‘ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির বিকল্প নাই’
প্রকাশ : ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৮:৫৭
‘ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির বিকল্প নাই’
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির কোনো বিকল্প নেই। বাংলাদেশকে একটি মেধানির্ভর অর্থনীতির দেশে পরিণত করতে আমরা ইতোমধ্যে বিভিন্ন উচ্চতর প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।


বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশের হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ে এ উপলক্ষে এক শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। এসময় প্রতিমন্ত্রী প্রশিক্ষণার্থীদেরকে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।


তিনি বলেন, নির্বাচনী ইশতেহারের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বিভিন্ন প্রকল্প ও কর্মসূচির মাধ্যমে আমরা দেশের তৃণমূল পর্যায়ে প্রশিক্ষণ কার্যক্রম ছড়িয়ে দিতে চাই। এই লক্ষ্যের অংশ হিসেবে জেলা পর্যায়ে আইটি/ হাই-টেক পার্ক স্থাপন (১২টি জেলায়) প্রকল্পের আওতায় ৩০ হাজার তরুণ-তরুণীকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে।


আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রথম পর্যায়ে আমরা বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর মাধ্যমে ৩৪১১ জন EEE/CSE/IT/Computer Science/Software Engineering গ্রাজুয়েটের মধ্য থেকে ২০০ জনকে নির্বাচন করেছি। মেধাক্রম অনুসারে প্রথম ৫০ জন জাপান যাচ্ছে। আমি আশা করি এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আমরা দক্ষ আইটি কর্মী পাবো।


মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম এনডিসি বলেন, আমরা ইতোমধ্যে ১১ হাজারের অধিক ব্যক্তির প্রশিক্ষণ কার্যক্রম সম্পন্ন করেছি। বর্তমানে আরো প্রায় ৩১০০ ব্যক্তির প্রশিক্ষণ চলমান রয়েছে এবং আরো ৪৫ হাজার ব্যক্তিকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে।


তিনি বলেন, আমরা শুধু প্রশিক্ষণেরই ব্যবস্থা গ্রহণ করিনি, গুণগত প্রশিক্ষণ শেষে আমরা তাদের কর্মসংস্থান নিশ্চিত করেছি। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিভিন্ন আইটি কোম্পানিতে প্রায় ৪৪৭৬ ব্যক্তির কর্মসংস্থান হয়েছে। আমি বিশ্বাস করি এই প্রশিক্ষণ শেষে তোমরাও দেশের জন্য ভালো কিছু করতে পারবে।


উল্লেখ্য, বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন জেলা পর্যায়ে আইটি/হাই-টেক পার্ক স্থাপন (১২টি জেলায়) প্রকল্পের আওতায় ৩০ হাজার তরুণ-তরুণীকে আইটি প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। প্রকল্পের আওতায় নির্মিতব্য স্থাপনাসমূহের মধ্যে রয়েছে ১২টি জেলায় ৭ তলা (প্রতি তলা ১৫,০০০ বর্গফুট) মাল্টিটেনেন্ট ভবন নির্মাণ (স্টিল স্ট্রাকচার); ১২টি জেলায় ৩ তলা (প্রতি তলা ৭,০০০ বর্গফুট) ক্যান্টিন ও এমপি থিয়েটর ভবন (স্টিল স্ট্রাকচার); ৮টি জেলায় ৩ তলা (প্রতি তলা ৬,০০০ বর্গফুট) ডরমিটরি ভবন (আর সিসি স্ট্রাকচার) এবং ১২টি জেলায় ইলেকট্রো-মেকানিক্যাল কাজ। এছাড়া এই প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষায়িত ল্যাব স্থাপন করা হবে।


বিবার্তা/উজ্জ্বল/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com