কুষ্টিয়ায় কুঠিবাড়ি রক্ষা বাঁধে ধস
প্রকাশ : ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৪১
কুষ্টিয়ায় কুঠিবাড়ি রক্ষা বাঁধে ধস
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

নির্মাণের মাত্র দু’মাসের মাথায় ধসে গেল কুষ্টিয়ার শিলাইদহ কুঠিবাড়ী রক্ষা বাঁধ। প্রমত্তা পদ্মার ভাঙ্গন থেকে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কুঠিবাড়ি রক্ষায় প্রায় ২০০ কোটি টাকা ব্যয়ে বাধটি নির্মাণ করে সরকার।


রবিবার দুপুর থেকে কয়া ইউনিয়নের কালোয়া অংশে ভয়াবহ ভাঙ্গনে নদীগর্ভে বিলিন হয়ে যেতে থাকে রক্ষা বাঁধ।


প্রকল্পটি নিয়ে শুরু থেকে নানা অভিযোগ করে আসছিল জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয়রা। ব্যাপক অনিয়ম-দুর্নীতির মধ্য দিয়ে অসম্পূর্ণ প্রকল্পকে সম্পূর্ণ দেখিয়ে কাগজে কলমে প্রকল্পটি হস্তান্তর করে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।


পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা যায়, কুষ্টিয়া বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড তত্ত্বাবধায়নে ‘কুষ্টিয়া জেলায় বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কুঠিবাড়ী সংলগ্ন এবং পার্শ্ববর্তী এলাকায় পদ্মা নদীর ডান তীর সংরক্ষণ’ প্রকল্পের ৩ হাজার ৭২০ মিটার বাঁধ নির্মাণ করে সরকার। প্রকল্প মেয়াদ ৩১মে থাকলেও অসম্পূর্ণ প্রকল্পকে সম্পূর্ণ হয়েছে দেখিয়ে ৩০জুন কাগজে কলমে হস্তান্তরের মধ্যদিয়ে শিলাইদহ কুঠিবাড়ি রক্ষাবাঁধ প্রকল্পটি সমাপ্ত ঘোষণা করে ‘ওয়েষ্টার্ন ইঞ্জিয়ারিং কোম্পানি’ নামে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ও কুষ্টিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ড।


যদিও এ প্রকল্পের অর্থব্যয়ে তৈরী ১৩ লাখ ব্লকের মধ্যে ২ লাখ ৫০হাজার ব্লক অব্যবহৃত পড়ে আছে। অথচ পদ্মা নদীতে পানি বৃদ্ধি পেয়ে মাত্র দু’মাস আগে নির্মিত বাঁধে ভাঙ্গন সৃষ্টি হয়েছে।


স্থানীয় কয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউল ইসলাম স্বপন বলেন, রবিবার দুপুরে কুঠিবাড়ি রক্ষা বাঁধের কয়া ইউনিয়নের কালুয়া অংশে হঠাৎ ভাঙ্গন দেখা দেয়। মুহুর্তেই প্রায় ৫০ মিটার বাঁধ ভেঙ্গে নদীগর্ভে চলে যায়। যেভাবে ভাঙ্গন শুরু হয়েছে, তাতে মনে হচ্ছে কয়েক দিনের মধ্যে পুরো বাঁধ ভেঙ্গে নদীগর্ভে চলে যাবে।



তিনি অভিযোগ করে বলেন, নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার, নির্ধারিত পরিকল্পনা ও নঁকশা বহির্ভূত, প্রয়োজনীয় সামগ্রী অব্যবহৃত রাখা, ব্যয়িত অর্থের অপচয়, অনিয়ম ও দুর্নীতির মধ্যদিয়ে অসম্পূর্ণ প্রকল্প সম্পন্ন দেখিয়ে হস্তান্তর করে প্রভাবশালী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।


এ বিষয়ে কুঠিবাড়ি রক্ষা বাঁধ প্রকল্পের পরিচালক প্রকৌশলী মনিরুজ্জামান জানান, কালোয়া এলাকার কিছু অংশ ভেঙ্গে যাওয়ার সংবাদ পেয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ড কুষ্টিয়ার সকল কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ক্ষতিগ্রস্ত অংশে তাৎক্ষণিক ভাঙ্গন রোধে জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে।


বিবার্তা/শরীফুল/সোহান

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com