চলে গেলেন গায়ক-নাট্যকার শান্তনু বিশ্বাস
প্রকাশ : ১৩ জুলাই ২০১৯, ০৮:৪৯
চলে গেলেন গায়ক-নাট্যকার শান্তনু বিশ্বাস
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

চট্টগ্রামের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের প্রিয়মুখ শান্তনু বিশ্বাস গায়ক-লেখক ও নাট্য ব্যক্তিত্ব শান্তনু বিশ্বাস মারা গেছেন।


শুক্রবার (১২জুলাই) ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে বেলা ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর।


পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে চট্টগ্রামের একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য বৃহস্পতিবার ঢাকায় আনা হয়। একদিন পর শুক্রবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি মারা যান।


সংস্কৃতিকর্মী কামরুল হাসান বাদল গণমাধ্যমকে জানান, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে বেলা ৩টার দিকে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন শান্তনু বিশ্বাস।


তিনি আরও জানান, শান্তনু বিশ্বাসের মরদেহ শনিবার বেলা ১১ টার দিকে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেয়া হবে। বিকেল ৪টায় নেয়া হবে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে। বিদেশে থাকা দুই মেয়ে দেশে ফিরলে তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।


গুণী এ শিল্পীর স্ত্রী ও দুই মেয়ে রয়েছে। শান্তনু বিশ্বাস দেশের অন্যতম শীর্ষ ব্যবসায়িক গ্রুপ ইস্পাহানী শিল্প গোষ্ঠীর চিফ অপারেটিং অফিসার ছিলেন। তিনি টি ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের নির্বাহী কমিটিরও সভাপতি।


শিল্পী শান্তনু বিশ্বাসের চারটি একক ও দুটি যৌথ অ্যালবাম রয়েছে। তিনি দেশে ও দেশের বাইরে বিভিন্ন সময়ে আমন্ত্রিত শিল্পী হিসেবে গান পরিবেশন করতেন।


১৯৫৪ সালে জন্মগ্রহণ করা শান্তনু বিশ্বাস থিয়েটারের সঙ্গে যুক্ত হয়ে নাটক লেখা, অভিনয় ও নির্দেশনা শুরু করেন। প্রথম দিকে যুক্ত ছিলেন গণায়ন ও অঙ্গন থিয়েটার ইউনিটের সঙ্গে। পরে নিজেই প্রতিষ্ঠা করেন কালপুরুষ নাট্য দল।


মুক্তিযুদ্ধের ওপর তার রচিত ভিন্ন আঙ্গিকের নাটক ‘ইনফরমার’ দেশ-বিদেশের বিভিন্ন মঞ্চে অভিনীত হয়। তার লেখা নাটকের মধ্যে রয়েছে-কালো গোলাপের দেশ, নবজন্ম, দপ্তরী রাজ দপ্তরে, নবজন্ম, ভবঘুরে ও নির্ভার।


বিভিন্ন সময় নাটকেও নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি। তার নির্দেশনায় মঞ্চস্থ হয়েছে জুলিয়াস সিজারের শেষ সাত দিন, মানুষ ও নিয়তি, মৃণালের চিঠি উল্লেখযোগ্য নাটক। তার লেখা নাটকের নাম নাট্যত্রয়ী। খোলাপিঠ নামে তার একটি গানের বইও প্রকাশিত হয়।


শান্তনু বিশ্বাসের স্ত্রী শুভ্রা বিশ্বাসও নাট্যশিল্পী ও নাট্যনির্দেশক।


২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রকাশিত হয় শান্তনু বিশ্বাসের গানের বই ‘গানের কবিতা- খোলাপিঠ’। চিরকেলে গান নিয়ে শান্তনু বিশ্বাসের বোঝাপড়া।


স্বাধীনতা উত্তরকালে তার বেশ কটি মিশ্র অ্যালবাম বের হয়। ২০০৬ সালে এটিএন মিউজিক থেকে তার কথা ও সুরে সুবীর নন্দী ও ইন্দ্রাণী সেনের দ্বৈত অ্যালবাম বের হয়। ২০০৭ সালে ইমেপ্রস অডিও ভিশন থেকে বের হয় ‘ঝিনুক ঝিনুক মন’- এটি অরুণিমা ও শান্তনু বিশ্বাসের যৌথ সংকলন।


২০০৮ সালে অগ্নিবীণার ব্যানারে বের হয় বাপ্পা মজুমদারের সঙ্গে যৌথ অ্যালবাম ‘বহমান’। ২০০৯ সালে বেরোয় তার প্রথম একক অ্যালবাম ‘চিরকুট’। ২০১১ সালে বেরোয় দ্বিতীয় একক অ্যালবাম ‘পোস্টম্যান’ এবং ২০১৪ সালের মার্চে বেরোয় ‘খড়কুটো’ তৃতীয় একক অ্যালবাম। ২০১৮ সালে ‘গানের কবিতা খোলাপিঠ’র সঙ্গে নাট্যগ্রন্থ ‘নির্ভার’ও প্রকাশিত হয়।


তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন ঢাকা ও চট্টগ্রামের বিশিষ্টজনরা।


বিবার্তা/রবি/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

বি-৮, ইউরেকা হোমস, ২/এফ/১, 

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com