উদ্যোক্তাদের এক কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণ সহায়তার আশ্বাস
প্রকাশ : ১১ এপ্রিল ২০২১, ১৬:২৪
উদ্যোক্তাদের এক কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণ সহায়তার আশ্বাস
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

ন্যূনতম মূল্যে বিমানে ই-কমার্সের পণ্য পরিবহন এবং ইক্যুইটি শেয়ার মডেলে ই-ক্যাব সদস্যভুক্ত শতাধিক উদ্যোক্তাদের এক কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণ সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। একইসঙ্গে শিগগিরই দেশের প্রতিটি পরিবারকে ফিক্সড ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটে সংযুক্ত করার পরিকল্পনা বাস্তবায়নের কথাও তুলে ধরেছেন তিনি।


রবিবার (১১ এপ্রিল) দেশের প্রান্তিক পর্যায় থেকে বিশ্বজুড়ে ই-কমার্সকে সংযুক্ত করার উদ্দেশ্যে নীতি-নির্ধারণে পলিসি ডায়ালগ করেছে ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব)। অংশীজনদের অংশগ্রহণে এই ডিজিটাল পলিসি ডায়ালগের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।


পলক বলেন, রুরাল টু গ্লোবালের আগে রুরাল টু ন্যাশনাল নীতিমালা করে তা বাস্তবায়ন করা উচিত। এছাড়াও উন্নত অর্থনীতির জ্ঞানভিত্তিক সমাজ গঠনে নতুন নতুন উদ্ভাবনকে অনুপ্রাণিত করার আহ্বান জানিয়ে শিল্পমন্ত্রণালয়ের স্ট্যান্ডারাইজ পণ্য তালিকার পরিসর বাড়ানো এবং বিএসটিআই সনদ প্রাপ্তিকে উদারীকরণের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। এসময় ই-গভর্নমেন্টই গুড গভর্নেন্স উল্লেখ করে মানুষের চাহিদা পূরণে ই-কমার্স একটি যুগপৎ ঠিকানা বলে মন্তব্য করেন তিনি।


প্রতিমন্ত্রী বলেন, এক কোটি অনাবাসিক বাংলাদেশীসহ ৪০ কেটি বাংলা ভাষা-ভাষির কাছে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের পণ্য যেন বসে থাকা বিমানগুলোর মাধ্যমে ঢাকা কিংবা মালোশিয়ার মতো বিদেশে নিয়ে যাওয়া যায়। এজন্য বিমান ও ই-ক্যাবের মধ্যে যোগসূত্র প্রতিষ্ঠা ও বিশেষ মূল্যছাড়ের ব্যবস্থা আমি করবো।


ই-ক্যাব সভাপতি শমী কায়সারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডব্লিউটিও সেলের মহাপরিচালক হাফিজুর রহমান। ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।


ই-কমার্স ইতোমধ্যেই দেশে রেঁনেসা এনিয়ে দিয়েছে মন্তব্য করে ক্রেতা ও বিক্রেতার মধ্যে ভারসাম্য রক্ষায় এস্কো পেমেন্ট সিস্টেমের ওপর গুরুত্বারোপ করেন এটুআই নীতি উপদেষ্টা আনীর চৌধুরী।


বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর বলেন, কোভিড ১৯ এর লকডাউন ই-কমার্সের জন্য শাপে বর উল্লেখ করে এই খাতের খারপ প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা করণ এবং গ্রিভেন্স পলিসি বাস্তবায়নের পরামর্শ দেন।


ভার্চুয়াল এই আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন ই-ক্যাবের রুরাল স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান ইব্রাহিম খলিল, বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাপরিচালক আবু ফারাহ নাসের, বিএফটিআইয়ের প্রধান নির্বাহী ওবায়দুল আযম, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) মহাপরিচালক (ডিজি) শাহ মোহাম্মদ মাহবুব, বিল্ড এর সিইও ফেরদৌস আরা বেগম, মাস্টারকার্ডের কান্ট্রি ম্যানেজার সাইয়েদ মোহাম্মদ কামাল, এফএনএফয়-এর কান্ট্রি ম্যানেজার ড. নাজমুল হোসাইন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এসোসিয়েট প্রফেসর বিএম মাইনুল হাসান এবং চালডাল সিইও জিয়া আশরাফ।


অধিবেশনের শেষে ই-ক্যাব মহাসচিব মোহাম্মাদ আব্দুল ওয়াহেদ তমাল অংশগ্রহণকারীদের ধন্যবাদ জানিয়ে ক্রসবর্ডার ই-কমার্স-এর বাধাগুলো কাটিয়ে নীতিবাস্তবায়নের দাবি জানান।


বিবার্তা/গমেজ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com