সমাবর্তনে মেতেছে ঢাবি
ঢাবির সমাবর্তন সোমবার: উচ্ছ্বসিত গ্রাজুয়েটরা
প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২:০২
ঢাবির সমাবর্তন সোমবার:  উচ্ছ্বসিত গ্রাজুয়েটরা
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ৫২তম সমাবর্তন সোমবার (৯ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১ টায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে এ সমাবর্তনকে ঘিরে ক্যাম্পাসে উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। সমাবর্তন পাওয়া গ্রাজুয়েটদের উচ্ছ্বাসে উচ্ছ্বসিত এখন এই ক্যাম্পাস।


বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, এবারের সমাবর্তনে ২০ হাজার ৭৯৬ জন গ্রাজুয়েট অংশগ্রহণ করছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন ঢাবির চ্যান্সেলর ও রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ।



ঢাবিতে সমাবর্তন মহরা


সমাবর্তন বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাপানের টোকিও বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট ফর কসমিক রে রিসার্চের পরিচালক নোবেল বিজয়ী অধ্যাপক ড. তাকাকি কাজিতা। অনুষ্ঠানে ৯৮ জন কৃতী শিক্ষার্থী রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে স্বর্ণপদক গ্রহণ করবেন। সেই সাথে ৫৭ জনকে পিএইচডি এবং ১৪ জনকে এমফিল ডিগ্রি দেয়া হবে। ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজের নিবন্ধিত স্নাতকরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ঢাকা কলেজ ও ইডেন মহিলা কলেজ থেকে সরাসরি সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।


এর আগে গত বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সমাবর্তনের কস্টিউম (গাউন-টুপি) বিতরণ করেন। এরপরই মূলত শুরু হয় সমাবর্তনের আমেজ। গাউন ও টুপি নিয়ে সমাবর্তনে অংশগ্রহণকারীরা ক্যাম্পাসে মহড়া দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। গাউন আর টুপি পরে তারা দল বেঁধে ছবি তুলছেন, কেউবা হৈ চৈ করছেন, কেউবা নিত্য নতুন স্টাইলে ছবি তোলে ভাইরাল হওয়ার চেষ্টা করছেন। অনেকে আবার নিজের মা-বাবাকে সমাবর্তন উপলক্ষে ক্যাম্পাসে নিয়ে এসেছেন। তারা মা-বাবার গায়ে নিজেদের গাউন ও টুপি পরিয়ে ছবি তুলছেন, এ যেন ঢাবির অন্যরকম সৌন্দর্য। ছবি মহড়ায় প্রেমিক-যুগলও পিছিয়ে নেই। তারাও যেনো নিজেদের সেরা সময় কাটাচ্ছেন। অনেক শিক্ষার্থীকে আবার ক্যাম্পাস জীবন শেষ হয়ে যাওয়ায় আবেগী হতেও দেখা গেছে।



সমাবর্তন মহরায় বন্ধু-বান্ধবী


সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ অন্যান্য মাধ্যমেও পিছিয়ে নেই সমাবর্তন পাওয়া শিক্ষার্থীরা। গাউন আর টুপি পরে নতুন স্টাইলে ছবি তোলে নান্দনিক ক্যাপশনও লিখছেন তারা।


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রানিং শিক্ষার্থীরাও সিনিয়রদের এ আমেজে মেতেছেন। তারা সিনিয়রদের মোটর সাইকেলে গাউন ও টুপি পরে তোলা ছবিকে বলছেন, মোটর বাইক গ্রাজুয়েট, খাওয়ার ছবি যাদের কাছে তাদের খাদক গ্রাজুয়েট বলছেন, রিকশায় যাদের ছবি আছে, তাদের রিকশা গ্রাজুয়েট বলছেন , প্রেমিক-যুগলের ছবি পেলে তারা বলছেন ,কাপল গ্রাজুয়েট। অনেকের আবার উড়ন্ত ছবি দেখে তারা তাদেরকে উড়ন্ত গ্রাজুয়েটের নাম দিয়েছেন।


কথা হয় সমাবর্তনে অংশ নেয়া কয়েকজন ঢাবি শিক্ষার্থীর সঙ্গে। আইন বিভাগের শিক্ষার্থী আতিক উল্লাহ বিবার্তাকে বলেন, ‘প্রথমবারের মতো কনভোকেশনে অংশ নিচ্ছি। অনেক ভালো লাগছে, ছবি তুলছি। বিশ্ববিদ্যালয় ঘুরে ঘুরে বন্ধুদের নিয়ে ছবি তুলছি; যাতে এসময়টা স্মৃতিময় হয়ে থাকে’।


ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী সাঈদ হোসেন হোসেন বিবার্তাকে বলেন, সমাবর্তন সব শিক্ষার্থীদের জন্য একটি অসাধারণ মুহূর্ত। সবারই এটি নিয়ে প্রত্যাশা থাকে। আমিও আমার স্বপ্নের দিনটি উদযাপন করতে মা-বাবাকে নিয়ে এসেছি। মা-বাবাও আমার গ্রাজুয়েট হওয়ার আনন্দ উপভোগ করছেন।



সমাবর্তন মহরায় পিতা-পুত্র


সমাবর্তনের প্রস্তুতি সম্পর্কে ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান শনিবার (৭ ডিসেম্বর) ক্যাম্পাসে এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, উৎসবমুখর পরিবেশে সমাবর্তন আয়োজনের জন্য সব প্রস্তুতি ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে।


বিবার্তা/রাসেল/জাই

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com