‘আগামী নির্বাচন হবে সুষ্ঠু, অবাধ ও প্রতিযোগিতামূলক’
প্রকাশ : ২৯ জুন ২০২২, ২১:১৯
‘আগামী নির্বাচন হবে সুষ্ঠু, অবাধ ও প্রতিযোগিতামূলক’
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদের বেশিরভাগ সময় আমরা পূর্ণ করেছি। দেশের সবকটি রাজনৈতিক দলই নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। আমি মনে করি, সব দলের অংশগ্রহণে আগামী নির্বাচনটি হবে সুষ্ঠু, অবাধ ও সুস্থ প্রতিযোগিতামূলক।


তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নের জন্য টেকসই গণতন্ত্রের প্রয়োজন। আর সেজন্যেই আমাদের সবাইকে দেশপ্রেমে উজ্জীবিত হয়ে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে।


২৯ জুন, বুধবার একাদশ জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশনে প্রস্তাবিত ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।


রওশন এরশাদ বলেন, করোনাভাইরাস সংকট মোকাবিলায় গুরুত্ব দিয়ে প্রণয়ন করা দেশের ৫১তম বাজেট প্রস্তাব করা হয়েছে। তবে করোনা মহামারির সংকট কাটার আগেই শুরু হয়েছে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ, যার প্রভাব ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বব্যাপী। বিশেষ করে খাদ্য-পণ্যের বাজারে বিরাজ করছে চরম অস্থিরতা। এমন এক সময়ে ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা করা হলো। করোনা মহামারি-পরবর্তী নতুন বিশ্বের সামনে কঠিন এক চ্যালেঞ্জ এনে দিয়েছে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ। যার প্রভাবে সারা বিশ্বেই জ্বালানিসহ সব ধরনের পণ্যের মূল্য বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে।


আমদানি কমানোর কৌশল নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আমি বাজেটের ওপর ইস্যুভিত্তিক বিস্তারিত আলোচনায় যাচ্ছি না। তবে প্রস্তাবিত বাজেটে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষি, সামাজিক সুরক্ষা এবং বিনিয়োগ ও কর্মসংস্থান খাতে বরাদ্দ বৃদ্ধি করার জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি। সর্বজনীন পেনশন চালু ও যুব-বাজেটের জন্য অর্থমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। তবে মেডিটেশন সেবা একটি মানসিক স্বাস্থ্যসেবা কাজেই একে ভ্যাটের আওতামুক্ত রাখা উচিত।


বিরোধী দলীয় নেতা বলেন, অতি বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলের কারণে সৃষ্ট ভয়াবহ বন্যায় বড় মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে সিলেট, উত্তরবঙ্গসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে। বিপুল সংখ্যক রাস্তা বাড়ি-ঘর এবং ফসলি জমি প্লাবিত হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে মানুষ অবর্ণনীয় কষ্টে আছে। আমি মনে করি বন্যা মোকাবিলায় স্বল্পমেয়াদি ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা, গ্রহণ ও দ্রুত বাস্তবায়ন করা প্রয়োজন।


তিনি বলেন, বন্যাপরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকারকে জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। আমাদের যা দরকার তা হলো সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ, যাতে করে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্তদের কাছে অবিলম্বে সাহায্য পৌঁছানো যায়। দীর্ঘমেয়াদে বন্যা নিয়ন্ত্রণের জন্যও সরকারের ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।


রওশন এরশাদ বলেন, দেশের মানুষের স্বপ্নের পদ্মা সেতু আজ বাস্তবে রূপ নিয়েছে। পদ্মা সেতু শুধু একটি অবকাঠামো নয়, এটা দেশের সক্ষমতা ও আত্মমর্যাদার প্রতীক। বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশে, এতো সমস্যা মোকাবিলা করে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা নির্মাণ সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে। এ জন্য জাতির পিতার কন্যা প্রধানমন্ত্রীকে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানাচ্ছি।


বিবার্তা/জেএইচ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com