ভোটের দিন সাংবাদিকদের জন্য ইসির নীতিমালা
প্রকাশ : ২৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৯:১৮
ভোটের দিন সাংবাদিকদের জন্য ইসির নীতিমালা
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সাংবাদিক নীতিমালা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সংস্থাটির জনসংযোগ শাখা শনিবার এই নীতিমালা প্রকাশ করেছে।


এই নীতিমালা অনুযায়ী ভোটের সময় সাংবাদিকরা মোটরসাইকেলের জন্য কোনো পাস পাবেন না। ভোটের সময় তিনদিন মোটরসাইকেল ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা থাকছে। ওই সময় সংবাদ সংগ্রহের জন্য কেউ মোটরসাইকেল ব্যবহার করতে পারবেন না।


ভোটের দিন একাধিক গণমাধ্যমের সাংবাদিক একসঙ্গে একই ভোটকক্ষে ঢুকতে পারবেন না। ভেতর থেকে নয় ভোটকক্ষ থেকে নিরাপদ দূরত্বে সংবাদ সরাসরি সম্প্রচার করা যাবে।


এদিকে ইসি ভোটের সময় মোটরসাইকেল চালনার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। এক্ষেত্রে ২৯ ডিসেম্বর মধ্যরাত থেকে ২ জানুয়ারি মধ্যরাত পর্যন্ত, ক্ষেত্র বিশেষ আরো বেশি সময় মোটরসাইকেল বা অনুরূপ যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকবে। ফলে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণের আগে পরে মোট চারদিন সাংবাদিকরা মোটরসাইকেল ব্যবহার করতে পারছেন না।


ইসির যুগ্ম সচিব (জনসংযোগ শাখা) এসএম আসাদুজ্জামানের স্বাক্ষরে (২১ ডিসেম্বর) জারি করা ওই নীতিমালায় সাংবাদিকদের জন্য এক ডজনের বেশি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।


নীতিমালাটি ইতোমধ্যে সংসদ নির্বাচনের সব রিটার্নিং অফিসারদের কাছে পাঠানো হয়েছে।


এতে বলা হয়েছে- ‘সুষ্ঠু, অবাধ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানে গণমাধ্যমের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। ভোটগ্রহণের দিনসহ বিভিন্ন সময়ে সাংবাদিকরা যাতে সহজে নির্বিঘ্নে নির্বাচনী সংবাদ সংগ্রহ করতে পারেন, সেজন্য সহযোগিতা করার প্রয়োজন রয়েছে। তবে অবশ্যই নির্বাচনের সময়, ভোটগ্রহণ ও ভোট গণনার সময় প্রযোজ্য বিধি-নিষেধ মেনে করতে হবে।


ইসির অনুমোদিত ব্যক্তি ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন। এজন্য ভোটকেন্দ্রের সংবাদ সংগ্রহের জন্য ইসি থেকে সাংবাদিকদের বিশেষ কার্ড সরবরাহ করা হবে। সংশ্লিষ্ট এলাকার রিটার্নিং অফিসাররা তাদের কার্ড দেবেন। রিটার্নিং অফিসার সহকারী রিটার্নিং অফিসারকে সংশ্লিষ্ট উপজেলার সাংবাদিকদের কার্ড দেয়ার ক্ষমতা দিতে পারবেন।


এছাড়া ঢাকা থেকে যেসব সাংবাদিক দেশের বিভিন্ন স্থানে নির্বাচনী সংবাদ সংগ্রহ করতে যাবেন, তাদের কার্ড ইসি থেকে দেয়া হবে। সাংবাদিক ও পর্যবেক্ষকরা ইসি অনুমোদিত এবং অনুমোদনসূচক স্টিকারযুক্ত যানবাহন ব্যবহার করতে পারবেন। মোটরসাইকেল ব্যবহার করার জন্য কোনো স্টিকার ইস্যু করা হবে না।’


নীতিমালায় নির্বাচনের সংবাদ সংগ্রহের সময় প্রার্থী বা কোনো রাজনৈতিক দলের পক্ষে বা বিপক্ষে যে কোনো ধরনের প্রচারণা বা বিদ্বেষমূলক প্রচারণা হতে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।


নীতিমালায় আরো বলা হয়েছে-


১. নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে দেয়া বৈধ কার্ডধারী সাংবাদিক সরাসরি ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন।


২. ভোটকেন্দ্রে প্রবেশের পর প্রিজাইডিং অফিসারকে অবহিত করে ভোটগ্রহণ কার্যক্রমের তথ্য সংগ্রহ, ছবি তোলা ও ভিডিওধারণ করতে পারবেন। তবে কোনোক্রমেই গোপন কক্ষের ছবি সংগ্রহ কিংবা ধারণ করতে পারবেন না।


৩. একইসঙ্গে একাধিক মিডিয়ার সাংবাদিক একই ভোটকক্ষে প্রবেশ করতে পারবেন না।


৪. ভোটকক্ষের ভেতর হতে কোনোভাবেই সরাসরি সম্প্রচার করা যাবে না।


৫. ভোটকেন্দ্রের ভেতর থেকে সরাসরি সম্প্রচার করতে হলে ভোটকক্ষ থেকে নিরাপদ দূরত্বে গিয়ে তা করতে হবে।


৬. কোনোক্রমেই ভোটগ্রহণ কার্যক্রমে বাধার সৃষ্টি করা যাবে না।


৭. সাংবাদিকরা ভোট গণনা কক্ষে ভোট গণনা দেখতে পারবেন, তবে সরাসরি সম্প্রচার করতে পারবেন না।


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com