে হলে আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করা আমাদের একান্ত কর্তব্য। এ জন্য ঐক্যের কোনো বিকল্প নেই।


মনোনয়ন কে পাবে, আর কে পাবে না, সেটি দলের মনোনয়ন বোর্ড কয়েক দিনের মধ্যেই চূড়ান্ত করবে। পত্রপত্রিকা, টেলিভিশনেও জানিয়ে দেওয়া হবে। এই মুহূর্তে মনোনয়ন নিশ্চিত হয়ে গেছে, এ রকম প্রচার করে দলের ঐক্য-সংহতি নষ্ট করা সমীচীন হবে না।


জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকতে পারে। কিন্তু সেটা যেন প্রতিহিংসায় পরিণত না হয়। সবাইকে অনুরোধ করি, আপনারা দলীয় ঐক্য সংহত রাখার পক্ষে আচরণ করবেন। সেভাবেই কাজ করবেন। প্রার্থী যে-ই হোন না কেন, সবাই মিলেমিশে কাজ করাটা বিজয়ের জন্য বেশি জরুরি। এ কথা দলের সভানেত্রী-সাধারণ সম্পাদক বারবার বলছেন। আমরা যেন বিষয়টা এড়িয়ে না যাই। আওয়ামী লীগ একটি পরিবার। আমাদের মধ্যে কিছু বিষয় নিয়ে প্রতিযোগিতা, প্রতিদ্বন্দ্বিতা যতই থাকুক না কেন, শেষ বিচারে আমরা ঐক্যবদ্ধ - এই বার্তা ভোটারদের দিতে না পারলে মারাত্মক ভুল হবে। এই ভুল করা যাবে না।


সকল প্রার্থী এবং তাদের অনুসারী-অনুগামী সবাই সংযত আচরণ করবেন, আমি সবাইকে বিনীতভাবে এই অনুরোধ করি।


লেখক: সহ-সভাপতি, বাংলাদেশ কৃষক লীগ, কেন্দ্রীয় কমিটি ও সদস্য, ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগ।


বিবার্তা/হুমায়ুন/কামরুল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com