দেশকে দেউলিয়াত্বের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে সরকার: রিজভী
প্রকাশ : ১০ আগস্ট ২০২২, ১৩:৫০
দেশকে দেউলিয়াত্বের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে সরকার: রিজভী
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

সরকার দেশকে দেউলিয়াত্বের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।


বুধবার (১০ আগস্ট) রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন তিনি।


তিনি বলেন, এই নিশিরাতের লুটেরা সরকার দেশকে দেউলিয়াত্বের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে। দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের ভান্ডার এখন শূন্য প্রায়। সরকার রিজার্ভের ভুল তথ্য দিয়ে জনগণের সাথে প্রতারণা করেছে। সরকার নিজেদের গদি টিকিয়ে রাখার জন্য সবকিছু নিয়ে লুকোচুরি খেলছে। কিন্তু প্রকৃত সত্য হচ্ছে ভিন্ন। প্রধানমন্ত্রী মিথ্যার ওপর বসে ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে একেক সময় একেক কথা বলছেন।


রুহুল কবির রিজভী বলেন, গত সোমবার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের হুমকিদিয়ে বলেছেন, ‘আসুন রাজপথে মোকাবেলা হবে, ফয়সালা হবে। ’আগুন নিয়ে খেলতে আসলে পরিণাম হবে ভয়াবহ। ’যতই বাধা আসুক সংবিধান অনুযায়ী আগামী জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আমরা রাজপথের পুরাতন খেলোয়াড়। বিএনপি তো এই পথে নতুন।” তবে ওবায়দুল কাদের আর একটি কথা বলেননি, রাজপথে থেকে কথা দিয়ে কিভাবে জনগণের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করতে হয়, সেটি বলেননি, সেই দৃষ্টান্তও তাদের আছে।


তিনি বলেন, বারবার আওয়ামী লীগের বিশ্বাসঘাতকতার কারণে বাংলাদেশের নিজস্ব ভূমিতে তারা গণতন্ত্রের শেকড় গজাতে দেয়নি। বাকশাল, নিশিরাতের নির্বাচন, বিনা ভোটের নির্বাচন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, সংবাদপত্রের কন্ঠরোধ সেটিরই উদাহরণ। ওবায়দুল কাদের সাহেবের কথাবার্তায় মনে হয় দেশটা তাদের পৈতৃক তালুক আর জনগণ তাদের আর্দালী। এদের একমাত্র সাধনা- ক্ষমতা অর্জন এবং ক্ষমতা লাভের আগে বা পরে কোন সময়েই তারা ন্যায়নীতির নির্দেশ গ্রাহ্য করেনি।


গত ১৩ বছর ধরে গোয়েবলসীয় সরকার দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন নিয়ে রুপকথা সাজিয়ে ভারি গর্ব করে আসছে উল্লেখ করে রিজভী বলেন, সরকার বলে আসছিল যে, দেশ নাকি সিঙ্গাপুর কানাডা অস্ট্রেলিয়াকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে। অথচ মেগা লুটপাটের জন্য অবিশ্বাস্য ব্যয়ে প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে, স্ফীত করে জিডিপির আকার, প্রবৃদ্ধি আর মাথাপিছু আয় দেখানোর প্রতিযোগিতা চলছিল সরকারি উন্নয়নের গল্পে। এখন আমরা দেখতে পাচ্ছি- বর্তমান বাংলাদেশে ভয়াবহ মূল্যস্ফীতি, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ শুন্য, দেশের বিকাশমান তৈরী পোশাক শিল্পের বিপর্যয়, দেশের বাইরের ক্রেতারা রপ্তানী আদেশ বাতিল কিংবা স্থগিত করছেন, রেমিট্যান্সে বিশাল ঘাটতি, চলতি হিসাবে ভারসাম্যহীনতা, রাজস্ব আয় ধ্বসে যাওয়া, ডলারের বিপরীতে টাকার মূল্য কমতে কমতে সামষ্টিক অর্থনীতিতে বিরাজ করছে এখন সর্বকালের নজীরবিহীন নৈরাজ্য।


এই নিশিরাতের সরকার দেশের অর্থনীতি শেষ করেছেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, এটি চোরের দেশ, ডাকাতের দেশ, গুম খুনের দেশ, ব্যাংক লুটের দেশ, ভোট চোরের দেশ, নারী ধর্ষণের দেশ হিসেবে এরা (সরকার) বিশ্বের বুকে বাংলাদেশের পরিচয় দিতে চাচ্ছে। তাদের চৌর্যবৃত্তির কারণেই বাংলাদেশের ভাবমূর্তিকে তারা মারাত্মকভাবে বিনষ্ট করছেন। চুরিতন্ত্রই হচ্ছে আওয়ামী লীগের রাষ্ট্রদর্শন। মিথ্যা বলাই আওয়ামী লীগের জীবিকা উপার্জনের একমাত্র পন্থা। লুটেরা সরকার আর তার দোসরদের অর্থ এবং ক্ষমতা লিপ্সার কারণে দেশ আজ এক গভীর সংকটের দিকে ধাবিত হচ্ছে।


বিবার্তা/ কিরণ/এসবি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com