“ধর্ষণ ও নারীর প্রতি অত্যাচার মানবতাবিরোধী অপরাধ”
বিশেষ আইনে ধর্ষণের বিচার চাই: জনলোক
প্রকাশ : ০৮ অক্টোবর ২০২০, ১৪:২০
বিশেষ আইনে ধর্ষণের বিচার চাই: জনলোক
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

‘ধর্ষণ ও নারীর প্রতি অত্যাচার মানবতাবিরোধী অপরাধ’-হিসেবে অভিহিত করে বিশেষ আইনে ধর্ষণের বিচার দাবি করেছে সামাজিক সংগঠন জনলোক। একই সাথে সংগঠনটি বিচারের দাবিতে সাময়িক বিক্ষোভ প্রদর্শনের পাশাপাশি দেশের আপামর জনতার মাঝে নারীর প্রতি দৃষ্টিভঙ্গি বদলের জন্য সচেতনতা সৃষ্টির কাজ করতে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানানো হয়। সাম্প্রতিককালে একাধিক ধর্ষণ ও নারী নিপীড়নের ঘটনা প্রচারে আসার পর থেকে দেশব্যাপী যে ক্ষোভ ও বিক্ষোভের প্রকাশ ঘটেছে তার প্রতি সংহতি জানিয়ে সামাজিক সংগঠন জনলোক এই দাবি করেন।


আজ বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) জনলোকের কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটির পক্ষ থেকে দেশবাসির প্রতি ধর্ষণ ও নারী নিপীড়নের বিরুদ্ধে গণজাগরণ তৈরির উদাত্ত্ব আহ্বান জানানো হয়।


বিবৃতিতে বলা হয়, বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠনের গবেষণায় উঠে আসা ধর্ষণের পরিসংখ্যান ও বিচারের দীর্ঘসূত্রতা অত্যন্ত আশঙ্কাজনক। একদিকে দিনে গড়ে চারটি ধর্ষণ, সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও নিপীড়নের ঘটনা যখন বেড়েই চলছে, তখন অন্যদিকে ফৌজদারি আইনের মারপ্যাচে বেশিরভাগ অভিযুক্ত ও অপরাধী খালাস পাবার ঘটনা পরিস্থিতিকে ভায়াবহ করে তুলেছে।


জনলোক মনে করে, “ঘটনা ভাইরাল হলেই তদন্ত ও বিচারে গতি” পাবার যে সংস্কৃতি তৈরি হচ্ছে তাতে সমস্যার স্থায়ী সমাধান হবে না। বরং একটি সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার মধ্য দিয়েই ধর্ষণসহ নারীর প্রতি অত্যাচারের মতো ঘটনা বন্ধ করা সম্ভব। জনলোকের পক্ষ থেকে অবিলম্বে ধর্ষণ ও নারীর প্রতি নিপীড়নের ঘটনাকে মানবতাবিরোধী অপরাধ হিসেবে বিবেচনার মধ্য দিয়ে দেশে ধর্ষণবিরোধী বিশেষ আইন প্রণয়নের দাবি জানানো হয়েছে।


সারাদেশে সংগঠনের নেতাকর্মী-সংগঠকদের জেন্ডার বিষয়ক সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টির জন্য কাজ করার নির্দেশনা দিয়েছে জনলোক। সংগঠনটি মনে করে আইনের শাসন ও সামাজিক জাগরণের সমন্বয় ঘটলেই ধর্ষণ বন্ধ করা সম্ভব। জনলোক কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটির পক্ষ থেকে পাঠানো এই বিবৃতির মাধ্যমে সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া নোয়াখালীতে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনা ও সিলেটের সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনাসহ দায়েরকৃত সব অভিযোগের দ্রুত বিচারের পাশাপশি, নিপীড়িতের প্রতি আইনি ও সামাজিক সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছেন সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ।


বিবার্তা/এনকে

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com