দিবসের দিনেও থাকুন আকর্ষণীয়
প্রকাশ : ২৬ মার্চ ২০১৯, ০২:২৯
দিবসের দিনেও থাকুন আকর্ষণীয়
মডেল: জাকিয়া ইমি
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

স্বাধীনতা বাঙালির অহঙ্কার। যার চেতনা আমরা হৃদয়ে ধারণ করেছি। স্বাধীনতা দিবস ঘিরে এখন উৎসব হয়। লাল-সবুজের পোশাকে ছেয়ে যায় সারা দেশ। সাজসজ্জাতেও থাকে পতাকার রং। এগুলো শুধুই নিয়ম রক্ষার জন্য নয়, স্বাধীনতার চেতানা বুকে ধারণ করে প্রকাশের মাধ্যম মাত্র।


স্বাধীনতা দিবসের ছুটিতে সারাদিন ঘুরোঘুরি আর বাইরে খাওয়া দাওয়া তো রয়েছেই। আর ধুলোবলিতে আর হালকা ঘামে কি সাজ সারাদিন থাকে! হ্যাঁ, সাজ থাকবে।


দৈনন্দিন কাজগুলো ছাড়াও বহু ধরণের কাজ আমাদের পেছনে তাড়া করে বেড়াচ্ছে। আর এসব কাজের ভিড়ে অনেকেই আমরা নিজেকে একটু গোছালো দেখানোটাকে অসম্ভব মনে করি। ব্যস্ততায় নিজের দিকে নজর দেয়ার জন্যে তো অনেক সময় প্রয়োজন। কিন্তু অতো সময় কই!



অনেকেই মেকআপ করার কিছুক্ষণের মধ্যেই তা অনুজ্জ্বল হয়ে যায়। আর এতে চেহারা ভালো নয় বরং বিশ্রি হয়ে যায়। যদিও কিছু উপায় অবলম্বন করে মেকআপ সারাদিন ধরে রাখা যেতে পারে। এ লেখায় তুলে ধরা হলো তেমন কয়েকটি উপায়।


চলুন জেনে নিই, ব্যস্ত দিনের ইজি সল্যুশন।


আগেই কনসিলার ব্যবহার করুন


অনেকেই মেকআপ করার জন্য ফাউন্ডেশনের পর কনসিলার ব্যবহার করেন। যদিও ফাউন্ডেশনের আগেই এটি ব্যবহার করা যায়। এটি আপনার চোখের নিচে, আইলিডের ওপর ও নাকের নিচে বা ঠোঁটের ওপরের অংশে ব্যবহার করা যায়।


ভালো ফাউন্ডেশন


মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী করতে হলে ভালোভাবে ফাউন্ডেশন দিতে হবে। এটি আপনি যত ভালোভাবে দেবেন মেকআপ তত ভালো হবে। তবে অতিরিক্ত পরিমাণে এটি দেওয়া যাবে না। সঠিক মাত্রায় দিতে হবে যেন আপনার মেকআপ নিখুঁত হয়।


নিউট্রাল আইশ্যাডো


আইলাইনার হালকা হয়ে যাচ্ছে? এ সমস্যা সমাধান করতে পারে নিউট্রাল আইশ্যাডো। এক্ষেত্রে আঙুলে নিউট্রাল আইশ্যাডো লাগিয়ে চোখের চারপাশে লাগিয়ে দিন। এতে আইলাইনার আরও উজ্জ্বল ও আকর্ষণীয় হবে।


সঠিক আইলাইনার


অনেকেই আইলাইনার ব্যবহার করার কিছুক্ষণ পর দেখেন তা আগের মতো থাকে না। এ সমস্যা অনেক সময় সঠিক আইলাইনার ব্যবহার না করার কারণে ঘটে। এক্ষেত্রে আপনার মানসম্মত আইলাইনার ব্যবহার করতে হবে।


ঠোঁটকে গুরুত্ব দিন


মেকআপের সময় অনেকেই ঠোঁটকে গুরুত্ব দেন না। যদিও ঠোঁটের গুরুত্ব কখনোই কমে না। এক্ষেত্রে অনেকেই প্রথমে ব্যবহার করেন ক্রিম বেসড কনসিলার। এরপর তার ওপর লিপস্টিক ব্যবহার করলে সারাদিন তা উজ্জ্বল থাকে।


হাত নয়, ব্রাশ


মেকআপ ব্যবহারের সময় অনেকেই সঠিক উপকরণ ব্যবহার করেন না। এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে, যে জিনিসটি যেজন্য তৈরি তাই ব্যবহার করুন। ব্রাশ ব্যবহার করে যে মেকআপ করা উচিত তা হাত দিয়ে করলে কাজ হবে না। আপনার মেকআপের ব্রোনজার, পাউডার, আইশ্যাডো ও ব্লাশ ব্যবহারের ক্ষেত্রে ব্রাশই ব্যবহার করুন। এছাড়া সঠিক আকারের ব্রাশ ব্যবহার করাও গুরুত্বপূর্ণ।



