‘জয় শ্রীরাম’ এখন প্রহারের মন্ত্র: অমর্ত্য সেন
প্রকাশ : ০৬ জুলাই ২০১৯, ০৯:০৯
‘জয় শ্রীরাম’ এখন প্রহারের মন্ত্র: অমর্ত্য সেন
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান নিয়ে এবার মুখ খুললেন নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন। তিনি বলেন, লোককে প্রহার করতে হলে এখন এ সব বলা হচ্ছে। বাংলায় এসব ইদানীংকালের আমদানি। বঙ্গ সংস্কৃতিতে কোনো কালেই এ ধরনের স্লোগানের কোনো জায়গা ছিল না।


ভারতের পশ্চিমবঙ্গের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে শুক্রবার বিকেলে এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানের বিষয় ছিল,‘স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে তার স্মৃতিতে কলকাতা’। এ দিন সকালেও এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন তিনি। সেখানেও বঙ্গ সংস্কৃতি এবং হিন্দুত্ববাদের ‘আস্ফালন’ নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন অমর্ত্য সেন।


তিনি বলেন, যখন শুনি কাউকে রিকশা থেকে নামিয়ে কিছু একটা বুলি আওড়াতে বলা হচ্ছে এবং তিনি বলেননি বলে মাথায় লাঠি মারা হচ্ছে, তখন শঙ্কা হয়। বিভিন্ন জাত, বিভিন্ন ধর্ম, বিভিন্ন গোষ্ঠীর মধ্যে পার্থক্য আমরা রাখতে দিতে চাই না। ইদানীং এটা বেড়েছে।


বিকেলে যাদবপুরের সভায় ফের সে প্রসঙ্গে ফেরেন অমর্ত্য সেন। তার কথায়, আজ যখন শুনি বিশেষ বিশেষ সম্প্রদায়ের মানুষ ভীত, শঙ্কিত হয়ে রাস্তায় বেরোন এই শহরে, তখন আমার গর্বের শহরকে চিনতে পারি না। এ সব নিয়ে প্রশ্ন তোলা দরকার।


বক্তৃতা শেষে প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি বলেন, জয় শ্রীরাম, রাম নবমী- এসব কোনো কিছুর সঙ্গেই বাঙালির কোনো যোগ নেই। এখানে দুর্গাপুজো হয়। বস্তুত, নতুন এই সংস্কৃতি আমদানির পিছনে বিভেদের রাজনীতি কাজ করছে বলেও ইঙ্গিত দেন তিনি।


তার মতে, এক সময় হিন্দু মহাসভা এ ধরনের সংস্কৃতির আমদানি ঘটানোর চেষ্টা করেছিল বাংলায়। বিভেদের রাজনীতির বাতাবরণ তৈরি করার চেষ্টা করেছিল। এখন বিজেপি ঠিক সেই একই উদ্দেশ্যে বাংলায় ‘জয় শ্রীরাম’ সংস্কৃতির আমদানি ঘটানোর চেষ্টা করছে। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

বি-৮, ইউরেকা হোমস, ২/এফ/১, 

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com