নির্বাচন : আটকে গেল দেড় বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ!
প্রকাশ : ১০ নভেম্বর ২০১৮, ১৭:৫২
নির্বাচন : আটকে গেল দেড় বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ!
মৌসুমী ইসলাম
প্রিন্ট অ-অ+

সব কিছু ঠিকঠাক, দিনক্ষণও নির্ধারণ। কিন্তু বাধ সাধলো জাতীয় সংসদ নির্বাচন। পিছিয়ে গেল দেড় বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ প্রস্তাব। বেশ কয়েক মাস আগ থেকে কথা চালাচালি করে সময় ঠিক করা হলেও শেষ পর্যন্ত তা স্থগিত করে বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)।


বাংলাদেশের বিদ্যুৎ ও এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণ খাতে ১ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করতে চায় ভারতের অন্যতম শীর্ষ ব্যবসা ও বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান রিলায়েন্স। তারই ধারাবাহিকতায় গত ২২ অক্টোবর বৈঠকের দিনক্ষণ নির্ধারণ করে বিডা। বৈঠকটিতে উপস্থিত থাকার কথা ছিল রিলায়েন্স গ্রুপের কর্ণধার অনিল আম্বানির। কিন্তু একদিন আগে বৈঠকটি স্থগিত করে সরকার।


বিডা পরিচালক তৌহিদুর রহমান খান জানান, রিলায়েন্স গ্রুপের প্রধান নিজস্ব বিমানে আসার কথা ছিল। যেদিন তিনি আসবেন তার আগের দিন সরকারের শীর্ষ মহল থেকে তাঁকে নির্বাচনের পরে আসতে বলা হয়। তারা ১ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলারের প্রস্তাব নিয়ে আসার কথা ছিল। এলএনজি ও বিদ্যুতে বিনিয়োগে আগ্রহ দেখায় তারা।


তিনি বলেন, দেশের বিদ্যুত খাতে রিলায়েন্সের একটি বিনিয়োগ আছে। নতুন প্রস্তাবে চট্টগ্রামে গভীর সমুদ্রবন্দরের একটি এলএনজি টার্মিনাল করতে আগ্রহ দেখানো হয়। ওরা (রিলায়েন্স) চেয়েছিল মাটির উপরে টার্মিনাল নির্মাণ করতে, কিন্তু সরকারের এই বিষয়ে যাচাই-বাছাই কার্যক্রমও তেমন ছিল না। তবে বৈঠকটি স্থগিত করা মূলত নির্বাচনের কারণেই। কারণ, এখন এটি করলে বিতর্ক হবে বলে মনে করে সরকার।


আশার খবর হচ্ছে, গত মাসে চীনের কুনমিং থেকে বাংলাদেশে আসে একটি ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দল। তারা ১ দশমিক ৩ বিলিয়েন ডলার বিনিয়োগে আগ্রহী। প্রতিনিধি দলটি বিডা-র সঙ্গে বৈঠক করে। এতে বিনিয়োগের সম্ভাব্যতা নিশ্চিত হয়ে গেছে।


চীনের আরেকটি প্রতিষ্ঠান ৭০০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ প্রস্তাব দেয়। তারা উৎপাদন করতে চায় লিথিয়াম ব্যাটারি। চীন-মার্কিন বাণিজ্যযুদ্ধের ফলে নতুন সম্ভাবনা দেখছে বাংলাদেশ। বিডা-র এই কর্মকর্তা মনে করেন, তৈরী পোশাক খাতে ১৫৮ বিলিয়ন ডলার রফতানি করে চীন। তার ৭০ ভাগের গন্তব্যই যুক্তরাষ্ট্র। এখন চীনের সঙ্গে বাণিজ্যবিবাদে আরএমজির ওপর ৮ শতাংশ শুল্ক বসিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্র এখন চীন থেকে আমদানি করে লাভবান হবে না। তাই এখন চীন চাচ্ছে তাদের শিল্প-কারখানা সরিয়ে নিতে। এক্ষেত্রে চীনা উদ্যোক্তাদের শিল্প স্থাপনে পছন্দের দেশ- বাংলাদেশ, ভারত, ভিয়েতনাম, পাকিস্তান ও শ্রীলংকা। শুধু তৈরী পোশাক খাতই নয়, যেসব পণ্যে যুক্তরাষ্ট্র উচ্চ শুল্কারোপ করেছে সবগুলোই স্থানান্তর করবে চীন যার বাজার হচ্ছে ৬০০ বিলিয়ন ডলারের।


সাধারণত নির্বাচনকে সামনে রেখে শ্লথ হয় দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ। কমে যায় উৎপাদন। নির্বাচনকে ঘিরে এবার রাজনৈতিক সংঘাত না থাকলেও শঙ্কা আছে।


উদ্যোক্তারা জানান, নির্বাচনের আগের দুই-তিন মাসে কাঙ্ক্ষিত বিনিয়োগ থাকে না। নির্বাচনের আগে কোনো বিদেশি বিনিয়োগ প্রস্তাব নেই বলে জানিয়েছে বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ।


বিবার্তা/মৌসুমী/হুমায়ুন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com