এবার ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার মহারণ
প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৯, ১০:৫৪
এবার ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার মহারণ
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ফাইনালের আগে ফাইনাল। এবারের বিশ্বকাপে সেরা দুই দল। এখন সেমিফাইনাল ম্যাঠে গড়ানোর অপেক্ষা মাত্র। ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া ঐতিহ্য, বৈরিতায় যেন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর লড়াই।


বৃহস্পতিবার বার্মিংহামের এজবাস্টনে বাংলাদেশ সময় দুপুর সাড়ে ৩টায় শুরু হবে হাইভোল্টেজ ম্যাচটি। বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমি ফাইনালে স্বাগতিকদের মুখোমুখি হবে ক্রিকেট ইতিহাসের সফল দল অস্ট্রেলিয়া।


এখন পর্যন্ত র‌্যাংকিং শীর্ষে ইংল্যান্ড। তাদের রেটিং পয়েন্ট ১২৩; আর ১১২ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে তালিকার চতুর্থ স্থানে অস্ট্রেলিয়া। তবে হাইভোল্টেজ এ সেমিতে এখন র‌্যাংকিং কোনো বিষয় হয়ে দাঁড়াবে না। মহারণের মাঠে ব্যাট-বলে পারফর্ম করেই ফাইনালের টিকিট কাটতে হবে।


গ্রুপ পর্বের দু’দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে অজিদের বিপক্ষে ৬৪ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছিল ইংলিশরা। তবে গ্রুপ পর্বের হারের স্মৃতি ভুলে তারা ফাইনালের টিকিটের জন্য মরিয়া।


এরই মধ্যে বুধবার প্রথম সেমি ফাইনালে ভারতকে ১৮ রানে হারিয়ে লর্ডসের ফাইনালের টিকিট কেটেছে গতবারের রানার্সআপ নিউজিল্যান্ড।


বিশ্বকাপে আধিপত্য অস্ট্রেলিয়ার। ১১ আসরে পাঁচবার যে টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়ে নিজেদের একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করেছে অস্ট্রেলিয়া, তার শুরুটা ১৯৮৭ থেকে।


মাঠের লড়াইয়েও দারুণ ফর্মে দু’দল। গ্রুপ পর্বে দ্বিতীয় স্থানে থেকে শেষ করে অজিরা। বিশ্বকাপে এবার তারা হেরেছে মাত্র দুটি ম্যাচ। আর ইংলিশরা শুরুটা দারুণ করলেও টানা কয়েকটি ম্যাচ হেরে সেমিতে খেলার সম্ভাবনা প্রায় শেষ হতে বসেছিল। শেষ পর্যন্ত ভারত এবং নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে জায়গা পোক্ত হয় সেমিতে।


ভেন্যু:


ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ এর দ্বিতীয় সেমিফাইনালসহ পাঁচটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হচ্ছে এজবাস্টন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে। বাংলাদেশ বনাম ভারতের হাইভোল্টেজ ম্যাচটিও অনুষ্ঠিত হয় এখানে।


টেস্ট ক্রিকেটে স্টেডিয়ামটির আবির্ভাব ঘটে ১৯০২ সালে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ডের ম্যাচ দিয়ে। সর্বশেষ টেস্ট ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয় ২০১৮ সালে। ১৯০২ সালে টেস্টে অভিষেক ঘটলেও একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট যাত্রা শুরু হয় ১৯৭২ সালে। ইংল্যান্ড বনাম অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার ম্যাচ দিয়েই শুরু হয় ওডিআই ক্রিকেটে এজবাস্টন ক্রিকেট গ্রাউন্ডের যাত্রা।


এ মাঠে প্রায় ২৫ হাজার দর্শক একসঙ্গে ম্যাচ উপভোগ করতে পারবেন এ মাঠে। ১৯৭২ সালে অভিষেকের পর থেকে অনুষ্ঠিত হওয়া একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ ইংল্যান্ডের। ২০১৫ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৪০৮ রানই এ স্টেডিয়ামের এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ।


বিশ্বকাপে হেড টু হেড মোট ম্যাচ:
আটটি, ইংল্যান্ড জয়ী: দুটি। অস্ট্রেলিয়া জয়ী: ছয়টি। মুখোমুখি দুই দল মোট ম্যাচ: ১৪৮টি, ইংল্যান্ড জয়ী: ৬১টি। অস্ট্রেলিয়া জয়ী: ৮২টি। ড্র: শূন্যটি ম্যাচ, পরিত্যক্ত: তিনটি।


দৃষ্টি:
জেসন রয়, জোফরা আর্চার (ইংল্যান্ড), ডেভিড ওয়ার্নার, মিচেল স্টার্ক (অস্ট্রেলিয়া)।


ইংল্যান্ড স্কোয়াড:
ইয়ন মরগান (অধিনায়ক), মঈন আলি, জনি বেয়ারস্টো, জস বাটলার, টম কুরান, জোফরা আর্চার, লিয়াম ডসন, জেমস ভিঞ্চ, লিয়াম প্লাংকেট, আদিল রশিদ, জো রুট, জ্যাসন রয়, বেন স্টোকস, ক্রিস ওকস এবং মার্ক উড।


অস্ট্রেলিয়া স্কোয়াড:
অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), জেসন বেহেরনড্রফ, অ্যালেক্স ক্যারি (উইকেটরক্ষক), নাথান কোল্টার-নাইল, প্যাট কামিন্স, ম্যাথু ওয়েড, নাথান লায়ন, পিটার হ্যান্ডসকম্ব, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, কেন রিচার্ডসন, স্টিভ স্মিথ, মিচেল স্টার্ক, মার্কাস স্টয়নিস, ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যাডাম জাম্পা।


বিবার্তা/রবি/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

বি-৮, ইউরেকা হোমস, ২/এফ/১, 

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com