থাইল্যান্ডে পর্যটকবাহী নৌকাডুবি, অর্ধশতাধিক নিহতের শঙ্কা
প্রকাশ : ০৭ জুলাই ২০১৮, ১৩:২৮
থাইল্যান্ডে পর্যটকবাহী নৌকাডুবি, অর্ধশতাধিক নিহতের শঙ্কা
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

থাইল্যান্ডের পশ্চিম উপকূলীয় দ্বীপ ফুকেটের কাছে পর্যটকবাহী একটি নৌকা ডুবে প্রায় ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনায় ৩৩ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ অন্তত ২৩ জনের সন্ধানে ডুবুরিদের পাশাপাশি হেলিকপ্টার মোতায়েন করা হয়েছে।


বৃহস্পতিবার উল্টে যাওয়া নৌকাটিতে মোট ১০৫ আরোহী ছিলেন। এদের মধ্যে থাই ক্রু ও ট্যুর গাইড ১২ জন, বাকি ৯৩ জনই চীনা পর্যটক বলে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে। এ পর্যন্ত ৪০ জনের বেশি আরোহীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।


শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত ৩৩টি মরদেহ উদ্ধারের খবর দিয়েছেন প্রাদেশিক গভর্নর নোরাফাত প্লদথং জানিয়েছেন। ডুবে যাওয়া নৌযান ফিনিক্সের মধ্যে আরো কিছু মৃতদেহ থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।


নিখোঁজদের সন্ধানে ডজনের বেশি ডুবুরির তৎপরতার চিত্র দেখা গেছে। শান্ত সমুদ্র ও পরিষ্কার আকাশের কারণে দিনব্যাপী অভিযান চালাতেও কোনো ধরনের সমস্যা হয়নি।


মেরিন পুলিশ বলছে, তাদের ডুবুরিরা ১৩০ ফিট গভীরে গিয়েও অনুসন্ধান অব্যাহত রেখেছেন।


“একটি দিন ও রাত পার হয়ে গেছে,” ডুবে যাওয়া নৌকাটির ভেতর কাউকে জীবিত পাওয়া যাবে না বলে শঙ্কার কথা জানিয়েছেন মেরিন বিভাগের উপ মহাপরিচালক ক্রিতপেচ চাইচুয়াই।


নৌকাডুবির ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। উপকূল থেকে ৭ কিলোমিটার দূরে উল্টে যাওয়া নৌযানটি নিবন্ধিত ছিল, ঘটনার সময় সেটিতে অতিরিক্ত যাত্রী ছিল না বলেও জানিয়েছে তারা।


বর্ষার মাঝামাঝি হওয়ায় থাইল্যান্ডের পশ্চিম উপকূলের ভারত মহাসাগরে প্রায়ই দমকা বাতাস ও ঝড়ের দেখা মেলে। এসময় নৌকা নিয়ে সমুদ্রে নামার ক্ষেত্রে গাইডদের আরও সতর্ক হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন ট্যুরিস্ট পুলিশ ব্যুরোর উপপ্রধান মেজর জেনারেল সুরাচাতে হাকপার্ন।


“সাধধান হও, প্রকৃতি কৌতুকের বিষয় নয়। ট্যুরিস্ট পুলিশ আগেই ফুকেটের ব্যবসায়ীদের উপকূলে নৌকা চালানোর ব্যাপারে সতর্ক করেছিল; কিন্তু তারা সে নির্দেশনা লংঘন করেছে,” সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেইসবুকে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন হাকপার্ন।


এ বিষয়ে কোনো ধরনের মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে ফিনিক্সের পরিচালনাকারী কর্তৃপক্ষ টিসি ব্লু ড্রিম।


সড়ক ও নৌ নিরাপত্তার ক্ষেত্রে থাইল্যান্ডের রেকর্ড ভালো নয়। অনেক ট্যুর অপারেটরই গাড়িতে সিটবেল্ট বাঁধা কিংবা নৌকায় লাইফজ্যাকেট রাখার মতো নিরাপত্তার সাধারণ নিয়মকানুন মানতে চান না বলেও অভিযোগ আছে।


বৃহস্পতিবার থাইল্যান্ডে পর্যটকবাহী আরও একটি নৌকা উল্টে গেলেও সেখানে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছে পোতাশ্রয়ের ওয়াটার সেইফটি বিভাগ।


উল্টে যাওয়া ফিনিক্সের আরোহীদের উদ্ধার অভিযানে সহযোগিতা করতে ফুকেটে একটি দল পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্যাংককের চীনা দূতাবাস। নাগরিকদের সহায়তা দিতে দক্ষিণ থাইল্যান্ডের কনসুলেট দপ্তরের কর্মীরাও ঘটনাস্থলে অবস্থান করছেন বলে নিশ্চিত করেছে তারা।


“সক্রিয় অনুসন্ধান ও উদ্ধার প্রচেষ্টার জন্য থাইল্যান্ডের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছে চীন,” বেইজিংয়ে নিয়মিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ মন্তব্য করেছেন চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লু ক্যাং। সূত্র: রয়টার্স


বিবার্তা/শারমিন/শাহনাজ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com