এক বছরে মোংলা বন্দরে ৩১৯ কোটি টাকা রাজস্ব আয়
প্রকাশ : ১০ জুলাই ২০২৪, ১৫:৪৫
এক বছরে মোংলা বন্দরে ৩১৯ কোটি টাকা রাজস্ব আয়
মোংলা প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম আন্তর্জাতিক সমুদ্র বন্দর মোংলার আধুনিকায়ন ও বর্তমান সরকারের সুদূরপ্রসারী বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন হওয়ায় বন্দরে বেশি সংখ্যক জাহাজ আগমনের পাশাপাশি বিদেশি রিকন্ডিশন গাড়ি আমদানি, কনটেইনার হ্যান্ডলিং, কার্গো ক্যান্ডলিং ও রাজস্ব আদায়ে ২০২৩-২০২৪ অর্থবছরে মোংলা বন্দরের সাফল্য ছিল চোখে পড়ার মত।


পদ্মা সেতু ও মোংলা-খুলনা রেল নেটওয়ার্কে মোংলা বন্দর যুক্ত হওয়ায় উন্নত হিন্টারল্যান্ড যোগাযোগ ও অবকাঠামো সক্ষমতার সুযোগে পণ্য আমদানি-রপ্তানিতে মোংলা বন্দরের ওপর ব্যবহারকারীদের নির্ভরতা দ্রুত বাড়ছে। অতীতের যে কোন সময়ের তুলনায় বন্দরটিতে বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজের আগমন বেড়েছে। ভারতের পাশাপাশি নেপাল ও ভুটান নিয়মিত মোংলা বন্দর ব্যবহার শুরু করলে বন্দরে জাহাজ আরো বাড়বে। কাজে আসবে বন্দরের বর্ধিত সক্ষমতা।


বন্দর কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজের আগমন বৃদ্ধি পাওয়ায় মোংলা বন্দরের অপারেশনাল কার্যক্রমে কর্মচঞ্চলতা বেড়েছে। এক বছরের ব্যবধানে বন্দরের রাজস্ব আয় বেড়েছে ১৭ কোটি টাকা।


বন্দর কর্তৃপক্ষের উপ-পরিচালক (জনসংযোগ) মো. মাকরুজ্জামান জানান, ২০২৩-২৪ অর্থবছরে বন্দরে ৮৪০ টি বিদেশি জাহাজ আনার লক্ষ্যমাত্রা ছিল। ৬টি বেড়ে এ অর্থবছরে মোংলায় জাহাজ এসেছে ৮৪৬টি। ২০২৩-২৪ অর্থবছরে মোংলা বন্দর রাজস্ব আয় করেছে ৩১৯ কোটি টাকা। ২০২২-২৩ অর্থবছরে বন্দরের রাজস্ব আয় ছিল ৩০২ কোটি টাকা। এক বছরে আয় বেড়েছে ১৭ কোটি টাকা। বিদায়ী অর্থবছরে বন্দরে কনটেইনার জাহাজ আসার সংখ্যা বেড়েছে জানিয়ে এই কর্মকর্তা বলেন, পদ্মা সেতু চালু হওয়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থার সবচেয়ে বেশি সুফল পাচ্ছে মোংলা বন্দর। ২০২৩-২৪ অর্থবছরে এ বন্দর দিয়ে মোট ৩১ হাজার ৪৪ টিইইউজ কনটেইনার হ্যান্ডলিং করা হয়েছে। যা ২০২২-২৩ অর্থবছরের তুলনায় ৪ হাজার ৪৬১ টিইইউজ বেশি। ওই বছর বন্দরে কনটেইনার হ্যান্ডলিংয়ের পরিমাণ ছিল ২৬ হাজার ৫৮৩ টিইইউজ।


এছাড়াও বিদায়ী অর্থবছরে বন্দরে কার্গো হ্যান্ডলিং বেড়েছে। ২০২২-২৩ অর্থবছরে যেখানে কার্গো হ্যান্ডলিং করা হয়েছিল ৯৯.০৫ লক্ষ মেট্রিকটন সেখানে ২০২৩-২৪ অর্থবছরে কার্গো হ্যান্ডলিং করা হয় ১০৮. ৬৫ লক্ষ মেট্রিকটন। দেশে মোট আমদানির ৬০ শতাংশ রিকন্ডিশন গাড়ি মোংলা বন্দর দিয়ে খালাস করা হয়। বিদেশ থেকে আমদানি করা বেশিরভাগ গাড়ি মোংলা বন্দরের মাধ্যমে খালাস হওয়ায় বেড়েছে রাজস্ব আয়।


২০২৩-২৪ অর্থবছরে বন্দরে মোট গাড়ি আমদানি করা হয়েছে ১৫ হাজার ৩৪০টি। সব মিলিয়ে বিগত বছরগুলোর তুলনায় সবগুলো সূচকেই মোংলা বন্দরের অবস্থান উর্ধ্বমুখী।


মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল শাহীন রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সুদক্ষ নেতৃত্ব ও নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে মোংলা বন্দরের গতিশীলতা বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০২৩-২৪ অর্থবছরে এ বন্দর দিয়ে ৮৪৬টি বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজ আগমন করে। রিকন্ডিশন গাড়ি আমদানি হয় ১৫ হাজার ৩৪০ ইউনিট। এ সময়ে কার্গো হ্যান্ডলিং কনটেইনার হ্যান্ডলিং বৃদ্ধি পেয়েছে। সকল সূচক পজিটিভ ধারায় থাকার ফলে বন্দরে নিট মুনাফা ২৮.৫৫% বৃদ্ধি পেয়েছে।


তিনি আরো বলেন, আপগ্রেডেশন অব মোংলা পোর্ট প্রকল্পের আওতায় অনুমোদিত উন্নয়ন প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন হলে মোংলা বন্দরের সক্ষমতা আরো বাড়বে।


বিবার্তা/জাহিদ/মাসুম

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

এফ হক টাওয়ার (লেভেল-৮)

১০৭, বীর উত্তম সি আর দত্ত রোড, ঢাকা- ১২০৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com