হাতীবান্ধায় স্বোচ্ছাশ্রমে বাঁধ নির্মাণ
প্রকাশ : ১৩ আগস্ট ২০১৮, ১০:৩৫
হাতীবান্ধায় স্বোচ্ছাশ্রমে বাঁধ নির্মাণ
লালমনিরহাট প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় তিস্তা নদীর পানির তোড়ে ভেঙে গেছে বাঁধা। এতে করে লোকালয়ে পানি ঢুকে পড়ায় রোপা আমন ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তাই গ্রামবাসী স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে ভেঙে যাওয়া ওই বাঁধ নির্মাণের কাজ করছেন।


হাতীবান্ধা উপজেলা ত্রাণ ও প্রকল্প কর্মকর্তা ফেরদৌস আহমেদ জানান, তিস্তা নদীর পানির তোড়ে উপজেলার সিংঙ্গীমারী ইউনিয়নের ধুবনী ও মধ্য ধুবনী গ্রামে চারটি স্থানে বাঁধ ভেঙে গেছে। স্থানীয়রা ভেঙে যাওয়া বাঁধ নিমার্ণে বাঁশ ও বালুর বস্তা ফেলে তা রক্ষার চেষ্টা করছেন। এজন্য উপজেলা প্রশাসন থেকে গ্রামবাসীদের বস্তা সরবরাহ করা হয়েছে।


সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা যায়, গ্রামের লোকজন স্থানীয়ভাবে বাঁশ সংগ্রহ করে ভাঙা স্থানে খুঁটি বসাচ্ছেন। আবার কেউ কেউ বালুর বস্তা ফেলছেন সেখানে।


এ সময় মধ্য ধুবনী গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল আউয়াল বলেন, প্রতিবছর বর্ষা এলেই তাদের ওই বাঁধের কোনো না কোনো স্থান ভেঙে যাচ্ছে। এতে করে সিংঙ্গীমারীসহ অন্তত তিনটি ইউনিয়নে পানি ঢুকে ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে। এ বছরও বাঁধ ভেঙে যাওয়ায় রোপা আমন ক্ষেতের ক্ষতি হয়েছে।



হাতীবান্ধা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন বাঁধ ভেঙে যাওয়ায় রোপা আমন ক্ষেতের ক্ষয়ক্ষতির বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, মাঠ পর্যায়ে ক্ষতি নিরূপনে কাজ চলছে।
হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন বাচ্চু বলেন, ধুবনী এলাকায় বারবার বাঁধ ভেঙে যাওয়ার বিষয়টি পানি উন্নয়ন বোর্ডকে অবহিত করা হলেও সংশ্লিষ্ট দফতর থেকে কোনো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে স্থানীয়রা স্বেচ্ছাশ্রমে ভেঙে যাওয়া বাঁধ নির্মাণ করছে।


তবে হাতীবান্ধাবাসীকে রক্ষায় উক্তস্থানে নতুন করে বাঁধ নির্মাণের পরিকল্পনা সরকার হাতে নিয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।


বিবার্তা/জিন্না/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com