ইতিহাসের সেরা সময় অতিবাহিত করছে আওয়ামী লীগ
প্রকাশ : ১২ মে ২০১৯, ১৪:১৫
ইতিহাসের সেরা সময় অতিবাহিত করছে আওয়ামী লীগ
আকরাম হোসেন
প্রিন্ট অ-অ+

গণ-মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আওয়ামী লীগের জন্ম হয়। জন্মের পর থেকে রাজপথের আন্দোলন, সংগ্রমের মধ্য দিয়ে নানা প্রতিকূলতা ও প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করে ৭০ বছর পার করছে দলটি।


বলা হচ্ছে, বর্তমানে ইতিহাসের সেরা সময় অতিবাহিত করছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। পর পর তিনবার সরকার গঠন করে রয়েছে ফুরফুরে মেজাজে।


বিএনপি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জন করার পর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা সৃষ্টি হয়। অবশেষে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে।


কিন্তু ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার পর ঐক্যফ্রন্টের নেতারা এই নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখান করেন। এমনকি নির্বাচনে নানা ধরনের অনিয়মের অভিযোগ তুলেন এবং ধানের শীষে যেসব প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন তাদের শপথ গ্রহণ না করার জন্য নিদের্শনা দেয়া হয়।


তবে ঐক্যফ্রন্টের এমন অভিযোগ তোয়াক্কা না করেই আওয়ামী লীগ টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠন করে। শুধু তাই নয়, শক্তিশালী মন্ত্রীসভা গঠন করে দেশের উন্নয়ন আরো কয়েকগুন বৃদ্ধি করা হয়েছে।


এদিকে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচিত সংসদ সদস্যরা শপথ না নেয়ার যে ঘোষণা দিয়েছেন সেই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে সুকৌশলে একে একে মোট ছয়জন শপথ নিয়েছেন। তবে অদৃশ্য কারণে বিএনপির ভারপাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শপথ গ্রহণ করেননি। কিন্তু মির্জা ফখরুল শপথ না নেয়াতে সেই শূন্য আসনে ফের নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছেন নির্বাচন কমিশন। এক্ষেতে আওয়ামী লীগের সামনে আন্তর্জাতিক ও অভ্যান্তরীণ কোনো ধরণের চাপই থাকছে না।


এদিকে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে সুস্থ হয়ে দেশে ফিরছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ ওবায়দুল কাদের। সব মিলে আওয়ামী লীগ বর্তমানে ইতিহাসের সব থেকে সেরা অবস্থানে রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।


এদিকে ১৩ বছর ক্ষমতার বাইরে থাকা আওয়ামী লীগের শক্তিশালী প্রতিপক্ষ বিএনপি ক্রমশই দুর্বল হয়ে পরেছে। এছাড়াও বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দল ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টেও ভাঙনের সুর লেগেছে। ইতোমধ্যে ২০ দলীয় জোট ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান আন্দালিব রহমান পার্থ।


অন্যদিকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে থাকা অসঙ্গতি আগামী এক মাসের মধ্যে নিরসন করা না হলে জোট ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী। যার ফলে বর্তমানে আওয়ামী লীগের সামনে শক্তিশালী কোনো প্রতিপক্ষও নেই।
আওয়ামী লীগ অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে সেটা স্বীকার করছেন দলটির কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারাও।


এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম বিবার্তাকে বলেন, আওয়ামী লীগ এখন তৃণমূল, ইউনিয়ন পর্যায় থেকে শুরু করে জাতীয় সংসদ পর্যন্ত সংগঠিত এবং শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। আওয়ামী লীগ শুধু দেশে সফল নয়, দেশের পাশাপাশি সারাবিশ্বে আওয়ামী লীগ সরকার এখন সফল। যা সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য। তিনি বিশ্বের সেরা প্রধানমন্ত্রীদের একজন।


আওয়ামী লীগের প্রধান বিরোধী দল বিএনপি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএনপি একটা গণবিকৃত দল হয়ে গেছে। ২০১৪ সালে নির্বাচন বর্জনের পর পেট্রোল বোমা হামলা, আগুন সন্ত্রাসী করে জনগণের কাছ থেকে বিছিন্ন হয়ে গেছে। ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় দুর্নীতি করেছে, লুটপাট করছে। যার কারণে জনগণ তাদের সাথে নেই।


তিনি আরো বলেন, এবারের নির্বাচনে তারা মনোনয়ন বাণিজ্য করেছে। নির্বাচনে জনগণের সাড়া না পেয়ে তারা নির্বাচন বর্জন করে। নির্বাচিতরা শপথ নেবে না বলে ঘোষণা দেয়। পরে আবার শপথ নিয়েছে, এখন আবার বলছে অতীতে তারা ভুল করেছে। সব মিলিয়ে বিএনপিতে একটা হজবড়ল অবস্থা চলছে। তাদের রাজনীতির কোনো ভবিষ্যৎ নেই। ২০ দলেরও ভাঙন ধরেছে। তারা সরকারে থেকেও ব্যর্থ, আবার বিরোধী দলে থেকে ব্যর্থ। আসলে জনগণ এখন বিএনপির কাছে থেকে কিছু আসা করে না।


বিবার্তা/আকরাম/জাকিয়া


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com