দেড়মাস পরে ডুবে যাওয়া জাহাজ উদ্ধার
প্রকাশ : ৩১ মে ২০১৮, ১২:০৯
দেড়মাস পরে ডুবে যাওয়া জাহাজ উদ্ধার
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

সুন্দরবনের ভেতরে কয়লা নিয়ে ডুবে যাওয়া লাইটার জাহাজ এমভি বিলাস দেড় মাস পরে কেটে দুই খণ্ড করে টেনে তোলা হয়েছে।


বুধবার রাতে মংলা বন্দর চ্যানেলের হারবাড়িয়া এলাকা থেকে তুলে উপকূলের কাইনমারী এলাকায় রাখা হয়েছে জাহাজটিকে।


এমভি বিলাসের ব্যবস্থাপক (অপারেশন) লালন হাওলাদার বলেন, জাহাজটি ডুবে যাওয়ার পর থেকে আমরা তোলার জন্য চেষ্টা করছিলাম। ২৪ এপ্রিল আমরা উদ্ধারকারী প্রতিষ্ঠান হোসেন স্যালভেস কোম্পানির সঙ্গে এ ব্যাপারে চুক্তি করি। এরপর থেকে প্রথমে জাহাজের কয়লা উত্তোলন করা হয়। কয়লা উত্তোলন করে আমরা নওয়াপাড়ায় নিয়ে রেখেছি। হোসেন স্যালভেসের ২৪ জন এবং আমাদের (মালিকপক্ষের) ১২ জন ডুবুরিসহ অনেকের চেষ্টায় আমরা জাহাজটি উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি।


বাংলাদেশ নৌ-যান শ্রমিক ফেডারেশনের সহ-সভাপতি বাহারুল ইসলাম বাহার জানান, কয়লা অপসারণ করে কার্গোটি উদ্ধার করা হয়েছে। নৌ-পরিবহন মালিকপক্ষ, নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন ও কার্গো মালিকপক্ষের সবাই জাহাজটি পরিদর্শন করেছেন।


মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার কামান্ডার মো. ওলিউল্লাহ বলেন, ডুবন্ত জাহাজ এমভি বিলাসকে দুই টুকরো করে নদী থেকে টেনে তুলেছে আমদানিকারকরা। জাহাজ থেকে পানি-পলিমাটি মিশ্রিত কয়লা পাম্পের মাধ্যমে উত্তোলন করে ৪০০ টনের একটি বাল্কহেডে করে যশোরের নওয়াপাড়া নিয়ে গেছে আমদানিকারকরা।


মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কমডোর এ কে এম ফারুক হাসান বলেন, বর্তমান প্রেক্ষাপটে উদ্ধারকারী জাহাজ কেনা জরুরি হয়ে পড়েছে। এজন্য আমরা একটি প্রকল্প তৈরি করছি। যতদ্রুত সম্ভব উদ্ধারকারী জাহাজ কেনার পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের।


সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মাহামুদুল হাসান জানান, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে মালিকপক্ষ জাহাজটি উদ্ধার করতে পারেনি। ফলে সুন্দরবনের ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিপূরণ প্রাপ্তির জন্য আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করবো।


এ ব্যাপারে মোংলা পৌরসভার মেয়র ও বন্দরের মাস্টার স্টিভিডরস জুলফিকার আলী বলেন, মোংলা বন্দরে দেশি-বিদেশি জাহাজের আগমন বেড়েছে। সে কারণে দুর্ঘটনার আশঙ্কাও বেড়ে গেছে। কিন্তু খুলনায় বিআইডব্লিউটিএ কিংবা মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের উদ্ধারকারী কোনো জলযান নেই। প্রয়োজন হলে নারায়ণগঞ্জ থেকে বিআইডব্লিউটিএ’র উদ্ধারকারী জাহাজ নিয়ে আসা হয়।


বিবার্তা/নুর

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com