হালকা ময়েশ্চারাইজার নিন


আপনি যে সময়েই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করেন তাতে কোনো অসুবিধা নেই। এটি হতে পারে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার সময় কিংবা সকালে গোসলের পর। তবে মনে রাখবেন ভারী ময়েশ্চারাইজারের বদলে হালকা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। কেনার সময় দেখে নেবেন ময়েশ্চারাইজারটি যেন বেশি গ্রিজি না হয়।


এই তো জেনে নিলেন, ব্যস্ততার দিনে কীভাবে চটজলদি সুন্দরভাবে নিজেকে প্রেজেন্ট করা যায়। প্রকৃতপক্ষে বেশী সময়ও কিন্তু লাগে না নিজেকে ফিটফাট এবং সুন্দর দেখাতে। কিছু বিষয়ের দিকে নজর দিলে ১০ মিনিটও কিন্তু লাগে না নিজেকে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে।


শুধু পোশাক আর মেইকআপ নয়, নজর রাখতে হবে পোশাকের সঙ্গে আর যা কিছু পরবেন, তার সব দিকেই! ব্যাগ ও জুতা হওয়া চাই পোশাকের সঙ্গে মানানসই। পুরোপুরি লাল না হলেও লাল রংয়ের ছোঁয়া আছে এমন ব্যাগ ও জুতা ব্যবহার করুন। সবুজ রংয়ের ব্যাগ ব্যবহার না করাই ভালো।


নিজেকে সুন্দর করে উপস্থাপন করাটা যে কোনো উপলক্ষে জরুরি। তাই উগ্রতা নয়, স্নিগ্ধতাই হোক আপনার পরিচয়।


টুকিটাকি


মোম থেকে মগ— সবখানেই লাল-সবুজের ছড়াছড়ি। আড়ং, যাত্রা এবং বিভিন্ন গিফটশপে লাল-সবুজ রংয়ের বাহারি মোম মন কেড়ে নেয় সহজেই। পতাকার রংয়ের সঙ্গে জড়ির কাজ করা মোমের প্রতি তরুণদের ঝোঁকটা একটু বেশি।


মগের গায়ে শুধু পতাকা নয়, ফুটে উঠেছে লাল-সবুজ রংয়ের নানান নকশা। বিভিন্ন গিফট শপের পাশাপাশি চাইলে কাঁটাবন কিংবা হাতিরপুল এলাকা থেকে পছন্দমতো লাল-সবুজ নকশায় রাঙিয়ে নিতে পারেন যে কোনো মগ।


স্বাধীনতা দিবসের উপহার হিসেবে এসব মগ বেশ নান্দনিক।


লাল-সবুজের ছটা লেগেছে নোটবুক, ডায়েরি কিংবা ছবি আঁকার খাতাতেও। মাঝখানে লাল বৃত্ত আর পুরো কভারটিই সবুজ। আবার সবুজ কভারের ওপর লাল রংয়ের দেশি মোটিফে আলপনা! এমন অনেক বাহারি নকশা ফুটে উঠেছে কাভার ডিজাইন হিসেবে। গ্রাসহোপারস কিংবা অন্যান্য খাতা-কলমের দোকান থেকে বেছে নিতে পারেন বিশেষ এ পণ্যটি।


চাইলে নিজের মতো করে তৈরি করে নিতে পারেন আপনার ডায়েরি কিংবা নোট বুকটির কভার। নীলক্ষেত-টিএসসি এলাকার বই বাঁধাই করেন যারা তাদের সাহায্য নিতে পারেন। এতে করে ব্যবহৃত অথবা নতুন দু’ই পাবেন স্বাধীনতা ছোঁয়া।


কভার হিসেবে বেছে নিতে পারেন নরম সুতি কাপড় কিংবা কাগজ। রং হিসেবে লাল-সবুজ বেছে নিয়ে নান্দনিক নকশা করে নিতে পারেন আপনার মনের মতো করে। বন্ধু কিংবা ছোট বড় সবার জন্যই এটি হতে পারে স্বাধীনতার মাসে সবচেয়ে সুন্দর উপহার।


সারা বছর হয়তো আপনি ওয়েস্টার্ন সাজ ও রংগুলো ব্যবহার করছেন, স্বাধীনতা দিবসের এ দিনটিতে একটু আলাদা বাঙালি সাজে উপস্থাপন করুন নিজেকে। দেখবেন শুধু নজরই কাড়বেন না, পাবেন বাহ বা ও।


বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com